শীতে ভ্রমণের জন্য সেরা কয়েকটি স্থান-2022 I বাংলাদেশ ভ্রমণ

সবুজের চাঁদরে মোড়ানো আমাদের এই বাংলাদেশ। প্রকৃতি তার সৌন্দর্য ঢেলে দিয়েছে এদেশে। অদ্ভুত এই প্রকৃতি যেন সৌন্দর্য হারাতে ডাকছে সবাইকে।

 Related Post:সকল সিমের নাম্বার দেখার কোড -২০২২

শীতে ভ্রমণের জন্য সেরা কয়েকটি স্থান-2022 I বাংলাদেশ ভ্রমণ

বাংলাদেশ ভ্রমণ

আমরা কি এই ডাক প্রত্যাখ্যান করতে পারি? তাই প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে ছুটছেন যাত্রীরা। এই শীতে চাইলে ঘুরে আসতে পারেন দেশের কিছু দর্শনীয় স্থান-

ঠিক আজকে আমি আপনাদেরকে জানাবো বাংলাদেশের কিছু ঐতিহ্যবাহী জায়গা, যেগুলোতে আপনি শীতের সময় আপনি আপনার পরিবার আপনার বন্ধু-বান্ধব অথবা আপনি নিজে, আপনি চাইলে এই জায়গা গুলি আপনার জন্য হয়তোবা পারফেক্ট মনে হবে ।চলুন তাহলে জেনে নিন….

শ্রীমঙ্গল I বাংলাদেশ ভ্রমণ

চায়ের জন্য বিখ্যাত শ্রীমঙ্গলকে বলা হয় চায়ের রাজধানী। চা বাগানের সবুজ যেন সারা জেলায় ছড়িয়ে পড়েছে। চা বাগানের বাংলো, রিসোর্টে বসে কুয়াশাচ্ছন্ন সকাল উপভোগ করতে পারেন।

এক কাপ চায়ের সাথে এটি আরও উত্তেজনাপূর্ণ হয়ে উঠবে। এছাড়া শ্রীমঙ্গলের বাইক্কর বিল অতিথি পাখির অভয়ারণ্য। আপনি যদি শীতের সকালে বিলে যান, বাইকার বিল আপনাকে নিরাশ করবে না।

এছাড়াও আপনি লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যান পরিদর্শন করতে পারেন। প্রখ্যাত কবি, লেখক হুমায়ূন আহমেদের ‘আমার আছে পানি’ ছবির শুটিংও এখানে হয়েছে।

লাউয়াছড়া উদ্যান পরিদর্শন করার পর, আপনি শ্বাসরুদ্ধকর মাধবপুর লেক, আদি নীলকন্ঠ চা কেবিন (সাতরং এর চায়ের জন্য বিখ্যাত), সীতেশ বাবু চিড়িয়াখানা, চা জাদুঘর পরিদর্শন করতে পারেন।

শীতে ভ্রমণের জন্য সেরা কয়েকটি স্থান-2022 I বাংলাদেশ ভ্রমণ

পঞ্চগড় I বাংলাদেশ ভ্রমণ

পঞ্চগড় বাংলাদেশের হিমালয়ের একটি জেলা। হিমালয়ের পাদদেশে ভৌগোলিক অবস্থানের কারণে পঞ্চগড়কে হিমালয়ের কন্যা বলা হয়। কাঞ্চনজঙ্ঘা পৃথিবীর তৃতীয় বৃহত্তম পর্বত। প্রতি শীতে বাংলাদেশ থেকে এই পাহাড় দেখা যায়।

পঞ্চগড় ও তেতুলিয়া থেকে কাঞ্চনজঙ্ঘা স্পষ্ট দেখা যায়। অক্টোবরের মাঝামাঝি থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত পাহাড় মিলিত হয়। শীতের আকাশ মেঘহীন এবং পরিষ্কার হওয়ায় তুষারময় সাদা হিমালয় এবং কাঞ্চনজঙ্ঘা ভেসে ওঠে।

বিশ্বের তৃতীয় বৃহত্তম পাহাড়টি তেঁতুলিয়া উপজেলার অফিসিয়াল পোস্ট বাংলো চত্বর বা জিরো পয়েন্ট থেকে দেখা যায়। দার্জিলিংয়ের সবুজ পাহাড়ও স্পষ্ট দেখা যাচ্ছে।

পঞ্চগড় আগ্রহের জায়গা

 মির্জাপুর শাহী মসজিদ রাজধানী ঢাকা থেকে সরাসরি আটোয়ারী উপজেলা বাসস্ট্যান্ডে ডে/নাইট কোচ সংযোজন। আটোয়ারী থেকে বাসে মির্জাপুর ৬ কিমি। রিকশা/ভ্যানে মির্জাপুর থেকে ১ কিমি পূর্বে মির্জাপুর শাহী মসজিদ। রাজধানী ঢাকার কমলাপুর রেলস্টেশন থেকে সরাসরি দিনাজপুর স্টেশন। দিনাজপুর থেকে কিসমত (আটোয়ারী) রেলওয়ে স্টেশন থেকে বাস/রিক্সা/ভ্যানে আটোয়ারী উপজেলায় ৬ কিমি। আটোয়ারী থেকে বাসে মির্জাপুর ৬ কিমি। রিকশা/ভ্যানে মির্জাপুর থেকে ১ কিমি পূর্বে মির্জাপুর শাহী মসজিদ।

মহারাজার দিঘী– পঞ্চগড় কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল থেকে তেঁতুলিয়া পর্যন্ত বাসে বোর্ড অফিস নামক স্থানে গিয়ে রিকশা/ভ্যান যোগ করুন ০৫ কিমি পূর্বে।

রকস্ মিউজিয়ামপঞ্চগড় কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল থেকে রিকশায় পঞ্চগড় সরকারি মহিলা কলেজ। রকস জাদুঘরটি পঞ্চগড় সরকারি মহিলা কলেজে অবস্থিত।

ভিতরগড় দুর্গনগরী পঞ্চগড় কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল থেকে তেঁতুলিয়া পর্যন্ত বাসে বোর্ড অফিস নামক স্থানে গিয়ে রিকশা/ভ্যান যোগ করুন ০৫ কিমি পূর্বে।

বাংলাবান্ধা জিরো পয়েন্ট পঞ্চগড় থেকে পঞ্চগড় পাবলিক ট্রান্সপোর্টে ঢাকা থেকে পঞ্চগড় বাসে প্রাইভেট বা মাইক্রো 55 কে. জনাব দূরত্ব পেরিয়ে বাংলাবান্ধা যাওয়ার পর এই জিরো পয়েন্টে যাওয়া যায়।

ভিতরগড় পঞ্চগড় সদর উপজেলা থেকে 15 কিলোমিটার যাওয়ার পর এই ভিতরগড়টি অমরখানা ইউনিয়নে অবস্থিত। ভিতরগড় ভারতীয় সীমান্ত সংলগ্ন।

মিরগড়, পঞ্চগড় এর এশিয়ান হাইওয়ে, গোলকধাম মন্দি, তেঁতুলিয়া ডাকবাংলো,           বারো আউলিয়ার মাজার, আটোয়ারী, পঞ্চগড়

 

শীতে ভ্রমণের জন্য সেরা কয়েকটি স্থান-2022 I বাংলাদেশ ভ্রমণমারায়ন তং I বাংলাদেশ ভ্রমণ

মারায়ণ তুং বান্দরবান জেলার আলীকদম থানার মিরিঞ্জা রেঞ্জের একটি পাহাড়। এই পাহাড়ে ত্রিপুরা, মারমা, মুরাংসহ বেশ কিছু ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর বসবাস। মারয়ান টাং এর চূড়া পৃথিবীর পৃষ্ঠ থেকে 1840 ফুট উপরে অবস্থিত।

শীতের এই সময়ে পাহাড়ের চূড়া সাদা মেঘে ঢেকে যায়। আপনার মনে হবে আপনি সাদা মেঘের মাটিতে দাঁড়িয়ে আছেন। তাই আপনি চাইলে এই শীতে ফিরে আসতে পারেন।

মেঘ দেখতে আমরা দার্জিলিং, শিলং বা সাজেকে যাই, দেশের একটি ওভাররেটেড জায়গা; কিন্তু কে জানত, দেশে এমন একটা জায়গা আছে যেখানে সত্যিকারের মেঘ এসে সবসময় ভিজে যায়, চারিদিক ঝাপসা হয়ে যায়! পাহাড়ে যে মেঘ তৈরি হয় তা দেখতে নদী বা জলাশয়ের মতো। যেন ডুবে গেলেন!

Related Post:তাহাজ্জুদ নামাজের ফজিলত ও গুরুত্ব

যাওয়া থাকা

ঢাকা থেকে সরাসরি বাস রুট আলীকদম। বিভিন্ন কোম্পানির বিভিন্ন ধরনের বাস রয়েছে। ভাড়া 750 টাকা থেকে শুরু। ঢাকা থেকে রাত ১০টার মধ্যে বাস ছাড়ে এবং সকালে পৌঁছায়। আলীকদম আবাসিক সড়কের মাথায় নামতে হবে। এখান থেকেই যাত্রা শুরু।

সেখান থেকে কাউকে জিজ্ঞেস করলেই তুঙ্গে যাওয়ার পথ দেখাবে ম্যারায়ন। সেখান থেকে ম্যারায়ন টং পাহাড়ের চূড়ায় পৌঁছাতে প্রায় ঘণ্টা সময় লাগবে। যাইহোক, কিছু মানুষের আরও সময় লাগতে পারে।

মূলত সবাই মারায়ন তুং পাহাড়ে ক্যাম্পিং করে। তাই সেটা মাথায় রেখে পরিকল্পনা করাই ভালো। তবে আলীকদমে থাকার প্রয়োজন হলে উপজেলা সড়কের দামতুয়া ইন হোটেল বা জেলা পরিষদ ডাক বাংলোতে থাকতে পারেন। পানীয় বাজারে একটি সাধারণ মান বোর্ডিং আছে.

পরামর্শ সতর্কতা

পাহাড়ে যাওয়ার সময় পর্যাপ্ত পানি, স্যালাইন, গ্লুকোজ, শুকনো খাবার, প্রাথমিক চিকিৎসার কিট এবং প্রয়োজনীয় ওষুধ সঙ্গে রাখুন। ক্যাম্পিংয়ে যেতে চাইলে একা না গিয়ে অন্তত চারপাঁচজন যাওয়াই ভালো। ক্যাম্পিং করার জন্য একটি তাঁবু, রান্নার পাত্র এবং উপকরণ নিতে ভুলবেন না।

ট্রেকিং এর জন্য ট্রেকিং বুট ব্যবহার করুন। আপনি চাইলে প্লাস্টিক বা রাবারের স্যান্ডেল ব্যবহার করতে পারেন। অনুমতি ছাড়া আদিবাসীদের ছবি তুলবেন না। দেশীয় সংস্কৃতির প্রতি সম্মান দেখান। পরিবেশ জীববৈচিত্র্যের ক্ষতি হয় এমন কিছু করবেন না।

শীতে ভ্রমণের জন্য সেরা কয়েকটি স্থান-2022 I বাংলাদেশ ভ্রমণনাফাখুম I বাংলাদেশ ভ্রমণ

নাফাখুম বাংলাদেশের বিখ্যাত নায়াগ্রা জলপ্রপাত। বর্ষায় এটি ভয়ানক হলেও শীতকালে এটি অনেক শান্ত হয়ে যায়। নাফাখুম তাই অ্যাডভেঞ্চারপ্রেমী ভ্রমণপিপাসুদের পছন্দের নাম।

এই জলপ্রপাত দেখতে আপনাকে যেতে হবে বান্দরবান জেলার থানচি উপজেলায়। যদিও আপনাকে অতি দুর্গম পথ অতিক্রম করতে হবে। কিন্তু এর সৌন্দর্য আপনাকে নিরাশ করবে না। নাফাখুম দেখতে গেলে দেবতাখুমের দিকেও ঘুরে আসতে পারেন।

শীতে ভ্রমণের জন্য সেরা কয়েকটি স্থান-2022 I বাংলাদেশ ভ্রমণচর কুকরি মুকরি I বাংলাদেশ ভ্রমণ

কুকরি মুকরি ভোলা জেলার সর্বদক্ষিণে অবস্থিত একটি দ্বীপ। বৃষ্টিতে তলিয়ে গেলেও শীতে ভেসে যায়। দ্বীপটি বাংলাদেশের অন্যতম সংরক্ষিত বন এবং একটি বৃহৎ বন্যপ্রাণী অভয়ারণ্য

অজস্র নাম না জানা গাছ আর সারি সারি নারকেল গাছের বিশাল বালুকাময় চর দেখলে মনে হবে সৈকতে দাঁড়িয়ে আছেন। আপনি চাইলে দ্বীপে ক্যাম্প করে রাত কাটাতে পারেন।

সেন্টমার্টিন I বাংলাদেশ ভ্রমণ

সেন্টমার্টিন বাংলাদেশের সর্বদক্ষিণে বঙ্গোপসাগরের উত্তরপূর্বে অবস্থিত একটি প্রবাল দ্বীপ। প্রচুর নারকেল থাকায় স্থানীয়রা একে নারকেল আদা বলে। সমুদ্রের নীল জলের সাথে নীল আকাশের মিশেলে সারি সারি নারকেল গাছ এই দ্বীপকে করেছে অনন্য।

শীতকালে সমুদ্র শান্ত থাকায় এই সময়টি ভ্রমণের জন্য উপযোগী। আপনি নভেম্বর থেকে মার্চ পর্যন্ত পাঁচ মাসের জন্য সেন্ট মার্টিনে জাহাজে যেতে পারেন। পথে দেখা হবে গাঙচিল।

কুতুবদিয়া দ্বীপ I বাংলাদেশ ভ্রমণ

কুতুবদিয়া কক্সবাজার জেলার একটি দ্বীপ। চতুর্দশ শতাব্দীর শেষ দিকে সমুদ্রের মাঝখানে কুতুবদিয়া জেগে ওঠে। এই দ্বীপে গেলে দেখতে পাবেন বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় বায়ু বিদ্যুৎ কেন্দ্র। ছাড়া কুতুবদিয়া চ্যানেল, কুতুব আউলিয়া দরবার, বাতিঘর, লবণ চাষ সমুদ্র সৈকত ঘুরে আসতে পারেন।

শীতে ভ্রমণের জন্য সেরা কয়েকটি স্থান-2022 I বাংলাদেশ ভ্রমণসুন্দরবন I বাংলাদেশ ভ্রমণ

সুন্দরবন পৃথিবীর একক বৃহত্তম ম্যানগ্রোভ বন। জীববৈচিত্র্যসমৃদ্ধ সুন্দরবন 1,84 বর্গ কিমি এলাকা জুড়ে রয়েছে এবং নদী, বিল এবং রয়েল বেঙ্গল টাইগার সহ মুরগি, হরিণ, কুমির এবং সাপ সহ বিভিন্ন প্রজাতির পাখির আবাসস্থল।

350 প্রজাতির উদ্ভিদ, 120 প্রজাতির মাছ, 260 প্রজাতির পাখি, 42 প্রজাতির স্তন্যপায়ী, 35 প্রজাতির সরীসৃপ এবং 6 টি উভচর প্রাণী রয়েছে। সুন্দরী গাছের নামানুসারে সুন্দরবনের নামকরণ করা হয়েছে।

শীতকাল সুন্দরবন ভ্রমণের জন্য উপযুক্ত সময়। সুন্দরবনে গেলে দেখতে পাবেন জামতলা সমুদ্র সৈকত, মান্দারবাড়িয়া সৈকত, হিরণ পয়েন্ট, কটকা সমুদ্র সৈকত দুবলার চর।

pp

SS IT BARI-ভালোবাসার টেক ব্লগ টিম

২০ comments

  1. Unknown Reply

    ভ্রমণ সবারই খুব পছন্দের হয়।ভ্রমণ স্হান চিহ্নিত করা ও একটা গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। পোস্ট টা পড়ে উপকৃত হলাম।

  2. Unknown Reply

    আমি ভ্রমণ অনেক পছন্দ করি। ভ্রমনের জায়গা সম্পর্কে কিছু জানতে পারলাম ধন্যবাদ।।

Leave a Reply

Your email address will not be published.