Bangla Blogging SEO।সহজ এসইও করে গুগল অ্যাডসেন্স পাওয়ার উপায়।

আজকে আমি আপনাদেরকে ব্লগিং কিভাবে সহজেই এসইও করে আপনার সাইটটিকে অথবা ব্লক সাইটটিকে গুগলের রেঙ্ক  নিয়ে যাবে এবং গুগলের এডসেন্স খুব সহজেই পাবেআমি এর আগের আমার ব্লগিং নিয়ে পোস্টেও অনেকবার বলেছি যে আমি খুবই সিম্পল একজন ব্লগার  আমি শুধু চেষ্টা করি কিভাবে আপনাদেরকে একজন ব্লগিং স্টার্ট করলে যে ধরনের প্রবলেম ফেস করে সেগুলো নিজের অভিজ্ঞতা আপনাদের সঙ্গে শেয়ার করতে

    আজকে আমি আপনাদেরকে শেয়ার করব আপনি নতুন ব্লগার হিসাবে একটি ব্লগ সাইট খোলার পরে কোন ধরনের এসইও সহজে সেগুলো করলে আপনার  গুগলে খুব সহজেই এডসেন্স পাবে আমার নিজের অভিজ্ঞতা শেয়ার করার চেষ্টা করলাম

    অন্য পোস্ট:সুন্দরবন কুরিয়ার সার্ভিস এর শাখা সমূহ।

    Bangla Blogging SEO।সহজ এসইও করে গুগল অ্যাডসেন্স পাওয়ার উপায়।

    Bangla Blogging SEOসহজ এসইও করে গুগল অ্যাডসেন্স পাওয়ার উপায়

    আপনার ব্লগ সাইটটি ক্রিয়েট করা বা তৈরি করা হয়ে গেলে আপনি প্রথমেই আপনার সাইটটিকে সম্পূর্ণভাবে এসইও  করতে হবে আপনার ব্লগ সাইটের সেটিংসে গিয়ে, প্রথমেই আপনার সাইটের নাম সিলেক্ট করুন এবং সাইটের ড্রেসক্রিপশন অপশনে গিয়ে ,আপনি কিছু রিসার্চ কিওয়ার্ড দিয়ে আপনার সাইটটি যে সম্পর্কিত ভাবে আপনি তৈরি করতে চান, সেই টপিক এর উপরের দুইটা অথবা তিনটা কিওয়ার্ড দিয়ে আপনার প্রেসক্রিপশন টা সুন্দরভাবে সাজিয়ে আপনি আপলোড করুন

    তবে আপনার সাইটটি তৈরী হওয়ার পর একটি বিষয় অবশ্যই লক্ষ্য রাখবেন ভালো ভাবে আপনি আপনার সাইটটিতে ইউজার ফ্রেন্ডলি এসইও ফ্রেন্ডলি একটি টেমপ্লেট অবশ্যই আপলোড করবেন আপনারা যদি কখনো প্রয়োজন হয় ইউজার এবং এসইও ফ্রেন্ডলি টেমপ্লেট তাহলে আমার এই পোস্টে আপনার জিমেইল এড্রেস দিয়ে ইনবক্স করুন Iআমি আপনাদের কে ফ্রিতে পেইড ভার্সন এর একটি ইউজার এসইও ফ্রেন্ডলি টেমপ্লেট আপনাদের কে দিয়ে দিবোঅবশ্যই আপনার টেমপ্লেটটি আপলোড করার পর আপনি থিম অপশনে গিয়ে আপনার টেমপ্লেটটি কিছু পরিবর্তন বা ডিজাইনের পরিবর্তন আনুন এবং অবশ্যই লক্ষ্য রাখবেন আপনার টেমপ্লেটটি বা থিমটি যাতে খুব সাধারন হয়  এলোমেলো কোন কিছু করে আপনার সাইটটি সাজাবেন না তাহলে গুগলের এডসেন্স পাইতে অনেক সমস্যা হয়

    উপরের দেওয়ার নিয়ম অনুসারে আপনার সাইটটি সম্পূর্ণভাবে এসইও করা হয়ে গেলেনিচের দেয়া কাজ গুলো করুন

    পোস্ট আর্টিকেল এসইও

    পোষ্ট এসইও খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি এসইওর পার্ট আপনি যদি আপনার পোস্ট অথবা আর্টিকাল সুন্দরভাবে এসইও না করেন ,তাহলে আপনার আর্টিকেলটি যতই সুন্দর হোক না কেনোগুগলে কখনোই  রেংকিং হবে না,  আর যদি গুগলে আপনার পোস্টটি রেঙ্ক না করে ,তাহলে আপনি ভিজিটর পাবেন না আর যদি ভিজিটর না পেয়ে থাকেন, তাহলে আপনার সাইটের গুগল এডসেন্স পেলেও আপনি কোন রকম ইনকাম অথবা আয় করতে পারবেন না এজন্য প্রথমেই আপনি গুরুত্ব দিন আপনারা পোস্ট হান্ডেট পার্সেন্ট ইউনিক হয় নিজের লেখা কোন কপি পেস্ট ছাড়া আর্টিকেল লিখে সাইটে পোস্ট করুন

    আপনার আর্টিকেলের ভিতরে মিনিমাম দুইটি ইন্টারনাল এবং এক্সটারনাল লিংক দেওয়ার চেষ্টা করুন আপনি যত এক্সটার্নাল লিংক আপনার সাইটে বা পোস্টে ব্যবহার করবেন আপনার সাইট এবং পোস্টটি ততো বড়ো বড়ো high-ranking সাইটে Rank করার সম্ভাবনা বাড়বে

    অবশ্যই পোস্ট করার পূর্বে আপনার পোষ্টের, মেজর হেডলাইন, হেডলাইন, হেডলাইন প্যারাগ্রাফ, নর্মাল, ফন্ট সাইজ, এগুলো আপনি অবশ্যই লক্ষ্য করুন যাতে আপনার সাইটের পোস্টটি হানডেট পারসেন ইউনিক এবং ইউজার ফ্রেন্ডলি হয়

    ইমেজ এসইও

    ইমেজ SEO এর মাধ্যমে অনেক সময় অনেক ভিজিটর পাওয়া যায় ইমেজ এসইও  যদি আপনি ভালভাবে করেন তাহলে গুগলে ইমেজ এর মাধ্যমেও আপনি অনেক ভিজিটর পেয়ে থাকবেন ইমেজ এসইও হচ্ছে আপনি আপনার পোস্টে যে ফটোব্যবহার করবেন সেটি যদি এসইও করে ব্যবহার করেন তাহলে আপনার গুগল এডসেন্স পাইতেও অনেক সহজ হবে এবং আপনার ইমেজ এর মাধ্যমে গুগল থেকে অনেক ভিজিটর পাওয়া সম্ভব হবে এজন্য আপনি আপনার পোস্টে যে ইমেজটি ব্যবহার করবেন সেটি কপি পেস্ট ছাড়া আপনি নিজে ফটোসপ  গিয়ে আপনার নিজের মত করে ডিজাইন করে ইমেজ অপলোড করুন

    অবশ্যই আপনার ইমেজটি ডিজাইন করা হলে ফটোশপেরফাইল অপশনথেকেফাইল ইনফুঅপশনে ক্লিক করে আপনার পিকচার টির অথবা ইমেজটির আপনিফাইল নেমদিন আপনার পোষ্টে দেওয়া যে কীওয়ার্ডটি আপনি হেডলাইনে ব্যবহার করবেন এবং আপনি ডেসক্রিপশন ব্যবহার করুন আপনার পোষ্টে দেওয়া ডেসক্রিপশন এবং আপনি কি ওয়ার্ড অপশন থাকবে সেখানে কিওয়ার্ডের কিছু কিওয়ার্ড ওখানে দিয়ে দিন তাহলেই দেখবেন গুগলের ইমেজ এর মাধ্যমেও আপনার পিকচারটি এসইও করে আপনি অনেক ভিজিটর পাচ্ছেন

    এবং অবশ্যই আপনার পোস্টের ইমেজ টিতে আপনার সাইটে দেওয়া লোগোটি ব্যবহার করার চেষ্টা করুন তাহলে সহজেই গুগলের রোবট বুঝতে পারবে এটি আপনার নিজস্ব একটি ইমেজ

    টেবিল অফ কনটেন্ট এসইও

    টেবিল অফ কনটেন্ট এই বিষয়টি জানেনা অনেকে এবং কিভাবে আপনার পোষ্টের টেবিল অফ কনটেন্ট টি সেট করবেন এবং টেবিল অফ কনটেন্ট সেট করলে আপনার কি উপকারে আসবে সে বিষয়ে জানাবো

    আপনারা অনেক ক্ষেত্রে লক্ষ্য করে থাকবেন যে ,অনেক বড় বড় ব্লগারদের পোষ্টের মধ্যে প্রথমেই একটি সামারাইজ আকারে টেবিল অফ কনটেন্ট দেওয়া থাকে

    টেবিল অফ কনটেন্টের কাজ হচ্ছে, আপনি একটি পোষ্টে যদি অনেকগুলি হেডলাইন অথবা সাব হেডলাইন থাকে সে ক্ষেত্রে পাঠক বা ইউজার খুব সহজেই সামারাইজ আকারে তাদের প্রয়োজনীয় টপিকটি দেখতে পাবে উদাহরণস্বরূপ বলা যেতে পারে যে, আপনি যে পোস্টটি রাইট করেছেন সেই পোষ্টের হেডলাইন আছে দশটি মনে করেন, টপ টেন মাউস সম্পর্কে আপনার পোস্টটি, তাহলে অবশ্যই আপনার দশটি ভালো ব্র্যান্ডের মাউসের নাম দিয়ে হেডলাইন করা আছে, এমন হতে পারে একজন ইউজারের এই দশটি মাউস সম্পর্কে জানার ইচ্ছা নেই শুধু তার রিকোয়ারমেন্টস মাউসটি সম্পর্কে জানতে চায়, তাই সে ইউজারটি শুধু আপনার টেবিল অফ কন্ট্রোল থেকে তার পছন্দের মাউস এর হেডলাইন  সিলেক্ট করে সম্পূর্ণভাবে তার বিস্তারিত দেখতে পাবে আশাকরছি টেবিল অফ কনটেন্টের কাজটি আপনাদেরকে সহজেই বুঝাতে পেরেছি

    এখন আসুন টেবিল অফ কনটেন্ট এর কাজ কি এবং এই সম্পর্কে  বিস্তারিত জানানু, আপনার প্রতিটি পোস্টে যদি টেবিল অফ কনটেন্ট সেট বা যুক্ত করেন তাহলে আপনার পোস্টগুলো 100% গুগলে রেংক করবে কারণ গুগোল সবসময় ইউজার ফ্রেন্ডলি পোস্ট এবং টপিক পছন্দ করেন

    টেবিল অফ কনটেন্ট আপনার পোস্টে যুক্ত করতে আমাদের নিচের দেওয়া লিংক থেকে কোডগুলো কপি করে আপনার পোষ্টের এইচটিএমএল পেজ পেস্ট করুনTable Of Content Code 

    এরপরও আপনার যদি টেবিল অফ কন্টেন সেট করতে কোন সমস্যা হয় তাহলে আমাদের এই পোস্টটিতে কমেন্টস করুন আমরা খুব দ্রুত লাইভ চ্যাটের মাধ্যমে আপনার সমস্যাটি সমাধান করে দিব

    pp

    SS IT BARI-ভালোবাসার টেক ব্লগ টিম

    Leave a Reply

    Your email address will not be published.