১০০% গ্যারান্টি সহকারে ঘরোয়া উপায় চুল পরা বন্ধ করুন |Health Bangla Tips

ঘরোয়া উপায় চুল পরা বন্ধ করুন-আসসালামু আলাইকুম আশা করছি আপনি ভালো আছেন, আপনি ছেলে অথবা মেয়ে যে লিঙ্গরি হন না কেন, আজকে আপনাদেরকে চুল পড়া বন্ধ সম্পর্কে এমন কিছু ঘরোয়া টিপস দিবো,যা আপনি ব্যবহার করলে এবং মেনে চললে হান্ডেট পার্সেন্ট আপনার চুল পড়া বন্ধ হবে।

তাই আজকের পোস্টে আপনি যে সকল বিষয় জানতে পারবেন, ঘরোয়া উপায়ে চুল পরা বন্ধের নিয়ম, চুল পড়া বন্ধ করা তেলের নাম, মেয়েদের চুল পড়া বন্ধ করার ওষুধ, চুল পড়া বন্ধ করার ভিটামিন এবং চুল পড়া বন্ধ করার শ্যাম্পু এছাড়াও সর্বশেষ আপনি জানতে পারবেন চুল পড়া বন্ধ করার দোয়া সম্পর্কে।

ঘরোয়া উপায়ে চুল পড়া বন্ধ

নতুন একটি হেলথ প্রতিবেদনে জানা গেছে, এখন বাংলাদেশের শতকরা ৬০ শতাংশ ছেলে এবং মেয়েদের চুল পড়ার সহকারে চুলের বিভিন্ন সমস্যা হচ্ছে।ঘনকালো ঝলমলে চুল ভালবাসেনা এমন লোক খুব কমই পাওয়া যাবে।

এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কিছু ফল বা সবজিও মাস্ক তৈরি করতে ব্যবহার করা যেতে পারে।  যা আমাদের চুলের স্বাস্থ্যের জন্য অত্যন্ত উপকারী।  এরকম একটি উদাহরণ হল ধনে পাতা।

ধনে পাতার রস  দিয়ে চুলের যত্ন

ধনেপাতার রস এর মাধ্যমে বিভিন্ন রকম চুলের উপকারিতা রয়েছে।রান্নায় ব্যবহার করা হয় এই সুস্বাদু ধনেপাতার। তবে এই ধনেপাতা একটি ঔষধি গাছ। আমরা অনেকেই জানি না এই ধনে পাতার মাধ্যমে বিভিন্ন রকম ঔষধি কাজ হয়ে থাকে, তবে আজকে আমি জানাবো এই ধনে পাতার মাধ্যমে কিভাবে আপনি চুলের যত্ন নিবেন প্রথমে আপনি একগুচ্ছ ধনেপাতা নিয়ে নিন। এরপরে দু তিন চামচ পানি দিয়ে তাতে পেস্ট করে নিন।

ম্যালেরিয়া রোগের লক্ষণ কারণ এবং চিকিৎসা

এরপরে পানি এবং ধনেপাতা সুন্দরভাবে পেস্ট করা হয়ে গেলে, আপনি আপনার চুলে এবং মাথার ত্বকে লাগিয়ে রাখুন আধা ঘণ্টা পর্যন্ত। এরপর আধাঘন্টা পর সুন্দরভাবে স্যাম্পল করে আপনার মাথা ধুয়ে নিন। দেখবেন আপনি বুঝতে পারবেন আপনার চুল প্রতি সপ্তাহেই একটি পরিবর্তন দেখতে পাচ্ছেন, অনেক ঝরঝরে, অনেক কালো এবং চুল বৃদ্ধি পাচ্ছে এবং চুল পড়া রোধ সংখ্যা ক্রমান্বয়ে কমে আসতেছে।এভাবে আপনি সপ্তাহে দুইবার ধনেপাতার রস ব্যবহার করতে পারেন।

অ্যালোভেরা এবং ধনেপাতার চুলের জন্য ব্যবহার

অ্যালোভেরার গুণ এর কথা তাদেরকে বলার অপেক্ষা রাখে না।অ্যালোভেরা কি কি কাজে ব্যবহার হয় স্বাস্থ্য রিলেটিভ এবং স্কিন টিপস রিলেটিভ আমাদের ব্লগ সাইটে অলরেডি অনেক পোস্ট করা আছে আপনারা চাইলে দেখে নিতে পারেন।

আজকে জানাবো অ্যালোভেরা এবং ধনেপাতা দিয়ে কিভাবে আপনি আপনার চুলের যত্ন নিবেন প্রথমেই অ্যালোভেরার পেস্ট তৈরি করে নিন এবং এরপরে একগুচ্ছ ধনেপাতা নিয়ে আপনি খুব সহজেই 3 চা চামচ পানি দিয়ে পেস্ট তৈরি করে নিন।

এরপরে ধনেপাতা এবং অ্যালোভেরা একত্রিত করে সুন্দরভাবে মিশ্রণ করুন করার পরে আপনি আপনার চুলের সুন্দর ভাবে লাগিয়ে নিন এবং চুলের ত্বকেও লাগিয়ে 20 মিনিট লাগানোর পরে সুন্দরভাবে শ্যাম্পু করে আপনার চুল ধুয়ে ফেলুন।

এটা ব্যবহার করার পরে আপনার চুলের কি পরিবর্তন আসবে সেটি আর আমি বলছি না আপনারা নিজেই তার প্রমান দেখতে পাবেন।

ধনে পাতা এবং মুলতানি মাটি

সেই প্রাচীন যুগ থেকে মুলতানি মাটির ব্যবহার বিভিন্ন রকম রূপ চর্চা এবং চুলের ব্যবহারে অপরিসীম ভূমিকা পালন করে আসতেছে।

মুলতানি মাটি ও ধনে পাতার রসের পেস্ট তৈরি করে আপনি যদি আপনার চুলে ব্যবহার করেন তাহলে আপনার চুল একদম ঘন কালো এবং চুল পড়া বন্ধ হবে প্রমাণিত।

প্রথমে আপনি একগুচ্ছ ধনেপাতা নিয়ে তারা 3 চা চামচ পানি দিয়ে আপনি পেস্ট তৈরি করে নিন এরপরে মুলতানি মাটি এবং ধনেপাতার এই পেস্ট মিশিয়ে আপনার চুলে 20 মিনিট লাগিয়ে রাখুন।পরে আপনি আপনার চুল সুন্দরভাবে 20 মিনিট পর শ্যাম্পু করে ধুয়ে ফেলুন প্রতি সপ্তাহে 2 বার এই ফরমুলা ব্যবহার করলে আপনার চুল লম্বা হবে এবং আপনার চুল পড়া বন্ধ হবে।

শীত মৌসুমে বাজারে সবজি ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকে।  তাই শীতে খাবারের স্বাদ বাড়াতে ব্যবহার করতে পারেন ধনে পাতা।  এটি সুন্দরভাবে পরিবেশন করতেও ব্যবহার করা যেতে পারে।

চুল পড়া বন্ধ করার ঘরোয়া উপায়

চুল পড়া বন্ধের ঘরোয়া পাঁচটি বিষয় নিয়ে আপনাদের কে নিচে আমি আলোচনা করব যা একদম পরীক্ষিত।

তবে তার আগে একটি বিষয় না বললেই না তা হচ্ছে অতিরিক্ত টেনশন পুষ্টির অভাব ও প্রতিদিন 8 থেকে 9 ঘণ্টা না ঘুমালে চুল পড়া খুবই একটা স্বাভাবিক বিষয় হয়ে দাঁড়ায়।

চুল পড়া বন্ধ করতে নিয়মিত আট ঘন্টা ঘুম যেমন প্রয়োজন তেমন সুষম খাবার খাওয়া এবং নিয়মিত শরীর চর্চা ও জরুরী।

তো চলুন এখন আমরা পাঁচটা ঘরোয়া বিষয়ে জানি যে কি এই পাঁচটা বিষয় মানলে আপনার চুল পড়া বন্ধ হবে।

১.প্রতিদিন রাতে আপনি ঘুমানোর আগে চুলের গোড়া থেকে আগা পর্যন্ত যেকোন ভালো একটি ব্র্যান্ডের নারিকেল তেল দিয়ে আপনার চুলগুলি বা মাথা মেসেজ করুন। সকালে ঠিক আপনি ঘুম থেকে ওঠার পর শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন।

2.অ্যালোভেরা ব্লেন্ড করে চুলে এক ঘন্টা লাগিয়ে রেখে মাইন্ড শ্যাম্পু দিয়ে পরবর্তীতে আপনি ধুয়ে ফেলবেন। এটি আপনার মাথার ত্বকের চুলকানি এবং চুল পরা কমাতে সাহায্য করে।

৩.সবচাইতে গুরুত্বপূর্ণ টিপস এটি ডিমের কুসুমের সঙ্গে সামান্য অলিভ অয়েল ও লেবুর রস মিশিয়ে চুলে এক ঘন্টা লাগিয়ে রেখে ধুয়ে ফেলুন শ্যাম্পু দিয়ে। এই কাজটি করলে আপনার চুল পড়া বন্ধ তো হবেই সঙ্গে আপনার দ্রুত চুল বৃদ্ধিতে সাহায্য করবে।

৪.এটিও খুব কার্যকরী উপায় অলিভ অয়েল চুলে মেসেজ করে বিশ মিনিট পর কুসুম গরম পানি দিয়ে আপনি যে কোন শ্যাম্পু দিয়ে ধরে ফেলুন।

৫.গুরুত্বপূর্ণ চুল পড়ার টিপস, পেঁয়াজের রস চুলের গোড়ায় ১৫ মিনিট লাগিয়ে রাখুন এরপর ভালো ব্র্যান্ডের শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এতে আপনার চুল পড়া বন্ধ হবে সঙ্গে আপনার নতুন চুল গজাতে সাহায্য করবে।

আশা করছি ঘরোয়া ভাবে উপরের এই পাঁচটি কাজ যদি আপনি করতে পারেন তাহলে কিন্তু আপনার চুল পড়া বন্ধ হবে সঙ্গে আপনার চুল বৃদ্ধি পাবে এবং আপনার মাথা থেকে খুশকি জাতীয় এই বিষয়গুলি আপনার চিরতরে চলে যাবে।

আশা করছি এই পাঁচটি বিষয় মেনে চললে আপনি আপনার সমস্যার সমাধান পেয়ে যাবেন।এছাড়াও চুল পড়া বন্ধ করা সম্পর্কিত আরো কিছু বিষয় আমি নিচে আলোচনা করছি।

চুল পড়া বন্ধ করার তেলের নাম

এখন আমি আপনাদের সামনে কিছু পরীক্ষিত চুল পড়া বন্ধ করার তেলের নাম দিয়ে দিব এই তেল গুলি আপনারা ব্যবহার করলেও আপনারদের চুল পড়া বন্ধ হবে।

রোজমেরি অয়েলরোজমেরি এসেনশিয়াল অয়েল রক্তনালীকে প্রসারিত করে এবং কোষের সংখ্যা বাড়িয়ে চুলের বৃদ্ধিকে উৎসাহিত করে। এটি মাথার ত্বকে অক্সিজেন এবং পুষ্টি সরবরাহ করে। এটি চুল ঘন করে। নারকেল তেলের সাথে 5-6 ফোঁটা রোজমেরি এসেনশিয়াল অয়েল মিশিয়ে মাথার ত্বকে লাগান। এটি 10-15 মিনিটের জন্য রেখে দিন এবং তারপরে শ্যাম্পু করুন।

লেমনগ্রাস তেললেমনগ্রাস এসেনশিয়াল অয়েল খুশকি কমাতে সাহায্য করে। চুল পড়ার অন্যতম কারণ খুশকি। লেমনগ্রাসের সুগন্ধ খুবই প্রশান্তিদায়ক এবং শুষ্ক মাথার ত্বকের সমস্যা থেকে মুক্তি দেয়। নিয়মিত শ্যাম্পু বা কন্ডিশনার (প্রাকৃতিকভাবে প্রাকৃতিক বা জৈব) এর সাথে 3-4 ফোঁটা লেমনগ্রাস এসেনশিয়াল অয়েল মেশান।

গুগল নিউজে SS IT BARI সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন

বার্গামট তেলবার্গামট এসেনশিয়াল অয়েল অ্যান্টি-মাইক্রোবিয়াল বৈশিষ্ট্যে পূর্ণ এবং স্বাস্থ্যকর মাথার ত্বকের জন্য দরকারী তেল। এর অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি বৈশিষ্ট্য মাথার ত্বককে ঠান্ডা রাখে, ফোঁড়া বা অতিরিক্ত ঘামের মতো সমস্যাগুলি কমায়। চুল পড়ার জন্য প্রদাহও দায়ী হতে পারে। নারকেল তেলের সাথে 3-4 ফোঁটা বার্গামট মিশিয়ে মাথার ত্বকে লাগান। এর পর চুল ধুয়ে ফেলতে হবে।

উপরের এই তিনটি তেল যদি আপনি ব্যবহার করেন তাহলে আপনার চুল পড়া বন্ধ হবে সঙ্গে আপনার নতুন চুল গজাবে এবং আপনি যে সমস্যায় আছেন সেই সমস্যার চিরজীবনের মুক্তি পাবেন।

এই তেল গুলি পাওয়ার জন্য আপনি বাজারের যে কোন বড় কসমেটিক্স এ গিয়ে খোঁজ করলে আপনি পেয়ে যাবেন ইনশাল্লাহ।

চুল পড়া বন্ধ করার ঔষধের নাম

আমি এখন চুল পড়া বন্ধ করার ঔষধের একটি নাম দিয়ে দিব যে ওষুধটি ব্যবহার করলে পুরুষ মহিলা যে কারো চুল পড়ার সমস্যা থাকলে তার সমাধান পেয়ে যাবেন ইনশাল্লাহ

মিনোক্সিডিল-প্রাথমিকভাবে চুলের বৃদ্ধি এবং পুরুষের প্যাটার্ন টাকের চিকিৎসায় ব্যবহৃত হয়। এই ওষুধটি মাথার ত্বকের সামনের অংশে চুল পড়া এবং টাক পড়াকে প্রভাবিত করে না। এসব ওষুধের প্রায় ৫০ শতাংশ নারীদের ক্ষেত্রে ব্যবহার করা হয় যাদের চুল পাতলা হওয়ার সমস্যা রয়েছে।

তবে অবশ্যই এই মেডিসিনটি ব্যবহার করার পূর্বে আপনি ডাক্তারের পরামর্শ নিয়ে তারপর ব্যবহার করার পরামর্শ রইলো।

চুল পড়া বন্ধ করার সেম্পু

এখন আমি আপনাদেরকে চুল পড়া বন্ধ করার যে শ্যাম্পু রয়েছে সেই শ্যাম্পুরির নাম বলবো এবং তার উপকারিতা সম্পর্কে সংক্ষেপে জানাবো।

আজ আমি এমনই একটি শ্যাম্পুর কথা বলব, যাতে রয়েছে পেঁয়াজের রসের নির্যাস। আর চুল পড়া রোধে শ্যাম্পু হলো Mamaearth onion shampoo পেঁয়াজ শ্যাম্পু। আমরা চাইলে সপ্তাহে ৩-৪ দিন এই শ্যাম্পু ব্যবহার করতে পারি। আমি নিজেও এই শ্যাম্পুটি দীর্ঘদিন ধরে ব্যবহার করছি এবং এতে আমার চুল পড়া অনেক কমে গেছে

আশা করছি এই কোম্পানির এই ব্যান্ডের শ্যাম্পু টি আপনি যদি ব্যবহার করে থাকেন তাহলে অবশ্যই আপনার চুল পড়া কমে যাবে।

চুল পড়া বন্ধ করার ভিটামিন

চুল পড়া বন্ধের জন্য আপনি ভিটামিন ই জাতীয় খাবার ভিটামিন ই ক্যাপসুল এবং ভিটামিন ই সমৃদ্ধ সব ধরনের তেল শ্যাম্পু আপনি ব্যবহার করতে পারবেন।

আপনি যেকোন ফার্মেসিতে গিয়ে চুল পড়া বন্ধের জন্য ভিটামিন এর কথা বললে তারা আপনাকে সে ক্যাপসুলটি দিয়ে দিবে।

অর্থাৎ ভিটামিন-ই সমৃদ্ধ যে কোন ভিটামিন ফাইল আপনি নিতে পারবেন বা ক্যাপসুল ব্যবহার করতে পারবেন।

আশা করছি ভিটামিন ই আপনি ব্যবহার করলে অবশ্যই আপনার চুল পড়া বন্ধ হবে এবং আপনার নতুন চুল গজাতে সাহায্য করবে।

চুল পড়া বন্ধ করার দোয়া

দেখুন আল্লাহতালা বলেছেন যে যে কোন ধরনের আপনি সমস্যায় বা অসুস্থতার মধ্যে পড়লে সর্বপ্রথম আপনি চিকিৎসা করার পূর্বে আমল করুন বা দোয়া পাঠ করুন।

তাই আমাদের চুল পড়া বন্ধ করার জন্য একটি দোয়া চোখে পড়েছে তাই আপনাদের  সঙ্গে নিচে তার শেয়ার করছি।

চুল পড়া রোধে ফেসবুকে একটি আমল চোখে পড়ছে। তা হল, হাতের তালুতে তেল নিয়ে ‘মুসাল্লামা তুল্লা শিয়াতা ফী-হা‘ এই দুআটা পড়ে তিনবার ফুঁ দিবেন। তারপর তেল গুলো মাথায় মালিশ করবেন।”

এরপরে আপনি সকালে ঘুম থেকে উঠে ভালো কোম্পানির একটি শ্যাম্পু দিয়ে আপনার মাথা ধুয়ে ফেলবেন।

ইনশাল্লাহ আপনার চুল পড়া বন্ধ হয়ে যাবে।

শেষ কথা –

আশা করছি চুল পড়া বন্ধ সম্পর্কে ঘরোয়া ঔষধি থেকে শুরু করে যতগুলি বিষয় উপরে আলোচনা করেছি। এই সকল বিষয়ে আপনি মেনে আপনি যদি এগুলি পালন করে চলতে পারেন তাহলে অবশ্যই আপনার চুল পড়া বন্ধ হবে এবং আপনার মাথায় নতুন চুল গজাবে ইনশাআল্লাহ। তাই এই ধরনের আরো স্বাস্থ্য সম্পর্কিত আরো পোস্ট পেতে অবশ্যই আমাদের ওয়েবসাইটের সঙ্গে যুক্ত থাকুন।

ধন্যবাদ সবাইকে।

পোস্ট ট্যাগ-

ঘরোয়া উপায়ে চুল পড়া বন্ধ,চুল পড়া বন্ধ করার তেলের নাম,অতিরিক্ত চুল পড়া বন্ধ করার উপায়,চুল পড়া বন্ধ করার ঔষধের নাম,চুল পড়া বন্ধ করার সেম্পু,মেয়েদের চুল পড়া বন্ধ করার ঔষধ,চুল পড়া বন্ধ করার ভিটামিন,মেয়েদের চুল পড়া বন্ধ করার তেলের নাম,চুল পড়া বন্ধ করার দোয়া।

আপনার জন্য আরো 

আপনার জন্য-

অ্যাজমা রোগের লক্ষণ ও চিকিৎসা 

থাইরয়েড রোগ থেকে মুক্তি পেতে করণীয়

চর্মরোগ থেকে মুক্তি পাওয়ার কার্যকারী চিকিৎসা

যক্ষা বা টিবি রোগের লক্ষণ

ক্যান্সার রোগের যেসব লক্ষণ এড়িয়ে যাবেন না

শ্বেতী রোগের লক্ষণ ও চিকিৎসা সম্পর্কে জেনে নিন

SS IT BARI– ভালোবাসার টেক ব্লগের যেকোন ধরনের তথ্য সম্পর্কিত আপডেট পেতে আমাদের মেইল টি সাবস্ক্রাইব করে রাখুন।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join ৪৯২ other subscribers

SANAUL BARI

আসসালামু আলাইকুম ওয়া রাহমাতুল্লাহ। আমি মো:সানাউল বারী।পেশায় আমি একজন চাকুরীজীবী এবং এই ওয়েবসাইটের এডমিন। চাকুরীর পাশাপাশি গত ১৪ বছর থেকে এখন পর্যন্ত নিজের ওয়েবসাইটে লেখালেখি করছি এবং নিজের ইউটিউব এবং ফেসবুকে কনটেন্ট তৈরি করি।
বিশেষ দ্রষ্টব্য -লেখার মধ্যে যদি কোন ভুল ত্রুটি হয়ে থাকে অবশ্যই ক্ষমার চোখে দেখবেন। ধন্যবাদ।

২ comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *