ড্রাইভিং লাইসেন্স স্মার্ট কার্ড ২০২৩ সম্পর্কে জানুন

ড্রাইভিং লাইসেন্স স্মার্ট কার্ড-সড়ক মহাসড়কে বৈধভাবে গাড়ি চালানোর জন্য ড্রাইভিং লাইসেন্স প্রত্যেক ড্রাইভারের বৈধতার প্রমাণ বহন করে। ড্রাইভিং লাইসেন্স ব্যতীত গাড়ি চালনা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ। বর্তমানে বাংলাদেশে স্মার্ট কার্ড ড্রাইভিং লাইসেন্স প্রদান করা হয়। স্মার্ট কার্ড ড্রাইভিং লাইসেন্স বিআরটিএ কর্তৃক বিভিন্ন প্রক্রিয়ার মাধ্যমে বিতরণ করা হয়। স্মার্ট কার্ড ড্রাইভিং লাইসেন্স মোটরযান পরিবহন ক্ষেত্রে অতীব গুরুত্বপূর্ণ নথি।এটি একজন চালকের গাড়ি চালানোর সময় সঙ্গে রাখতে হয়।

ড্রাইভিং লাইসেন্স স্মার্ট কার্ড

প্রিয় পাঠক পাঠিকা বন্ধুরা ড্রাইভিং লাইসেন্সের স্মার্ট কার্ড সম্পর্কে জানা জানতে বিভিন্ন ওয়েবসাইট সার্চ করে থাকেন তাদের জন্যই আজকের আর্টিকেলটি। আজকের আর্টিকেলের মূল আলোচনায় থাকবে স্মার্ট কার্ড সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য। তাই স্মার্ট কার্ড সম্পর্কে জানতে আজকের আর্টিকেলটি সম্পূর্ণ মনোযোগ দিয়ে পড়বেন।

ড্রাইভিং লাইসেন্স স্মার্ট কার্ড

ড্রাইভিং লাইসেন্স স্মার্ট কার্ড বলতে ড্রাইভিং লাইসেন্স ডিজিটাল কার্ডকে বোঝায়। ড্রাইভিং লাইসেন্স প্রক্রিয়াকে সহজ করার উদ্দেশ্যে ড্রাইভিং লাইসেন্স স্মার্ট কার্ড প্রদান করা হয়। ড্রাইভিং লাইসেন্স স্মার্ট কার্ডে স্মার্ট কার্ড নিবন্ধিত ব্যক্তির আঙ্গুলের ছাপ ত্রিকোন ছবি ও তার সম্পর্কে যাবতীয় তথ্য সংরক্ষিত থাকে। গাড়ি চালানোর সময় চেকপোষ্টে ট্রাফিক পুলিশ সহজেই চালকের ড্রাইভিং লাইসেন্স যাচাই করতে পারে স্মার্ট কার্ড ড্রাইভিং লাইসেন্স ব্যবহারের মাধ্যমে।

ড্রাইভিং লাইসেন্স করতে মেডিকেল সার্টিফিকেট কিভাবে বের করবেন

বর্তমান সময়ে গাড়ি কিংবা মোটরসাইকেলে চালানোর ক্ষেত্রে স্মার্ট কার্ড ড্রাইভিং লাইসেন্স থাকা অতি অবশ্যক। যানবাহন চালানোর ক্ষেত্রে একজন চালক কতটা পারদর্শী এবং বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট অথরিটির অনুমোদনক্রমে সে গাড়ি চালাচ্ছে সে বিষয়গুলো যাচাই করে ড্রাইভিং লাইসেন্স স্মার্ট কার্ড প্রদান করা হয়। ড্রাইভিং লাইসেন্স স্মার্ট কার্ড এর মধ্যে চালকের সকল প্রমাণ পাওয়া যায়।

স্মার্ট কার্ড ড্রাইভিং লাইসেন্সের পূর্ব শর্ত

স্মার্ট কার্ড ড্রাইভিং লাইসেন্স পাওয়ার পূর্বে প্রয়োজনীয় যে কাজগুলো করতে হবে সেগুলো হলো;

১) স্মার্ট কার্ড ড্রাইভিং লাইসেন্সের পড়বে আবেদনকারীকে শিক্ষানবিশ ড্রাইভিং লাইসেন্স করতে হবে।

২) আবেদনকারীকে কমপক্ষে অষ্টম শ্রেণী পাস হতে হবে।

৩)অপেশাদার ড্রাইভিং লাইসেন্সের জন্য নূন্যতম ১৮ বছর এবং পেশাদার ড্রাইভিং লাইসেন্সের জন্য নূন্যতম বয়স হতে হবে ২১ বছর।

৪) রেজিস্টার ডাক্তার কর্তৃক মেডিকেল সার্টিফিকেট।

৫) ন্যাশনাল আইডি কার্ড /জন্ম সনদ /পাসপোর্ট এর সত্যায়িত ফটোকপি।

৬) শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদ।

৭) পেশাদার ড্রাইভিং লাইসেন্স এর জন্য পুলিশি তদন্ত প্রতিবেদন।

৮) সদ্য তোলা তিন কপি পাসপোর্ট সাইজ ছবি।

৯) আবেদনকারী যে শারীরিক এবং মানসিকভাবে সুস্থ সবল থাকতে হবে।

স্মার্ট কার্ড ড্রাইভিং লাইসেন্স ফি

স্মার্ট কার্ড ড্রাইভিং লাইসেন্স করতে হলে বিআরটিএ কর্তৃক নির্ধারিত ফি বিআরটিএ নির্ধারিত ব্যাংকে জমা দিতে করতে হবে।

পেশাদার ড্রাইভিং লাইসেন্স এর ক্ষেত্রে ১৪৩৮ টাকা।

অপেশাদার ড্রাইভিং লাইসেন্সের ক্ষেত্রে ২৩০০ টাকা জমা দিতে হবে।

স্মার্ট কার্ড ড্রাইভিং লাইসেন্স না থাকলে জরিমানা

স্মার্ট কার্ড ড্রাইভিং লাইসেন্স ব্যতীত সড়ক বা মহাসড়কে গাড়ি চালালে সর্বনিম্ন ৫০০০ থেকে সর্বোচ্চ ২৫ হাজার টাকা পর্যন্ত জরিমানা হতে পারে অথবা‌ তিন মাসের কারাদণ্ড এবং উভয়দণ্ডে দণ্ডিত হতে পারে।

স্মার্ট কার্ড ড্রাইভিং লাইসেন্সের বায়োমেট্রিক্স টেস্ট

স্মার্ট কার্ড ড্রাইভিং লাইসেন্স করার ক্ষেত্রে বিআরটিএ নির্ধারিত সার্কুলার অফিসে গিয়ে সকল প্রয়োজনীয় কাগজপত্র জমা দেওয়ার পর বায়োমেট্রিক্স টেস্ট দিতে হবে। বায়োমেট্রিক্স (আবেদনকারীর আঙুলের ছাপ,ডিজিটাল ছবি, ডিজিটাল স্বাক্ষর) পরীক্ষা নেওয়া হবে।

অস্থায়ী ড্রাইভিং লাইসেন্স

বায়োমেট্রিক্স টেস্টগুলো গ্রহন করব বিআরটিএ আবেদনকারীকে একটি অস্থায়ী ড্রাইভিং লাইসেন্স প্রদান করবে।‌ মোটর ভেহিকেল রুলস ১৯৮৪ এর ১৭ ধারার উপধারা এক অনুযায়ী অস্থায়ী ড্রাইভিং লাইসেন্স সংশ্লিষ্ট বিআরটিএ কর্তৃপক্ষ ইস্যু করে থাকে। এই ধারাটিতে উল্লেখ করা হয়েছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষসাময়িক ড্রাইভিং লাইসেন্স প্রদান করতে পারে যা দিয়ে আবেদনকারী আবেদিত গাড়ি চালাতে পারবেন।

ইন্টারন্যাশনাল ড্রাইভিং লাইসেন্স পারমিট করার প্রক্রিয়া ২০২৩

অস্থায়ী ড্রাইভিং লাইসেন্স প্রদানের কিছুদিন পর আবেদনকারীর স্মার্ট কার্ড ইস্যু করা হবে।স্মার্ট কার্ড ড্রাইভিং লাইসেন্স প্রিন্টিং সম্পন্ন হলে আবেদনকারীকে এসএমএস এর মাধ্যমে তা গ্রহণের তারিখ জানিয়ে দেওয়া হবে।

ড্রাইভিং লাইসেন্স স্মার্ট কার্ড চেক

অনলাইনে ড্রাইভিং লাইসেন্স স্মার্ট কার্ড চেক করা অত্যন্ত সহজ একটি পদ্ধতি। একজন ব্যক্তি ঘরে বসেই তার স্মার্ট কার্ডটি কোন প্রক্রিয়ার রয়েছে তা ইন্টারনেটের মাধ্যমে চেক করতে পারেন। স্মার্ট কার্ড ড্রাইভিং লাইসেন্স চেক করার জন্য যা করতে হবে তা হলোঃ

১) গুগল প্লে স্টোর থেকে DL Checker অ্যাপটি ডাউনলোড করতে হবে।

২) এই অ্যাপসে প্রবেশ করে ব্যক্তির সকল তথ্য বসে একটি ফরম ফিলাপ করতে হবে।

৩) যদি ব্যক্তির ড্রাইভিং লাইসেন্স সম্পূর্ণ হয়ে থাকে তাহলে অবশ্যই ড্রাইভিং লাইসেন্স নাম্বার অথবা রেফারেন্স নাম্বার বসিয়ে সাবমিট করতে হবে।

৪) সাবমিট করার ৫ মিনিটের মধ্যে ব্যক্তির প্রদানকৃত মোবাইল নাম্বারে একটি এসএমএস আসবে। এবং এই এসএমএসের মাধ্যমে স্মার্ট কার্ডের স্ট্যাটাস দেখা যাবে।

৫) যদি আবেদনকারী স্মার্ট কার্ড রেডি হয়ে যায় তাহলে সেখানে স্ট্যাটাস দেখাবে এবং সেই স্ট্যাটাস প্রিন্ট করে নিয়ে নিকটস্থ বিআরটিএ অফিসে উপস্থিত হয়ে সেখান থেকে স্মার্ট কার্ড সংগ্রহ করতে হবে।

স্মার্ট কার্ড সংগ্রহ করার আগে ডেলিভারি স্লিপ

ড্রাইভিং লাইসেন্স আবেদন প্রক্রিয়া সম্পন্ন হওয়ার পর স্মার্ট কার্ড প্রদান করার জন্য আবেদনকারীকে একটি ডেলিভারি স্লিপ প্রদান করা হবে।যখন আবেদনকারী ড্রাইভিং লাইসেন্সের জন্য আবেদন করবেন এবং প্রয়োজনীয় সকল কাগজপত্র বিআরটিএ অফিসে জমা দেবেন তখন বিআরটিএ থেকে আবেদনকারীকে একটি স্লিপ প্রদান করবে এটাকে মূলত ড্রাইভিং লাইসেন্স ডেলিভারি স্লিপ বলা হয়।

গুগল নিউজে SS IT BARI সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন

আপনি যখন স্মার্ট কার্ড সংগ্রহ করতে বিআরটিএ অফিসে যাবেন তখন আপনাকে স্লিপটি তাদের দেখিয়ে আপনার স্মার্ট কার্ড সংগ্রহ করতে হবে। স্লিপটি ব্যতীত কোনভাবেই আপনি ড্রাইভিং লাইসেন্স স্মার্ট কার্ড পাবেন না।তাই এটি সর্বদা যত্ন সহকারে হেফাজতে রাখার চেষ্টা করবেন নিজের কাছে।

স্মার্ট কার্ড ড্রাইভিং লাইসেন্স এর ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা

বর্তমান সরকার ডিজিটালাইজেশন এর মাধ্যমে স্মার্ট কার্ড ড্রাইভিং লাইসেন্স প্রদান করছে। স্মার্ট কার্ড ড্রাইভিং লাইসেন্স এর মাধ্যমে একজন ব্যক্তি দালালের খপ্পরে পড়ে ভুয়া ড্রাইভিং লাইসেন্স তৈরি থেকে রক্ষা পাচ্ছে। বর্তমান সরকার স্মার্ট কার্ড ড্রাইভিং লাইসেন্সের উন্নয়নের লক্ষ্যে ২০২৫ সালের মধ্য সকল মন্ত্রণালয় এবং সর্বস্তরের ডিজিটালাইজেশন একটি প্রজেক্ট নিয়ে ভাবছে। এতে করে গ্রাহকরা অনেক দুর্ভোগ থেকে পরিত্রাণ পাবে।

ড্রাইভিং লাইসেন্স স্মার্ট কার্ড ২০২৩ এমন একটি নথি যেখানে একজন গাড়ি চালকের সকল তথ্য দেওয়া থাকবে এবং স্মার্ট কার্ডের ভেতর চালকের ড্রাইভিং লাইসেন্স এর সকল প্রমাণ পাওয়া যাবে। পুলিশ খুব সহজেই ড্রাইভিং লাইসেন্স স্মার্ট কার্ড স্ক্যান করে চালকের সম্পর্কে সকল তথ্য জানতে পারবে যেখানে ভুল হওয়ার সম্ভাবনা কম থাকে।ভুয়া ড্রাইভিং লাইসেন্স এর ভোগান্তি থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য বর্তমানে সরকার ডিজিটাল পদ্ধতি অনুসরণ করে স্মার্ট কার্ড ড্রাইভিং লাইসেন্স বিতরণ করছে।

সচরাচর জিজ্ঞাসা

প্রশ্ন: স্মার্ট কার্ড ড্রাইভিং লাইসেন্সের জন্য কত টাকা জমা দিতে হবে?

উত্তর: অপেশাদার স্মার্ট কার্ড ড্রাইভিং লাইসেন্স এর জন্য ২৩০০ টাকা এবং পেশাদার স্মার্ট কার্ড ড্রাইভিং লাইসেন্সের জন্য ১৪৩৮ টাকা জমা দিতে হবে।

প্রশ্ন: স্মার্ট কার্ড ড্রাইভিং লাইসেন্স আবেদনকারীর বয়স কত হতে হবে?

উত্তর:অপেশাদার স্মার্ট কার্ড ড্রাইভিং লাইসেন্স আবেদনকারীর বয়স ন্যূনতম ১৮ বছরের এবং পেশাদার ড্রাইভিং লাইসেন্স আবেদনকারীর বয়স ন্যূনতম ২১ বছর হতে হবে।

প্রশ্ন: স্মার্ট কার্ড ড্রাইভিং লাইসেন্স চেক করতে আবেদনকারীর কোন নাম্বার দরকার হবে?

উত্তর:স্মার্ট কার্ড ড্রাইভিং লাইসেন্স চেক করার জন্য আবেদনকারীর ড্রাইভিং লাইসেন্স রেফারেন্স নাম্বার দরকার পড়বে তা পূর্বে ড্রাইভিং লাইসেন্স আবেদন করার সময় ব্যক্তিকে প্রদান করা হয়েছিল।

শেষ কথা-

বন্ধুরা ইতমধ্য আপনারা জানতে পেরেছেন স্মার্ট কার্ড ড্রাইভিং লাইসেন্স সম্পর্কে বিস্তারিত। আমাদের আজকের আলোচনার পর্বে স্মার্ট কার্ড ড্রাইভিং লাইসেন্স সম্পর্কিত‌ আলোচনায় স্মার্ট কার্ড কি বা কেন করা হয় সে সম্পর্কে তথ্যগুলো আপনাদের মাঝে তুলে ধরার চেষ্টা করেছি। আশা করছি সকলেই বুঝতে পেরেছেন। এ সম্পর্কে আপনাদের কোন জিজ্ঞাসা থাকলে অবশ্যই আমাদের কমেন্টের মাধ্যমে জানাবেন। ড্রাইভিং লাইসেন্স সম্পর্কিত আরো তথ্য পেতে আমাদের ওয়েবসাইট ভিজিট করতে পারেন। ধন্যবাদ সকলকে।

পোস্ট ট্যাগ-

ড্রাইভিং লাইসেন্স স্মার্ট কার্ড ২০২৩,ড্রাইভিং লাইসেন্স স্মার্ট কার্ড ২০২২,ড্রাইভিং লাইসেন্স স্মার্ট কার্ড বিতরণ,ড্রাইভিং লাইসেন্স স্মার্ট কার্ড ডাউনলোড,ড্রাইভিং লাইসেন্স স্মার্ট কার্ড চেক,ড্রাইভিং লাইসেন্স স্মার্ট কার্ড কবে পাব,ড্রাইভিং লাইসেন্স স্মার্ট কার্ড আবেদন ফরম,ড্রাইভিং লাইসেন্স চেক,ড্রাইভিং লাইসেন্স হয়েছে কিনা কিভাবে জানবো।

স্বাস্থ্যকর খাবার সম্পর্কে জানতে ভিজিট করুন –  www.usitbari.com

অনলাইনে স্বপ্নপূরণ এবং টাকা আয় করতে ভিজিট করুন –  www.workupplace.com

ব্লগিং থেকে আর্নিং সম্পর্কিত টিপস পেতে ভিজিট করুন  https://www.youtube.com/@ssitbari283

আরও আপনার জন্য

ড্রাইভিং লাইসেন্স হারিয়ে গেলে করণীয়

পেশাদার ও অপেশাদার ড্রাইভিং লাইসেন্সের ভিন্নতা

মোটরসাইকেলের ড্রাইভিং লাইসেন্স করার নিয়ম

ড্রাইভিং লাইসেন্স তৈরির ক্ষেত্রে BRTA এর লিখিত পরীক্ষার সম্ভাব্য প্রশ্ন ও উত্তর

লার্নার ড্রাইভিং লাইসেন্স করার নিয়ম ২০২৩

অনলাইনে ড্রাইভিং লাইসেন্স চেক করার নিয়ম

লাল সবুজ পরিবহনের অনলাইন টিকিট কাটার নিয়ম

পিজি হাসপাতাল অনলাইন টিকেট বুকিং করুন ঘরে বসে ২ মিনিটে

SS IT BARI– ভালোবাসার টেক ব্লগের যেকোন ধরনের তথ্য প্রযুক্তি সম্পর্কিত আপডেট পেতে আমাদের মেইল টি সাবস্ক্রাইব করে রাখুন।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 504 other subscribers

প্রতিদিন আপডেট পেতে আমাদের নিচের দেয়া এই লিংক এ যুক্ত থাকুন

SS IT BARI- ফেসবুক গ্রুপে যোগ দিয়ে প্রযুক্তি বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুনঃ এখানে ক্লিক করুন

SS IT BARI- ফেসবুক পেইজ লাইক করে সাথে থাকুনঃ এখানে ক্লিক করুন।
SS IT BARI- ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করতে :এএখানে ক্লিক করুন এবং দারুণ সব ভিডিও দেখুন।
গুগল নিউজে SS IT BARI সাইট ফলো করতে :এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন।
SS IT BARI-সাইটে বিজ্ঞাপন দিতে চাইলে যোগাযোগ করুন :< strong>এখানে ক্লিক করুন।

SS IT BARI- টুইটার থেকে আমাদের খবর সবার আগে পেতে : এখানে ক্লিক করুন।

SS IT BARI- লিংকদিন থেকে আমাদের খবর সবার আগে পেতে : এখানে ক্লিক করুন।

SS IT BARI- ইনস্টাগ্রাম থেকে আমাদের খবর সবার আগে পেতে : এখানে ক্লিক করুন।

SS IT BARI- টুম্বলার (Tumblr)থেকে আমাদের খবর সবার আগে পেতে :এখানে ক্লিক করুন।

SS IT BARI- পিন্টারেস্ট (Pinterest)থেকে আমাদের খবর সবার আগে পেতে : এখানে ক্লিক করুন।

কোন অভিজ্ঞতা ছাড়াই অনলাইন থেকে ইনকাম করতে চাইলে সাথেই থকুন : এখানে ক্লিক করুন।

Lakhi Hasan

SS IT BARI-ভালোবাসার টেক ব্লগ টিম