মোবাইলে ভোটার আইডি কার্ড চেক করার নতুন নিয়ম ২০২২

মোবাইলে ভোটার আইডি কার্ড চেক-কিভাবে আপনি ঘরে বসে আপনার স্মার্ট মোবাইল ফোনের মাধ্যমে আপনার ভোটার আইডি কার্ড অনলাইন কপি থেকে শুরু করে সব ধরনের সার্ভিস চেক করবেন সে বিষয়ে আজকে বিস্তারিত জানাবো।

মোবাইল এর মাধ্যমে ভোটার আইডি কার্ড চেক করার জন্য আপনাকে অবশ্যই একটি স্মার্ট মোবাইল ফোন এবং ইন্টারনেট সংযোগ থাকতে হবে।মোবাইলে ভোটার আইডি কার্ড চেক করার নতুন নিয়ম ২০২২

আপনারা জানেন আমরা সবসময় বাংলাদেশের তথ্য এবং প্রযুক্তি বিষয়ক সব ধরনের তথ্য আপনাদেরকে জানানোর চেষ্টা করে থাকি,এজন্য অবশ্যই আমাদের এই পোস্টটি শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত মনোযোগ সহকারে পড়বেন, তাহলেই আপনি ঘরে বসে অনলাইনে মাধ্যমে মোবাইল ফোন দিয়েই আপনার ভোটার আইডি কার্ড চেক করতে পারবেন।

মোবাইলে ভোটার আইডি কার্ড চেক করার জন্য কি কি প্রয়োজন?

  • মোবাইলে ভোটার আইডি কার্ড চেক করার জন্য প্রথমেই আপনার ভোটার আইডি পরিচয় পত্র নাম্বার অথবা ফর্ম নাম্বার বা ভোটার হয়ার সময় যে স্লিপ দিয়েছে তাতে থাকা স্লিপ নাম্বার দিয়েছে আপনার সেই স্লিপের নাম্বার প্রয়োজন হবে।
  • আপনার জন্ম তারিখ মানে আপনি কোন দিন- মাস এবং বছর জন্মগ্রহণ করেছেন তা প্রয়োজন হবে।
  • কম্পিউটার অথবা ল্যাপটপ অথবা একটি স্মার্ট মোবাইল ফোন ইন্টারনেট সংযোগসহ প্রয়োজন পড়বে।

মোবাইলে ভোটার আইডি কার্ড চেক

মোবাইলে অথবা যে কোন ডিভাইস থেকে ইন্টারনেট সংযোগ চালু করে ঘরে বসেই আপনার ভোটার আইডি কার্ড চেক করা খুবই সহজ, যদি আপনি সঠিক নিয়ম জেনে থাকেন।

তাই এখন আমি আপনাদেরকে খুবই সহজ নিয়মে কিভাবে আপনি মোবাইল অথবা কম্পিউটার এর মাধ্যমে ঘরে বসে আপনার অথবা আপনার পরিচিত যে কারোর কিভাবে, ভোটার আইডি কার্ড চেক করবেন সে বিষয়ে বিস্তারিত ধাপ বাই ধাপ ছবি আকারে জানানোর চেষ্টা করব ইনশাল্লাহ।চলুন তাহলে শুরু করা যাক-

মোবাইলে ভোটার আইডি কার্ড চেক করার ধাপ০১

প্রথমেই আপনি আপনার স্মার্টফোনের ইন্টারনেট সংযোগ চালু করে গুগোলে এ গিয়ে টাইপ করবেন -www.nidw.gov.bd অথবা আমাদের দেওয়ার এই লিংকটি উপরে একটি ক্লিক করে নির্বাচন কমিশন ভোটার আইডি কার্ড চেক করার ওয়েবসাইট টিতে প্রবেশ করবেন।

এরপর ওয়েবসাইটে প্রবেশ করার সঙ্গে সঙ্গে দুটি ইন্টারফেস দেখতে পাবেন নিচের ছবির মত। একটি তে লেখা থাকবে বাংলায় “অ্যাকাউন্ট নেই?” এবং অন্যটিতে লেখা থাকবে “নতুন নিবন্ধনের জন্য আবেদন” আপনি যদি নতুন নিবন্ধন করতে চান? তাহলে প্রথমে “রেজিস্ট্রেশন করুন” এই অপশনটির উপরে ক্লিক করবেন।

ইতিপূর্বে আপনার যদি এই ওয়েব সাইটে নিবন্ধন করা থেকে থাকে তাহলে আপনি সরাসরি “আবেদন করুন “এই ইন্টারফেসটি উপরে ক্লিক করুন।

আমি যেহেতু নতুনদের জন্য এই পোস্টটি করেছি এজন্য আমি অ্যাকাউন্ট নেই এই ইন্টারফেসের “রেজিস্ট্রেশন করুন“এই অপশনটির উপরে ক্লিক করলাম।

মোবাইলে ভোটার আইডি কার্ড চেক করার নতুন নিয়ম ২০২২
,

মোবাইলে ভোটার আইডি কার্ড চেক করার ধাপ০২

ক্লিক করার সঙ্গে সঙ্গে দ্বিতীয় ধাপে “একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন” করার ফর্ম বা ইন্টারফেসটি আপনার সামনে চলে আসবে, নিচের ছবির সঙ্গে মিলিয়ে নিন।

একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন বা মোবাইলের মাধ্যমে আপনার ভোটার আইডি কার্ড এর বর্তমান অবস্থা জানতে? আপনার যে ইন্টারফেসটি রয়েছে । সেই ইন্টারফেসটি প্রথমেই জাতীয় পরিচয় পত্র নাম্বার / ফরম নাম্বার বলে একটি ঘর বা অপশান রয়েছে।

এই ঘরটিতে আপনি আপনার ভোটার আইডি কার্ডের নাম্বার অথবা আপনাকে ভোটার আইডি হওয়ার জন্য যে স্লিপ দিয়েছে সেই শিল্পের নাম্বারটি প্রদান করুন।

এরপর একটু নিচের দিকে আসলেই “জন্ম তারিখ”বলে একটি বক্স রয়েছে, সেই বক্সে আপনি আপনার জন্ম তারিখ প্রদান করুন।

এখন আরেকটু নিচের দিকে আসলে, একটি “ক্যাপচা অপশন” আসবে, সেই ক্যাপচা উপরে যে সংখ্যা গুলি রয়েছে । আপনি নিচের বক্সে সেই সংখ্যা গুলি লিখুন।

উপরের তথ্যগুলো সঠিক ভাবে প্রদান করা হয়ে গেলে নিচের দিকে আসলে সাবমিট বলে একটি অপশন দেখতে পাবেন সেই সাবমিট অপশনটির উপরে ক্লিক করুন।মোবাইলে ভোটার আইডি কার্ড চেক করার নতুন নিয়ম ২০২২

সাবমিট অপশনটির উপরে ক্লিক করার সঙ্গে সঙ্গে আপনার ভোটার আইডি কার্ডটি কি অবস্থায় রয়েছে এবং অনলাইন কপি আপনি খুব সহজেই আপনার সামনেই দেখতে পাবেন। আর যদি আপনার অনলাইন কপিটি সব তথ্য সঠিকভাবে প্রদান করার পরেও দেখতে না পান? তাহলে বুঝে যাবেন আপনার ভোটার আইডি কার্ডটি এখনো অনলাইন কপি তৈরি হয় নাই, আপনি আপনার নিকটস্থ ইউনিয়ন কাউন্সিল এ যোগাযোগ করতে পারেন।

মোবাইলে ভোটার আইডি কার্ড চেক করার ধাপ০৩

এখন আপনি চাইলে আপনার মোবাইল ফোন অথবা আপনার কম্পিউটারের মাধ্যমে আপনার এই অনলাইন ভোটার আইডি কার্ডটি ডাউনলোড অথবা প্রিন্ট দিতে পারবেন? সেজন্য আপনাকে যেটি করতে হবে- আপনার ভোটার আইডি কার্ড টি ওপেন হওয়ার পর, আপনি আপনার কিবোর্ড থেকে Ctlr +P  প্রেস করে সরাসরি print  দিতে পারবেন অথবা আপনি চাইলে হাতে থাকা ডান পাশের অপশন থেকে ডাউনলোড   ক্লিক করে আপনার ভোটার আইডি কার্ড টি ডাউনলোড করে আপনার মোবাইলে অথবা কম্পিউটারে রেখে দিতে পারবেন।

গুগল নিউজে SS IT BARI সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন

আশা করছি উপরের এই নিয়ম এবং আপনার তথ্যগুলো সঠিকভাবে পূরণ করে এই নিয়ম অনুসরণ করলে আপনার ভোটার আইডি কার্ড মোবাইলের মাধ্যমে আপনি ঘরে বসে অনলাইনের মাধ্যমে চেক করতে পারবেন।

এছাড়াও মোবাইল ফোনের মাধ্যমে আপনার যদি ভোটার আইডি কার্ড চেক করতে এই নিয়ম অনুসরণ করার পরেও কোন সমস্যার সম্মুখীন হয়ে থাকেন তাহলে অবশ্যই আমাদের পোস্টের কমেন্ট বক্সে জানিয়ে দিবেন আমরা খুব দ্রুত আপনাকে আপনার কম্পিউটার অথবা মোবাইলে লাইফ সাপোর্ট দিয়ে আপনার অনলাইন ভোটার আইডি কার্ড চেক করার ব্যবস্থা করে দিব ইনশাল্লাহ।

এখন আমি আপনাদেরকে ভোটার আইডি কার্ড সংক্রান্ত আরো কিছু সঠিক এবং সহজ তথ্য দেওয়ার চেষ্টা করব ইনশাল্লাহ

ভোটার আইডি কার্ড সংশোধন করতে কত দিন লাগে?

আমাদের মধ্যে অনেকেই রয়েছে ,যারা ভোটার আইডি কার্ড ইতিপূর্বে করে ফেলেছি কিন্তু আমাদের ভোটার আইডি কার্ডে অসংখ্য ভুল বা নামের ভুল বা বাবার নামের ভুল বা নিজের জন্ম তারিখ ভুল এধরনের বিভিন্ন রকম ভুল রয়ে গিয়েছে ।

এই ভোটার আইডি কার্ড সংশোধন করতে আসলে কতদিন সময় লাগে সে বিষয়ে গুগলে সচরাচর অনেকেই খোঁজ করে থাকি তো এই বিষয়টি বিস্তারিত জানার জন্য আমাদের এই লিংকটি ভিজিট করুন ,তাহলে আপনি খুব সহজেই জেনে যাবেন ভোটার আইডি কার্ড সংশোধন করতে আসলে কতদিন সময় লাগে।

অনলাইনে ভোটার আইডি কার্ড সংশোধন করার নিয়ম

অনলাইনের মাধ্যমে আপনি ঘরে বসে একটি স্মার্ট মোবাইল ফোন অথবা কম্পিউটার ডিভাইসের মাধ্যমে ইন্টারনেট সংযোগ করে ঘরে বসেই অনলাইনে ভোটার আইডি কার্ড সংশোধন কিভাবে করবেন এবং সঠিক অনলাইনে মাধ্যমে ভোটার আইডি কার্ড সংশোধন করার নিয়ম কি সে বিষয়ে জানতে পারবেন এবং নিজেই করতে পারবেন।মোবাইলে ভোটার আইডি কার্ড চেক করার নতুন নিয়ম ২০২২,

অনলাইনের মাধ্যমে ভোটার আইডি কার্ড সংশোধন করার আগে কিছু প্রয়োজনীয় তথ্য এবং কাগজপত্র প্রয়োজন পড়ে থাকে সেগুলো যদি আপনি জেনে না থাকেন তাহলে আমাদের নিচের দেওয়া এই লিংকটি থেকে ভিজিট করে সেই নিয়ম অনুসারে ঘরে বসেই আপনার ভোটার আইডি কার্ডটি এখনই সংশোধন করে নিন।

অনলাইনে ঘরে বসে নতুন ভোটার হওয়ার সহজ নিয়ম

এখন আপনি চাইলে অনলাইনে ঘরে বসে নতুনভাবে ভোটার হতে পারবেন বা আপনার ভোটার আইডি কার্ডটি যদি পুরাতন হয়ে থাকে সেক্ষেত্রে অনলাইন কপি করার জন্য আবেদন করতে পারবেন।

একটা সময় ছিল ভোটার হওয়ার জন্য বিভিন্ন রকম নির্বাচন কমিশন অফিসে দিনের পর দিন ঘুরতে হয় এবং বিভিন্ন রকম দালালের পাল্লায় পড়ে অনেক টাকা পয়সাও তাদেরকে দিতে হয় এবং সময় ব্যয় হয় এখন বাংলাদেশে ডিজিটাল এর দিকে পৌঁছার উদ্যোগ হিসেবে বাংলাদেশ সরকার খুব সুন্দর একটি নিয়ম করেছে আপনি চাইলে ঘরে বসেই অনলাইনে  ভোটার হতে পারবেন।

মোবাইলে ভোটার আইডি কার্ড চেক করার নতুন নিয়ম ২০২২,

সেক্ষেত্রে অবশ্যই আপনার কিছু সঠিক নিয়ম কানুন জানতে হবে এবং কিছু সঠিক কাগজপত্র প্রয়োজন পড়ে থাকবে সবকিছু বিস্তারিত জানার জন্য আমাদের দেওয়া নিচের এই লিংকটি ভিজিট যদি করে থাকেন তাহলে আপনি অবশ্যই অনলাইনের মাধ্যমে ঘরে বসে নতুন ভোটার হতে পারবেন।

নতুন ভোটার হওয়ার সহজ নিয়ম

ভোটার আইডি কার্ড এবং জন্ম নিবন্ধন সম্পর্কিত সকল ধরনের তথ্য জানার জন্য আমাদের ওয়েবসাইটের টেকনোলজি ক্যাটাগরি টি ভিজিট করতে পারেন এই ক্যাটাগরির মধ্যে জন্ম নিবন্ধন সম্পর্কিত এবং ভোটার আইডি কার্ড সম্পর্কিত আরো সকল তথ্য প্রদান করা হয়েছে।

আরও আপনার জন্য–

ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড করুন ৫ মিনিটে

ভোটার আইডি কার্ড সংশোধন করার নিয়ম

অনলাইন থেকে জাতীয় পরিচয়পত্র ডাউনলোড করতে পারেন

অনলাইনে ঘরে বসে নতুন ভোটার হওয়ার সহজ নিয়ম-২০২২

ই পাসপোর্ট অনলাইন আবেদন

নিজের পাসপোর্ট চেক করার সহজ নিয়ম

SS IT BARI- ব্লগ ওয়েবসাইটের সাথে সংযুক্ত থাকুন এবং শিখুন এবং সর্বশেষ প্রযুক্তির সাথে আপ টু ডেট থাকুন।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join ২৬৩ other subscribers

 

প্রতিদিন আপডেট পেতে আমাদের নিচের দেয়া এই লিংক এ যুক্ত থাকুন

SS IT BARI- ফেসবুক গ্রুপে যোগ দিয়ে প্রযুক্তি বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুনঃ এখানে ক্লিক করুন

SS IT BARI- ফেসবুক পেইজ লাইক করে সাথে থাকুনঃ এই পেজ ভিজিট করুন
SS IT BARI- ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করতে এএখানে ক্লিক করুন এবং দারুণ সব ভিডিও দেখুন।
গুগল নিউজে SS IT BARI সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন।
SS IT BARI-সাইটে বিজ্ঞাপন দিতে চাইলে যোগাযোগ করুন এই লিংকে

pp

তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক লেখালিখি করি। এর আগে বিভিন্ন পোর্টালের সাথে যুক্ত থাকলেও, SS IT BARI-আমার হাতেখড়ি। তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক বিশ্লেষণ বাংলায় জানতে ভিজিট করুন http://ssitbari.com

Leave a Reply

Your email address will not be published.