বাংলাদেশের জনপ্রিয় চক্ষু হাসপাতাল-ডাক্তারের তালিকা, ঠিকানা, হেল্পলাইন নম্বর

সামান্য অবহেলায় একজন মানুষের দৃষ্টিশক্তি হারাতে পারে। তাই চোখের যত্ন পেতে অনেক রোগী প্রথমে বাংলাদেশ চক্ষু হাসপাতাল খোঁজ করেন। তাই আজকে আমি আপনাদেরকে বাংলাদেশের জনপ্রিয় কিছু চক্ষু হাসপাতালে, নাম ঠিকানা এবং ডাক্তার নাম তালিকা সহ আপনাদেরকে জানাবো।

 Related post:বাংলাদেশের সেরা ক্যান্সার হাসপাতাল

বাংলাদেশের জনপ্রিয় চক্ষু হাসপাতাল

বাংলাদেশের জনপ্রিয় চক্ষু হাসপাতাল

বাংলাদেশ চক্ষু হাসপাতাল ঢাকা

আপনি যদি চোখের পূর্ণ মসৃণ চিকিৎসা চান, তাহলে বাংলাদেশ চক্ষু হাসপাতাল, ঢাকা হবে আপনার জন্য অন্যতম মাধ্যম। আমাদের অনেক গুরুত্বপূর্ণ ভিজিটর যারা চোখের হাসপাতাল খুঁজছেন তাদের জন্য আমাদের এই প্রচেষ্টা।

বাংলাদেশের অন্যতম চক্ষু হাসপাতালঢাকা। যেখানে নিয়মিত আন্তর্জাতিক মানের চিকিৎসা সেবা প্রদান করা হচ্ছে। চোখ মানুষের জীবনের অন্যতম সম্পদ। তাই আশা করি সঠিক চিকিৎসায় আপনার দৃষ্টিশক্তি প্রখর হবে।

তাই আপনি যদি বাংলাদেশ চক্ষু হাসপাতাল ঢাকা খুঁজছেন, আপনি সঠিক জায়গায় আছেন। তাই আমাদের সাথে থাকুন এবং সব তথ্য রাখুন।

সার্বিক সহযোগিতার মাধ্যমে সেবা প্রদান করে। রোগ নয়, মুক্তিই তাদের একমাত্র কামনা। তাই সব ধরনের ঝামেলা থেকে নিজেকে মুক্ত রাখতে বাংলাদেশ চক্ষু হাসপাতাল আপনার জন্য সহায়ক হবে। আধুনিক চিকিৎসা সরঞ্জামের মাধ্যমে চিকিৎসা সেবা প্রদান এখানকার অন্যতম বৈশিষ্ট্য।

ঠিকানা এবং অবস্থান: 78, সাতমসজিদ রোড (27 রোডের পশ্চিম), ধানমন্ডি, ঢাকা, 1205

ফোন: 09666-787878, খোলা সময়: প্রতিদিন, সব সময়।

বাংলাদেশ চক্ষু হাসপাতাল ঢাকার সুযোগসুবিধা: বাংলাদেশ চক্ষু হাসপাতাল ঢাকা বাংলাদেশে অবস্থিত একটি আন্তর্জাতিক মানের চিকিৎসা সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান। যেখানে যেকোনো রোগী তাদের কাঙ্খিত সেবা পেতে পারেন। বিগত বছরগুলোতে বাংলাদেশ চক্ষু হাসপাতাল আন্তর্জাতিক খ্যাতি অর্জন করেছে। এর প্রধান কারণগুলো হলো ডিজিটাল অপারেশন থিয়েটার, চিকিৎসকদের প্যানেল, পরীক্ষার সুবিধা, প্রশিক্ষণ ফেলোশিপ, চক্ষুদান এবং সর্বোপরি বাসস্থান।

দেখবেন হাসপাতালে তিনটি ডিজিটাল অপারেশন থিয়েটার আছে। সঠিক তথ্য প্রদানে ডিজিটাল টুলের ভূমিকা অপরিসীম। যা এখানে আছে। এখানকার সমৃদ্ধ স্বাস্থ্যকর পরিবেশ 10 থেকে 20 শতাংশ রোগীকে সুস্থ করে তোলে।

যেখানে একাধিক বিভাগের একাধিক অপারেশন থিয়েটার রয়েছে।

আমি কিভাবে একটি অ্যাপয়েন্টমেন্ট পেতে পারি?

আপনি যদি বাংলাদেশ চক্ষু হাসপাতাল ঢাকার অধীনে চিকিৎসা সেবা পেতে চান তাহলে আপনাকে অগ্রিম সিরিয়াল কল করতে হবে। নিচে একজন নির্বাহী কর্মকর্তার ফোন নম্বর দেওয়া হল যাতে যোগাযোগ করে সহজেই ভর্তি হতে পারেন।+02-9102264

বাংলাদেশ চক্ষু হাসপাতালের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের তালিকা

মাহবুবুর রহমান চৌধুরী প্রফেসর

M.B.B.S., F.C.P.S.

কনসালটেন্ট এবং সার্জন

চেয়ারপারসন,

বাংলাদেশ চক্ষু হাসপাতাল ইনস্টিটিউট লি

নিয়াজ আব্দুর রহমান

M.B.B.S., D.O., M.P.H. (ইউ.এস..) ফেলো ভাইরিও রেটিনা

কনসালট্যান্ট ভিরিও রেটিনা

পরিচালন অধিকর্তা

বাংলাদেশ চক্ষু হাসপাতাল ইনস্টিটিউট

মোঃ আলী আকবর

M.B.B.S. (D.M.C.), D.O. (D.U.), M.C.P.S. (B.C.P.S.), F.C.P.S. (B.C.P.S.)

পরামর্শদাতা

গ্লুকোমা, ছানি সার্জারি

কামাল হায়দার খান

M.B.B.S., D.O., M.C.P.S., MS

গ্লুকোমা বিশেষজ্ঞ এবং চাকো সার্জন

পরামর্শক পরিচালক

বাংলাদেশ চক্ষু হাসপাতাল

মোঃ তাহির রহমান

M.B.B.S., D.O., MS, MMEd

অকুলোপ্লাস্টিক, ক্যাটারাক্ট এবং রিফ্র্যাক্টিভ সার্জারি, কন্টাক্ট লেন্স

L.V.P.E.I., হায়দ্রাবাদ (ভারত)- চক্ষু ডায়াগনস্টিকসে অ্যাডভান্সড কোর্স

ভাসান আই হাসপাতালে লেজার ডিসিআরএর প্রশিক্ষণ, চেন্নাই (ভারত)

কাজী শাব্বির আনোয়ার

M.B.B.S., D.O.

ফেলো পেডিয়াট্রিক অপথালমোলজি এবং স্ট্র্যাবিসমাস.এমডি ইউ.বি.সি. কানাডা)

পরামর্শদাতা

শিশুদের চোখের যত্ন এবং প্রাপ্তবয়স্ক স্ট্র্যাবিসমাস

জিয়াউল আহসান মুক্তা

M.B.B.S., D.O., MS(Orth.)

পরামর্শদাতা

ভিরিওরেটিনা, ছানি এবং ব্যাপক চক্ষুবিদ্যা

বাংলাদেশের চক্ষু চিকিৎসক ডা

সারোয়ার জাহান মুকতাফী

M.B.B.S., E.C.F.M.G. প্রত্যয়িত (ইউ.এস..), এম.এস.

পরামর্শদাতা

সাধারণ চক্ষুবিদ্যা, ছানি, মেডিকেল রেটিনা এবং ওকুলোপ্লাস্টি

এম নজরুল ইসলাম

M.B.B.S., D.O., M.C.P.S. (অপ্ট.), F.C.P.S. (অপ.)

চাকো সার্জারিতে ফেলো (ব্যাংকক)

গ্লুকোমায় আন্তর্জাতিক ফেলো (ইউ.এস..)

গ্লুকোমা বিশেষজ্ঞ এবং চাকো সার্জন

জাহাঙ্গীর আলম মুকুট

M.B.B.S., MS

পরামর্শদাতা

ছানি/চাকো সার্জারি, জেনারেল অপথালমোলজি

ইসলামিয়া চক্ষু হাসপাতাল

চক্ষু রোগীদের অন্ধত্বসহ সকল চোখের চিকিৎসা নিশ্চিত করতে ইসলামিয়া চক্ষু হাসপাতালের যাত্রা শুরু হয়েছে। 29 জুলাই, 1970 এই হাসপাতালটি ইস্পাহানির উদ্যোগে নির্মিত হয়েছিল। এটি একটি আধাসরকারি প্রতিষ্ঠান।

ঠিকানা এবং যোগাযোগ

ফার্মগেট, শেরেবাংলা নগর, ঢাকা১২১৫। (তিন) তলা হাসপাতাল ভবনটি গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের প্রাণী সম্পদ বিভাগের বিপরীতে অবস্থিত।

ফোন: 8112858, 9119315; মেইল:[email protected]

ইসলামিয়া চক্ষু হাসপাতাল বন্ধের দিন?

প্রতিদিন সকাল ৮টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত আউটডোর হাসপাতালের কার্যক্রম চলে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা পর্যন্ত। 220 শয্যার হাসপাতালে মোট 11টি কেবিন রয়েছে। সার্বিক পরিচর্যার জন্য 60 জনেরও বেশি লোক ডাক্তার হিসাবে নিযুক্ত রয়েছে। এটি শুক্রবার এবং সরকারি ছুটির দিন ছাড়া সব দিন খোলা থাকে।

বহির্বিভাগে চিকিৎসা সেবা

কাউন্টার থেকে ২০ টাকা মূল্যের টিকিট কিনে বহির্বিভাগে ডাক্তার দেখানোর ব্যবস্থা রয়েছে। মোট 8টি বিভাগ রয়েছে। এগুলো হল– 1. সাধারণ চক্ষুসেবা, 2. প্রতিসরণ ত্রুটি, 3. অ্যাম্বলিওপিয়া, 4. স্কুইন্ট, 5. ছানি, 6. আঘাত, 7. শিশুর চোখের রোগ।.

অপারেশন চার্জ

চোখের ছানি সার্জারিসহ জটিল সকল অপারেশন এখানে করা হয়। অপারেশন চার্জ রোগের তীব্রতা এবং ডাক্তারদের উপর নির্ভর করে নির্ধারিত হয়।

বিশেষজ্ঞ ডাক্তার

হাসপাতালে স্থায়ী অস্থায়ী চিকিৎসকসহ মোট ১৫ জন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক রয়েছেন। যারা ৬টি চেম্বারে রোগী দেখেন। রোগীদের যথাযথ যত্নের জন্য 75 জন প্রশিক্ষিত এবং 25 জন অপ্রশিক্ষিত নার্স রয়েছে।

টেস্ট সুবিধা

এখানে সব চোখের পরীক্ষা করা হয়। খরচের পরিমাণ রোগের মাত্রার উপর নির্ভর করে।

কেবিন, ওয়ার্ড

216 শয্যার এই হাসপাতালে মোট 18টি কেবিন এবং 10টি ওয়ার্ড রয়েছে। কেবিন ভাড়া 1000 থেকে 2000 টাকা, ভিআইপি কেবিন ভাড়া 2500 টাকা। ওয়ার্ডে প্রথম ১০ দিন ভাড়া দিতে হয় না। তিন দিন পর আপনাকে টাকা দিতে হবে। 145 থেকে টাকা কেবিন/ওয়ার্ডে সিট পেতে আপনাকে সার্চ ডেস্কের সাথে যোগাযোগ করতে হবে। ভর্তির পর রোগীকে ওয়ার্ড বা কেবিনে পাঠানো হয় যেখানে আসন খালি থাকে।

ক্যান্টিন, অভিযোগ বক্স, লিফট

জনসাধারণের খাওয়াদাওয়ার জন্য হাসপাতালের পেছনে একটি ক্যান্টিন রয়েছে। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ রোগীদের অভিযোগ মূল্যায়নের জন্য একটি অভিযোগ বাক্স স্থাপন করেছে। কোনো অভিযোগ থাকলে তা লিখিতভাবে অভিযোগ বক্সে দিতে হবে।

মক্কা চক্ষু হাসপাতাল উত্তরা

আপনি যদি ভাবছেন সেরা চক্ষুরোগ বিশেষজ্ঞ (চক্ষু বিশেষজ্ঞ) কোথায় পাবেন, আপনাকে অবশ্যই আমাদের চোখের হাসপাতালে যেতে হবে। আমাদের চিকিত্সকরা আপনার চোখের জন্য সর্বোত্তম চিকিত্সা নিশ্চিত করে ক্ষেত্রে বিখ্যাত। আমাদের উচ্চ যোগ্য বিশেষজ্ঞদের চোখের বিভিন্ন রোগের চিকিৎসায় বহু বছরের অভিজ্ঞতা রয়েছে।

ছানি একটি রোগ যা বেশিরভাগ বয়স্ক জনগোষ্ঠীর মধ্যে ঘটে। ছানির চিকিৎসার জন্য অবিলম্বে চিকিৎসকের পরামর্শ প্রয়োজন। আল নূর চক্ষু হাসপাতাল ছানি অস্ত্রোপচারের জন্য লেজার স্বয়ংক্রিয় প্রযুক্তি সরবরাহ করে যা একটি ব্লেডহীন এবং ব্যথাহীন পদ্ধতি। আমাদের ডাক্তাররা সফলভাবে ছানি রোগীদের চিকিৎসা করেছেন এবং আবার তাদের দৃষ্টিতে জীবন ফিরিয়ে এনেছেন।

হাসপাতাল শুক্রবার বাদে প্রতি কর্মদিবসে খোলা থাকে (রাত 8টা থেকে রাত 8টা পর্যন্ত), সরকারী ঈদের ছুটির দিনগুলো জরুরী সময়সূচীতে খোলা থাকে। আরও জানতে কল করুন +880258153763 বা আমাদের সাথে চ্যাট করুন।

লায়ন্স চক্ষু হাসপাতাল ঢাকা

লায়ন্স চক্ষু হাসপাতাল বাংলাদেশ লায়ন্স ফাউন্ডেশনের একটি গর্বিত প্রকল্প। হাসপাতালটি বাংলাদেশ সরকারের স্বাস্থ্য পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের অনুমোদনে 1986 সালে প্রতিষ্ঠিত হয়। হাসপাতালের 5 তলা রয়েছে এবং মোট ফ্লোরের আয়তন 6000 বর্গফুট। হাসপাতালটি নিজস্ব জমিতে অবস্থিত।

ঠিকানা এবং অবস্থান

বাংলাদেশ লায়ন্স ফাউন্ডেশন,লায়ন্স বিল্ডিং, বেগম রোকেয়া স্মৃতিসৌধ,আগারগাঁও, ঢাকা-1207

ফোন: + 8-02-9131990, + 6-02-6110694, + 6-02-6156152।ফ্যাক্স: +6-02-6156152।ইমেইল: [email protected],ওয়েব: www.blfbd.org

এটি আগারগাঁওয়ে আইডিবি ভবন থেকে 100 গজ উত্তরে অবস্থিত।

লক্ষ্য এবং উদ্দেশ্য

  • ·        সাশ্রয়ী মূল্যে গুণমানের চোখের যত্ন পরিষেবা প্রদান করা।
  • ·        চক্ষু বিশেষজ্ঞ তৈরি করতে।
  • ·        চোখের যত্ন এবং চিকিৎসা সেবা উন্নত করা।

ডাক্তার

মোট 35 জন ডাক্তার আছে। এর মধ্যে 20টি স্থায়ী এবং 15টি অস্থায়ী। চিকিৎসকরা সাধারণত সকাল ১০টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত রোগী দেখেন। নিম্নে কয়েকজন চিকিৎসকের নাম দেওয়া হল:

  • ·      অধ্যাপক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) নজরুল ইসলাম,পরিচালক কাম চিফ কনসালটেন্ট,এমবিবিএস – 1972 ডিও – 1979 FCPS – 1989

  • ·        আবুল বাশার শেখ প্রফেসর ,চক্ষুবিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক ,এমবিবিএস – 1986 এফসিপিএস (ওপিএইচ) – 1998
  • ·        মুহাম্মদ জিয়াউল করিম ,সহযোগী অধ্যাপক,এমবিবিএস – 1976 ডিও – 1998 FCPS – 2004

  • ·        ডাঃ মোঃ মাহবুবর রহমান,সহযোগী অধ্যাপক,MBBS – 1980 DO – 1985 MPH (Oph)- 2006

  • ·        মোঃ শহীদুল হক ,সহকারী অধ্যাপক,MBBS – 1976 DOMS – 1984

  • ·        লিয়াকত আলী তালুকদার ডা,সহকারী অধ্যাপক,এমবিবিএস – 1982 ডিও – 1996

  • ·        সালমা পারভিন ,সহকারী অধ্যাপক,এমবিবিএস – 1990 ডিও – 1999 FCPS – 2007

  • ·        সান ইয়াত রাব্বি ,আবাসিক সার্জন (সহকারী অধ্যাপক),এমবিবিএস – 1995 ডিও -2004 এমসিপিএস – 2005

  • ·        কামাল সুলতান ,প্যাথলজি কনসালটেন্ট,এমবিবিএস, এম ফিল (পথ)

  • ·        ডাঃ এস.এম. সারোয়ার,অ্যানেস্থেসিওলজি কনসালটেন্ট,MBBS-1989 গ্রেডিং কোর্স ইন অ্যানেস্টিলজি-1995 এএমসিতে

  • ·        রেজাউল করিম ,সিনিয়র কনসালটেন্টএমবিবিএস 1982 এমসিপিএস (অপথ)-1996 ডিও পাস 1997

  • ·        আবুল হোসেন ,পরামর্শদাতা,2001-09-10,এমবিবিএস – 1986 ডিও – 2001

চিকিৎসা সেবা

এখানে চোখের বিভিন্ন রোগের চিকিৎসা সেবা দেওয়া হয়। এর মধ্যে রয়েছে শিশুর চোখের সমস্যা, চোখের আঘাত, চোখের লেন্স এলোমেলো হয়ে যাওয়া, এক চোখ অন্যটির চেয়ে ছোট, বয়সজনিত চোখের সমস্যা, ঝাপসা দৃষ্টি, ছানি, কর্নিয়ার সমস্যা, রেটিনার সমস্যা, ঝাপসা দৃষ্টি, চোখের আঘাত, চোখের জ্বালা, চোখের অ্যালার্জি, চোখের সমস্যা। জ্বালা, চুলকানি চোখ, চোখে পানি পড়া, চোখ লাল হওয়া, চোখ লাল হওয়া, চোখের কালো পাথরে সাদা দাগ, ব্যথা, আলোতে অসহিষ্ণুতা, দৃষ্টিশক্তি হ্রাস, হাইপারটেনসিভ নিউরোপ্যাথি, গ্লুকোমা ইত্যাদি রোগের চিকিৎসা করা হয়।

এখানে চিকিৎসার জন্য চোখের ইসিজি, এক্সরে এবং আল্ট্রাসনোগ্রামসহ অন্যান্য পরীক্ষা করা হয়। এক্সরে করতে 300 টাকা, আল্ট্রাসনোগ্রামের দাম 500 টাকা এবং ইসিজির খরচ 200 টাকা।

এখানে চোখের বিভিন্ন অপারেশন করা হয়। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল লেন্স দিয়ে ছানি সার্জারি, ফেকো, গ্লুকোমা, কনজাংটিভাইটিস, ছানি এবং বাঁকা চোখ সোজা করা ইত্যাদি। লেন্স দিয়ে ছানি সার্জারির খরচ 4,000 টাকা, ফেকো সার্জারির খরচ 7,500 টাকা, গ্লুকোমা সার্জারির খরচ 3,500 টাকা এবং 800 টাকা খরচ হয়। 6,000 টাকা।

 অপটিক শপ

এর নিজস্ব চশমার দোকান আছে। দোকানে দেশিবিদেশি চশমা, চশমা চশমা এবং ফ্রেম বিক্রি হয়। রোগের বর্ণনা অনুযায়ী এখানে চশমা বিক্রি হয়। দরিদ্র অসহায় রোগীদের কাছে সস্তায় চশমা বিক্রি করা হয়। অপটিক শপ সকাল ৮টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত খোলা থাকে। রবিবার বন্ধ থাকে।

হাসপাতাল ফার্মেসী

1996 সালে, হাসপাতালটি নিজস্ব ফার্মেসি খোলে। এখানে বিভিন্ন ধরনের দেশিবিদেশি চোখের ওষুধ বিক্রি হয়। দরিদ্র অসহায় রোগীদের কাছে সস্তায় ওষুধ বিক্রি করা হয়। ফার্মেসি সকাল ৮টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত খোলা থাকে। রবিবার বন্ধ থাকে।

রোগী ভর্তি

হাসপাতালের নিচতলায় সার্চ ডেস্ক রয়েছে। এখানে আপনাকে 40 টাকায় ফরম কিনতে হবে। রোগ রোগীর প্রয়োজনীয় তথ্য উপস্থাপন করে ফর্ম জমা দিতে হবে। প্রয়োজনে সার্চ ডেস্কে যোগাযোগ করুন। যোগাযোগের নম্বর: 9131990

অ্যাম্বুলেন্স সুবিধা

নিজস্ব ২টি অ্যাম্বুলেন্স আছে। অ্যাম্বুলেন্স ভাড়া দূরত্ব এবং সময় দ্বারা নির্ধারিত হয়।

খোলাবন্ধ সময়সূচী

হাসপাতালটি 24 ঘন্টা খোলা থাকে। রবিবার বন্ধ।

গাড়ি পার্কিং ব্যবস্থা

হাসপাতালের নিজস্ব গাড়ি পার্কিংয়ের জায়গা রয়েছে। এখানে 40টি গাড়ি পার্ক করা যায়। একটি গাড়ি পার্ক করার জন্য আপনাকে গাড়ি প্রতি 10 (1 ঘন্টা) চার্জ দিতে হবে।

নিরাপত্তা ব্যবস্থা

এর নিজস্ব নিরাপত্তাকর্মী রয়েছে। আগুন নেভানোর জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা রয়েছে।

ফজিলাতুন্নেছা মুজিব চক্ষু হাসপাতাল

গোপালগঞ্জের বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব চক্ষু হাসপাতাল প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট দক্ষিণ দক্ষিণপশ্চিমাঞ্চলের জেলায় বিনামূল্যে চোখের চিকিৎসা দিচ্ছে,এই আন্তর্জাতিক মানের চক্ষু হাসপাতালটি ডিসেম্বর 2015 সালে গোপালগঞ্জে চিকিৎসা সেবা শুরু করে।

মাদারীপুর, পিরোজপুর, বাগেরহাট, নড়াইল, বরিশাল, খুলনা, ফরিদপুর, সাতক্ষীরা, রাজবাড়ী, শরীয়তপুর, মাগুরা, ঝিনাইদহ, কুষ্টিয়া, যশোর, ঝালকাঠি, বরগুন, পটুয়াখালী, ভোলা, মেহেরপুর, চুয়াডাং থেকে দক্ষিণ দক্ষিণপশ্চিমাঞ্চলের চুইড়া হাসপাতাল পর্যন্ত।

কর্তৃপক্ষের মতে, সাইট সেভারস, অরবিচ, অরবিন্দ আই কেয়ার ইনস্টিটিউট অফ ইন্ডিয়া, পিকেএসএফ এবং রিকএর সহযোগিতায় এখানে বিনামূল্যে চক্ষু পরীক্ষা, প্রয়োজনীয় ওষুধ, কাউন্সেলিং সহ ধনীগরীব সকল প্রকার সেবা বিনামূল্যে প্রদান করা হচ্ছে। অপারেশন এবং লেন্স ফিটিং।

প্রতিষ্ঠানে দক্ষিণপশ্চিমাঞ্চলের ২১টি জেলার রোগীরা এসে সব ধরনের চক্ষুসেবা নিয়ে থাকেন। ছানি এবং কনজেক্টিভাইটিস বিনামূল্যে অপারেশন করা হয়। এছাড়া গোপালগঞ্জ জেলার প্রত্যন্ত এলাকায় ক্যাম্প স্থাপন করে রোগী বাছাই করা হয়। তাদের এই হাসপাতালে বিনামূল্যে চোখের রোগের চিকিৎসা অপারেশন করা হয়। এতে এই অঞ্চলে ছানিজনিত অন্ধত্ব অনেকটাই কমে গেছে।

pp

তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক লেখালিখি করি। এর আগে বিভিন্ন পোর্টালের সাথে যুক্ত থাকলেও, SS IT BARI-আমার হাতেখড়ি। তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক বিশ্লেষণ বাংলায় জানতে ভিজিট করুন http://ssitbari.com

Leave a Reply

Your email address will not be published.