অনলাইন থেকে আনলিমিটেড টাকা ইনকাম করার সহজ উপায়

আপনি কি অনলাইন থেকে আনলিমিটেড টাকা আয় করতে চাচ্ছেন? কিন্তু কোন সহজ মাধ্যম খুঁজে পাচ্ছেন না? তাহলে আজকের এই পোস্টটি সম্পূর্ণ আপনার জন্য।আজকের পোস্টে আমি আপনাদেরকে একদম প্রমাণসহ অনলাইন থেকে আনলিমিটেড টাকা ইনকাম করার সহজ উপায় গুলি জানাবো। তবে আপনি যদি পোস্টটি পুরোপুরি না পড়েই আপনি ভ্রান্ত ধারণা বা সঠিক গাইডলাইন না বুঝে আপনি কাজ করেন?তাহলে কিন্তু অনলাইন থেকে আনলিমিটেড টাকা ইনকাম করতে পারবেন।অনলাইন থেকে আনলিমিটেড টাকা ইনকাম করার সহজ উপায়

অনলাইন থেকে টাকা ইনকাম

অনলাইন থেকে টাকা আয় করা এখন কিন্তু পানির মতো সহজ ।তবে আপনাকে সঠিক মাধ্যম সঠিক গাইডলাইন গুলি মেনে কাজ করতে হবে। অনেকে আপনাকে বলবে যে অনলাইন থেকে লক্ষ লক্ষ হাজার হাজার টাকা আয় আমি করছি অনেকেরই সকল ভিডিও এই সকল লেখা আপনি সবসময় দেখবেন কিন্তু আপনি নিজে করতে পারবেন না।

কারণ আপনি সঠিক সহজ মাধ্যম গুলি এখনো খুঁজে পান নাই বা আপনার ধৈর্য সেগুলি নিয়ে এগোচ্ছেনা।তাই আপনার জন্য অনলাইন থেকে আনলিমিটেড টাকা ইনকাম করার সহজ মাধ্যম গুলি সম্পর্কে এ টু জেড আমি জানাবো।

অনলাইন থেকে টাকা আয় করতে কি দরকার?

  • অনলাইন থেকে আনলিমিটেড টাকা ইনকাম করার জন্য আপনার সহজ একটি মাধ্যম দরকার।
  • অনলাইন থেকে টাকা আয় করার জন্য একটি কম্পিউটার অথবা মোবাইল ডিভাইস দরকার।
  • অনলাইন থেকে টাকা আয় করার জন্য আপনার ইন্টারনেট সংযোগ দরকার।
  • অনলাইন থেকে টাকা আয় করার জন্য আপনার প্রতিদিন ধারাবাহিকভাবে দুই থেকে চার ঘন্টা ইন্টারনেটে সময় কাটানোর মতো সময় আপনার দরকার।
  • অনলাইন থেকে টাকা আয় করার জন্য সবচাইতে বড় যে জিনিসটি দরকার? তা হচ্ছে আপনার ইচ্ছে এবং ধৈর্য।

অনলাইন থেকে আনলিমিটেড টাকা ইনকাম করা সহজ উপায়

তো চলুন এখন আমরা অনলাইন থেকে আনলিমিটেড টাকা ইনকাম করা সহজ উপায় গুলি জেনে নিই

বর্তমানে অনলাইন থেকে আনলিমিটেড টাকা ইনকাম করার অসংখ্য মাধ্যম রয়েছে। কিন্তু এই অনলাইন থেকে আনলিমিটেড টাকা ইনকাম করার সহজ উপায় কিন্তু খুবই কম। তাই আপনাকে অনলাইন থেকে সহজ উপায় টাকা আয় করতে সঠিক গাইডলাইন টি অবশ্যই দরকার। আমি নিচে আপনাদেরকে নিজের ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতা থেকে যে সকল মাধ্যম থেকে অনলাইনে সহজে টাকা উপার্জন করা যায়। শুধুমাত্র সেই সকল মাধ্যমগুলি আমি আলোচনা করছি।

ইউটিউবিং করে টাকা ইনকাম

আপনি যদি সহজ মাধ্যমগুলির কথা বলে থাকেন যে অনলাইন থেকে আনলিমিটেড টাকা ইনকাম করার সহজ উপায় কোনটি এর মধ্যে সর্বপ্রথম চলে আসবে আপনার ইউটিউবিং করে টাকা ইনকাম।

দেখুন ইউটিউব কথাটি শুনলেই কিন্তু আপনি পিছিয়ে যাবেন। কিন্তু না আপনি কিন্তু বর্তমানে সবচাইতে সহজ এবং জনপ্রিয় ইউটিউবিং করে টাকা ইনকাম করার প্ল্যাটফর্ম সম্পর্কে জানতে চাচ্ছেন। তাই একটু ধৈর্য ধরে পড়াগুলো পড়ে দেখুন।

  • ইউটিউবিং করে টাকা ইনকাম করতে হলে আপনার কিন্তু স্মার্ট মোবাইল ফোন দিয়েও সম্ভব প্রথমে আপনি আপনার স্মার্ট মোবাইল ফোন অথবা কম্পিউটার ডিভাইসে একটি ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করে নিবেন।
  • এরপরে ইউটিউব চ্যানেলটিকে আয় করার জন্য কাস্টমাইজেশন করে নিবেন।
  • সুন্দর ভাবে ইউটিউব চ্যানেলটি সাজিয়ে গুছিয়ে নিবেন। মনে রাখবেন এই ইউটিউব চ্যানেলটি আপনার একটি দোকান প্রতিষ্ঠানের মত। এখান থেকে আপনার আয় হবে অতএব এই দোকান প্রতিষ্ঠানটি অবশ্যই সুন্দর এবং গোছানো হওয়া দরকার।
  • এরপরে আপনার হাতে থাকা স্মার্ট মোবাইল ফোন দিয়ে যেকোনো ধরনের ভিডিও আপনি তৈরি করবেন উদাহরণস্বরূপ কয়েকটি মাধ্যম বলছি –

১.ফুলবাগানে গিয়ে ফুলের ভিডিও তৈরি করে সেখানে সাউন্ড যুক্ত করে ভিডিও তৈরি করতে পারবেন

২)ফেসলেস বিভিন্ন ধরনের আপনি মেসেজ ভিডিও তৈরি করতে পারবেন।

৩.এছাড়াও মোবাইল ফোন অথবা কম্পিউটারের স্ক্রিন রেকর্ডার দিয়ে আপনি ভিডিও তৈরি করতে পারবেন।

৪.বিভিন্ন ধরনের রাস্তাঘাটে ঘরটা ফানি মোমেন্ট গুলোকে ভিডিও করে ফানি ভিডিও তৈরি করতে পারবেন।

৫.এছাড়াও আপনার নিজের মধ্যে থাকা যেকোনো ধরনের প্রতিভাকে আপনি ভিডিও করে ভিডিও তৈরি করতে পারবেন।

উপরের এই সকল প্ল্যানিং মাধ্যম ছাড়াও অসংখ্য ধরনের ভিডিও তৈরি করার আইডিয়া আপনার নিজের কাছে কিন্তু রয়েছে। শুধু একটু সময় মাথা কাটান প্ল্যান করুন যে আপনার মধ্যে কি প্রতিভা রয়েছে সেই প্রতিভারটি আপনি ইউটিউবে ভিডিওর মাধ্যমে সরিয়ে দিন।

ইউটিউবিং করে কবে থেকে টাকা আয় হবে?

ইউটিউব থেকে ইউটিউবের কন্ডিশন ফিলআপ করলেই আপনি আজকে থেকে টাকা আয় করতে পারবেন। ইউটিউবের কন্ডিশন গুলি হচ্ছে-

১)ইউটিউব চ্যানেলে ১ হাজার সাবস্ক্রাইবার হতে হবে।

২.চার হাজার মিনিট ওয়াচ টাইম আপনার ভিডিওতে হতে হবে এছাড়াও আপনি  ছোট ছোট শট ভিডিওর যেকোনো একটি 10 মিলিয়ন ভিউ হলে আপনি মনিটাইজেশনের জন্য ইউটিউব এর কাছে আবেদন করতে পারবেন।

উপরের এই সকল শর্ত যখনই ফিলাপ হয়ে যাবে তারপরের দিন থেকে আপনি ইউটিউব থেকে টাকা আয় করতে পারবেন।

এছাড়াও একদম শূন্য থেকে আপনি ইউটিউবে টাকা আয় করা সম্পর্কিত আরো বিস্তারিত ভিডিও পেতে ভিজিট করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেলটি –ইউটিউবিং শূন্য থেকে শুরু

ব্লগ ওয়েবসাইট তৈরি করে অনলাইন থেকে আয়

অনলাইন থেকে ইনকাম করার যতগুলি মাধ্যম রয়েছে তার মধ্যে সহজ মাধ্যমগুলির মধ্যে এটিও একটি উন্নতম। আপনি চাইলে ব্লোগ ওয়েবসাইট তৈরি করে লেখালেখি করে সেখান থেকে আপনি অনলাইনে আয় করতে পারবেন।

ব্লগ ওয়েবসাইট কি?

একদম বাংলা ভাষায় বললে আপনি এখন যে পোস্টটি পড়ছেন এটি একটি ব্লগ ওয়েবসাইট পোস্ট। আরো বিস্তারিত জানতে এই পোস্টে থাকা যে ওয়েবসাইট রয়েছে সে ওয়েবসাইটটি আপনি ওপেন করুন। ওয়েবসাইটটি ঘুরে দেখে আসুন ওয়েবসাইটটি সম্পর্কে জেনে নিন ওয়েবসাইটটির ডিজাইন থেকে শুরু করে সবকিছু। তাহলে আপনার আইডিয়া চলে আসবে যে ব্লগ ওয়েবসাইট আসলে কি।

আশা করছি ব্লগার ওয়েবসাইট সম্পর্কে আপনি সম্পূর্ণ ধারণা না পেলেও ফিফটি পার্সেন্ট ধারণ আপনি পেয়ে গিয়েছেন।

ব্লগ ওয়েবসাইট কিভাবে তৈরি করব?

ব্লগ ওয়েবসাইট আপনি একদম ফ্রিতে www.blogger.com , এই ওয়েবসাইটে যেয়ে আপনি ব্লগ সম্পূর্ণভাবে তৈরি করতে পারবেন।

ব্লগ ওয়েবসাইট তৈরি করতে কি লাগে?

  • হাতে থাকা স্মার্ট মোবাইল ফোন অথবা কম্পিউটার ডিভাইস।
  • ব্লগার একটি পেইড অথবা ফ্রী টেমপ্লেট।
  • উপরের এই সকল নিয়ম অনুসরণ করে আপনি একটি ব্লগ ওয়েবসাইট তৈরি করে নিন।
  • এরপর সেই ব্লগ ওয়েবসাইটে আপনি সুন্দর একটি নিস বা টপিক কে বাছাই করুন।
  • এরপর সেই টপিকের উপরে কিওয়ার্ড রিচার্জ করুন। সেই সকল কিওয়ার্ড দিয়ে আপনি প্রতিদিন একটি করে আপনার ব্লগ ওয়েবসাইটে পোস্ট লিখুন।
  • এরপর আপনার ব্লগ ওয়েবসাইটে যখন ২০+ পোস্ট হয়ে যাবে তখন আপনার ব্লগ ওয়েবসাইটটি মনিটাইজেশন এর জন্য আবেদন করুন।
  • মনিটাইজেশন পেয়ে গেলি সেই দিন থেকে আপনার ওয়েবসাইটে google এডস শো করবে। এবং সেই গুগল এডস এর রেভিনিউ আপনার একাউন্টে জমা হবে। এবং আপনি আনলিমিটেড অনলাইন থেকে সেই দিন থেকে টাকা আয় করতে পারবেন।

আশা করছি সম্পূর্ণভাবে আপনারা বিষয়টি বুঝতে পেরেছেন এই নিয়ম অনুসরণ করে সহজ মাধ্যম হচ্ছে অনলাইন থেকে আনলিমিটেড টাকা আয় করার এই ব্লগিং ওয়েবসাইট তৈরি করে লাখ লাখ টাকা আপনারা ঘরে বসে আয় করুন।

এছাড়াও ব্লগিং আপনি শূন্য থেকে কিভাবে শুরু করবেন সে বিষয়ে জানতে আমাদের ইউটিউব চ্যানেলটি ভিজিট করুন –ব্লগিং শূন্য থেকে শুরু

ফেসবুকিং করে অনলাইন থেকে টাকা আয়

অনলাইন থেকে আনলিমিটেড টাকা আয় করার সহজ উপায় গুলির মধ্যে এটিও আরেকটি উন্নতম মাধ্যম ।

বর্তমানে যতগুলি সোশ্যাল মিডিয়া রয়েছে তার মধ্যে সবচাইতে উন্নতম মাধ্যম হচ্ছে এই ফেসবুকে। আর এই ফেসবুক থেকে আপনি যদি আনলিমিটেড টাকা আয় করতে চান তাহলে কিন্তু খুব সহজেই আপনি হাতে থাকা শুধুমাত্র মোবাইল ফোন দিয়েও পারবেন তবে প্রফেশনালি আপনি ফেসবুক থেকে টাকা আয় করার জন্য অবশ্যই কম্পিউটার ডিভাইসের পরবর্তীতে প্রয়োজন পড়বে।

গেম খেলে টাকা আয় পেমেন্ট বিকাশে –নগদে -রকেটে

ফেসবুকের জনপ্রিয়তা বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে ফেসবুক থেকে আয়ের বিভিন্ন মাধ্যম ও তারা চালু করে রেখেছে। আপনি যদি ফেসবুকের এই সকল আয়ের মাধ্যমে যেকোনো একটি মাধ্যম আপনি চালু করে নিতে পারেন তাহলে আর পিছন ফিরে কখনো তাকাতে হবে না। তাই আপনি ফেসবুকিং করে লক্ষ লক্ষ টাকা প্রতি মাসে আয় করতে পারবেন। তো চলুন ফেসবুক থেকে আয় করা সম্পর্কিত আরো কিছু বিষয় জেনে নি এবং কিভাবে শুরু করব সে বিষয়টিও জেনে নিন।

ফেসবুক থেকে প্রতি মাসে কত টাকা আয় হয়?

ফেসবুক থেকে আনলিমিটেড ইনকাম হয়। বর্তমানে ফেসবুক থেকে পাঁচ থেকে দশ লক্ষ টাকা ও প্রতি মাসে আয় হওয়ার রেকর্ড রয়েছে।

এছাড়াও আপনি চাইলে ১৫ থেকে ২০ হাজার টাকা ও আপনি শুরুর দিকে আয় করতে পারবেন।

ফেসবুক থেকে আয় করতে ফেসবুক আইডি অথবা ফেসবুক পেজ কোনটি ভালো?

ফেসবুক থেকে আনলিমিটেড টাকা আয় করার জন্য ফেসবুক পেজ অথবা ফেসবুক আইডি যেকোনো একটি আপনি ব্যবহার করতে পারবেন। বর্তমানে ফেসবুক আইডি এবং ফেসবুক পেজ সমান অধিকার দিয়েছে ফেসবুক কোম্পানি।

ফেসবুক থেকে আয় কিভাবে করব?

প্রথমেই ফেসবুক থেকে আয় করার জন্য আপনার একটি প্রফেশনাল ফেসবুক আইডি অথবা ফেসবুক পেজ খুলে নিতে হবে।

  • ফেসবুক পেজটি খোলা হয়ে গেলে আপনি ফেসবুক পেজটি সুন্দরভাবে কাস্টমাইজেশন করবেন। আর যদি ফেসবুক আইডি ও হয়ে থাকে তাহলেও ফেসবুক আইডিটি খোলার পর আপনি সুন্দর ভাবে কাস্টমাইজেশন করবেন।
  • এরপরে আপনার ফেসবুক আইডি অথবা ফেসবুক পেজে একটি লোক হওয়া এবং কাবার ফটো আপনি যুক্ত করবেন। অবশ্যই লক্ষ্য করবেন ফেসবুক আইডি অথবা ফেসবুক পেজে কোন ধরনের কপি ফটো বা আপনি অন্য কোন অনলাইন মাধ্যমে ব্যবহার করেছেন এই ধরনের ফটো আপনি ব্যবহার করবেন না।
  • এরপর আপনার ফেসবুক পেজে আপনি কি ধরনের কনটেন্ট অর্থাৎ ভিডিও তৈরি করবেন সেই বিষয়টি নিশ্চিত করুন। অর্থাৎ আপনার face book পেজ বা আইডিতে কি টাইপের ভিডিও থাকবে  সেটি অবশ্যই আপনাকে নিশ্চিত হতে হবে।
  • উদাহরণস্বরূপ হতে পারে -আপনি ফানি ভিডিও তৈরি করতে ভালোবাসেন ফানি ভিডিও তৈরি করুন।
  • আপনি ফেসলেস ভিডিও তৈরি করেও টাকা আয় করতে পারবেন।
  • আপনি টেক সম্পর্কিত টেকনোলজি সম্পর্কিত স্কিন রেকর্ড করেও ভিডিও তৈরি করে ফেসবুক থেকে টাকা আয় করতে পারবেন।

গুগল নিউজে SS IT BARI সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন 

এছাড়াও অসংখ্য আইডিয়া রয়েছে ভিডিও তৈরি করার এই আইডিয়াগুলির মধ্য থেকে আপনার যে  সম্পর্কে নিজের অভিজ্ঞতা রয়েছে সেই অভিজ্ঞতাটাকে ভিডিও করে ফেসবুকে আপনি পাবলিস্ট করুন।

ফেসবুকের ভিডিওগুলি ভাইরাল হতে কত সময় লাগে?

এটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি প্রশ্ন। আপনার যেকোনো ব্যক্তিগত এমন একটি অভিজ্ঞতা রয়েছে যেই অভিজ্ঞতাটি এখনো পর্যন্ত ফেসবুকে কেউ শেয়ার করেনি। আপনি হয়তো বা সংকোস বোধ করছেন যে এই ধরনের ভিডিও কে আসলেই পাবলিক দেখবে। আমি ব্যক্তিগতভাবে বলবো এবং ফেসবুকের কন্ডিশন অনুযায়ী বলবো 100% আপনার এই ভিডিওগুলি দেখবে।

শুরুতে আপনার ভিডিওগুলি কেউ দেখবে না। তাহলে কি আমার ভিডিও ভাইরাল হবে না?

হ্যাঁ অবশ্যই আপনার ভিডিওগুলি ভাইরাল হবে এবং লক্ষ লক্ষ মানুষ আপনার এই প্রতিভার ভিডিওগুলি দেখবে।

এজন্য আপনার ভিডিও ভাইরাল করতে যে কাজটি করতে হবে তা হচ্ছে প্রতিদিন ধারাবাহিকতা ঠিক রেখে। কোনটি নিউ একমাস পর্যন্ত প্রতিনিয়ত ভিডিও দিয়ে যান। আপনি নিজেও চিন্তা করতে পারবেন না দশ দিনের পর থেকে আপনি রেজাল্টগুলি দেখতে পাবেন।

ফেসবুকে কি কি মাধ্যমে বর্তমানে হয় হচ্ছে?

১.অ্যাডস অন রিলস ভিডিও -ads on reels  এটা আবার কি? এটি হচ্ছে বর্তমানে ফেসবুকের নতুন একটি টুলস  যারা মাত্র এক মিনিটের মধ্যে ভিডিও তৈরি করতে ভালোবাসে অর্থাৎ শর্ট ভিডিও তারা চাইলে এই অ্যাডস অন রিলস মনিটাইজেশন টুলস টিউবল করে হাজার হাজার টাকা আয় করতে পারবে।

২.in stream ads- ই টুলস এর মাধ্যমে বড় বড় ভিডিও তৈরি করে। আপনি মনিটাইজেশন অন করে হাজার হাজার টাকা আয় করতে পারবেন।

৩.Live Video Ads- অনেকে রয়েছে লাইভে ভিডিও করতে ভালোবাসে খেলা দেখাতে বা নিজে খেলতে বাগান গাইতে এই টাইপের  তারা কিন্তু এই মনিটাইজেশন টোস্ট ইন আবাল করে হাজার হাজার টাকা আয় করতে পারবে।

৪.star – স্টার মনিটাইজেশন এটি ইনাবল করেও আপনাকে বিভিন্ন টিপস পেয়ে এখান থেকে আয় করতে পারবো।

উপরের এই সকল মাধ্যমের যেকোনো একটি আপনি ফেসবুকে শর্ত পূরণ করলেই আপনি ফেসবুক থেকে টাকা আয় করতে পারবেন।

তাহলে দেরী কেন ফেসবুকিং শূন্য থেকে শুরু করে দিন এখনি।ফেসবুকিং কিভাবে করবেন সে সম্পর্কে ভিডিও পেতে আমাদের ইউটিউব চ্যানেলটি ভিজিট করুন -https://www.youtube.com/playlist?list=PLBevP7Rixya4w2bHy4adxQfeHAaeXcTGY

মাইক্রো জব ওয়েবসাইট থেকে অনলাইনে টাকা আয়

অনলাইন থেকে আনলিমিটেড টাকা ইনকাম করার আরেকটি সহজ উপায় হচ্ছে মাইক্রো জব ওয়েবসাইট গুলি থেকে টাকা আয়।

মাইক্র জব ওয়েবসাইট কি? বর্তমানে আমাদের বাংলাদেশে প্রচুর পরিমাণ ওয়েবসাইট আছে যেগুলিতে ছোট ছোট কাজ করে আপনি অনলাইনে টাকা আয় করতে পারবেন।

যেমন – ভিডিও দেখে টাকা আয়- মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন ইন্সটল করে রিভিউ দিয়ে টাকা আয়।ফেসবুকের ভিডিও দেখে ফেসবুকের ফলোয়ার হয়ে যুক্ত হয়ে এছাড়াও বাংলা ওয়েবসাইট বা ইংলিশ বা ওয়েবসাইট ভিপিএন যুক্ত করে ভিজিট করেও টাকা আয় করতে পারবেন।

বাংলাদেশে যতগুলি মোস্ট পপুলার মাইক্রো জবর সাইট করেছে তার মধ্যে উন্নত হচ্ছে www.workupplace.com  এই ওয়েবসাইটি।

প্রথমে আপনি এই ওয়েব সাইটে আপনি রেজিস্ট্রেশন করে আপনার নাম ফোন নাম্বার আইডি পাসওয়ার্ড দিয়ে লগইন করে নিবেন।

এরপরে ফাইন জব বলে একটু অপশন দেখতে পাবেন সেখান থেকে আনলিমিটেড এখানে কাজ রয়েছে ছোট ছোট কাজ গুলি করে টাকা আয় করতে পারবেন।

অনলাইন থেকে আনলিমিটেড টাকা আয় করা সম্পর্কিত কিছু প্রশ্ন উত্তর

অনলাইন থেকে আসলে টাকা আয় হয়?

জি অনলাইন থেকে প্রতি মাসে লক্ষ লক্ষ হাজার হাজার টাকা বর্তমানে অনেকে আয় করছে।

অনলাইন থেকে টাকা আয় করতে কি লাগে?

অনলাইন থেকে টাকা আয় করতে ইন্টারনেট সংযোগ মোবাইল কম্পিউটার ডিভাইস  এছাড়াও লাগে ধৈর্য এবং ইচ্ছা শক্তি।

চাকুরীর পাশাপাশি অনলাইন থেকে টাকা আয় করা যায় কিনা?

হ্যাঁ আপনি তাহলে অনলাইনে অসংখ্য প্ল্যাটফর্ম থেকে যেকোনো একটি প্ল্যাটফর্ম নিয়ে চাকরি পাশাপাশি পার্ট টাইম কাজ করে অনলাইন থেকে টাকা আয় করতে পারবেন।

অনলাইন থেকে টাকা আয় করতে কতদিন সময় লাগে?

অনলাইন থেকে টাকা আয় একদিনেও করা সম্ভব। এটি নির্ভর করে অনলাইনে প্ল্যাটফর্ম গুলি এর উপরে।

শেষ কথা- আশা করছি অনলাইন থেকে আনলিমিটেড টাকা আয় করার সহজ উপায় গুলির মধ্যে উপরে যে সকল উপায়ের কথা বলা হয়েছে প্রত্যেকটি উপায় কিন্তু অনলাইন থেকে সহজে আয় করা. তাই আপনি উপরের যে কোন মাধ্যম থেকে যেকোনো একটি মাধ্যম নিয়ে আজই শুরু করে দিন. উপরের এই সকল মাধ্যমকে ব্যবহার করে টাকা আয় করার সম্পর্কিত সমস্যায় পড়ে থাকলে. অবশ্যই সরাসরি আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করুন.।আর হ্যাঁ অবশ্যই ফোর্সের কমেন্টসে আপনার একটি মতামত জানিয়ে যাবেন।

ধন্যবাদ সবাইকে

আরও জানুন-

মোবাইল দিয়ে টাকা আয় করার নতুন মাধ্যম (প্রমাণসহ)

আপনার জন্য আরো 

SS IT BARI– ভালোবাসার টেক ব্লগের যেকোন ধরনের তথ্য প্রযুক্তি সম্পর্কিত আপডেট পেতে আমাদের মেইল টি সাবস্ক্রাইব করে রাখুন

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join ৫০৬ other subscribers

SANAUL BARI

আসসালামু আলাইকুম ওয়া রাহমাতুল্লাহ। আমি মো:সানাউল বারী।পেশায় আমি একজন চাকুরীজীবী এবং এই ওয়েবসাইটের এডমিন। চাকুরীর পাশাপাশি গত ১৪ বছর থেকে এখন পর্যন্ত নিজের ওয়েবসাইটে লেখালেখি করছি এবং নিজের ইউটিউব এবং ফেসবুকে কনটেন্ট তৈরি করি।
বিশেষ দ্রষ্টব্য -লেখার মধ্যে যদি কোন ভুল ত্রুটি হয়ে থাকে অবশ্যই ক্ষমার চোখে দেখবেন। ধন্যবাদ।