মাথা ব্যথা দূর করুন সহজ উপায়ে (১০০% কার্যকরী)

মাথা ব্যথা –মাথা ব্যথা দূর করতে অনেকেই বিভিন্ন ধরনের ঔষধ খেয়ে থাকেন তবে এতেও কাজ হয় না তাই ওষুধ সেবন করার আগে কিছু ঘরোয়া পদ্ধতি রয়েছে যে পদ্ধতির মাধ্যমে মাথা ব্যথা থেকে মুক্তি পাওয়া যাবে।অনেকের অনেক কারণেই মাথা ব্যথা হয়ে থাকে আর এই ব্যথা দূর করার জন্য চিকিৎসকের শরণাপন্ন হয়ে থাকেন।

আমাদের দৈনন্দিন জীবনকে দুর্বিষহ করে তুলে এই মাথা ব্যথার রোগটি। ছোট থেকে বড় প্রায় সকলেরই নানা কারণে বিভিন্ন সময় মাথাব্যথা হতে পারে। অনেকেই আবার অনেক বেশি পরিমাণে মাইগ্রেনের সমস্যায় থেকে এই মাথা ব্যথায় ভুগে থাকেন। এই ধরনের ব্যথা খুব হঠাৎই শুরু হয়ে যায় এবং তিন চার দিন পর্যন্ত টানা ব্যথা চলতে থাকে।মাথা ব্যথা দূর করুন সহজ উপায়ে

মাথা ব্যথার রোগ নিয়ে যারা অনেক দিন যাবত ভুগছেন কিন্তু এর থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য কোন প্রকার সমাধান খুঁজে পাচ্ছেন না। তাদের জন্য আজকের আর্টিকেলের মাধ্যমে মাথা ব্যাথার চিকিৎসা এবং মাথাব্যথা দূর করার উপায় সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হবে। আশা করি শেষ পর্যন্ত আর্টিকেলটি পড়ে আমাদের সাথে থাকবেন।

মাথাব্যথা রোগ

রোগ হিসেবে আমরা মাথাব্যথা কে তেমন গুরুত্ব না দিলেও আমাদের ভোগাতে এই ছোট্ট শব্দের জুড়ি নেই। প্রায় সব বয়সী মানুষই এই মাথা ব্যথার সমস্যায় কমবেশি ভুগে থাকেন। সাধারণত ঘুমের ঘাটতি ক্লান্তি দুশ্চিন্তা মাইগ্রেন ইত্যাদির কারণে মাথাব্যথা হয়ে থাকে। যেহেতু মাথা ব্যথা খুবই সাধারণ একটি রোগের নাম তাই আমাদের সবার এর চিকিৎসা পদ্ধতি সম্পর্কে জানা দরকার।

মাথাব্যথা দূর করুন খুব সহজে

জীবনে কখনো মাথা ব্যথা ভগিনী এমন লোক খুঁজে পাওয়া যাবে না। বিভিন্ন কারণে মাথাব্যথা হয়। এর মধ্যে রয়েছে দুশ্চিন্তা মাইগ্রেন অতিরিক্ত ধূমপান ব্যথা না শোক ঔষধের বেশি ব্যবহার শরীরের পানি শূন্যতা ইত্যাদি। মাথা ব্যথা থেকে মুক্তি পাওয়ার কিছু সহজ উপায় হলো;

বরফের প্যাক

*বরফ প্রদাহ দূর করতে সাহায্য করবে। পাশাপাশি এটি ব্যথা উপশমও করবে।

*বরফের প্যাক ঘাড়ে দিন এতে মাইগ্রেনের ব্যথা অনেকটা উপশম্য হবে।

*এছাড়া একটি ধোয়া তোয়ালে বা কাপড়ের টুকরো বরফ ঠান্ডা পানিতে ভেজান। এটি মাথায় পাঁচ মিনিট রাখুন। দিনে কয়েকবার এটি করতে পারেন তবে যাদের ঠান্ডার সমস্যা রয়েছে তারা এটি না করলেই ভালো।

আদা

*আদা মাথার রক্তনালীর প্রদাহ কমাতে সাহায্য করবে। এতে মাথা ব্যথা কমবে।

*সমপরিমাণ আদার রস ও লেবুর রস মিশিয়ে খান। মাথাব্যথা থাকলে দিনে দুই থেকে তিনবার এটি খেতে পারেন।

*এক চা চামচ শুকনো আদা গুঁড়ো 2 টেবিল চামচ পানির মধ্যে মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করুন। এটি কয়েক মিনিটের জন্য কপালে লাগিয়ে রাখুন। এতে ব্যথা কমবে।

*এছাড়া আধা গুঁড়ো বা কাঁচা আদা সিদ্ধ করতে পারেন। এবার এই সিদ্ধ পানিতে ভাপ নিন।

পুদিনা পাতার রস

*পুদিনা পাতায় রয়েছে মেন্থল ও মেন্থন। এই উপাদানগুলো মাথাব্যথা দূর করার জন্য খুবই উপকারী।

*একমুঠো পুদিনা পাতা নিন। পাতা থেকে রস বের করুন। এই রস কপালে মাখুন।

*এছাড়া পুদিনার চাও খেতে পারেন।

প্রাকৃতিক উপায়ে মাথা ব্যথার সমাধান

ছোট বড় সকলেরই বিভিন্ন কারনে মাথা ব্যথা হয়ে থাকে। রোগী হিসেবে মাথা ব্যথাকে আমরা তেমন একটা গুরুত্ব না দিলেও এটি কিন্তু বেশ যন্ত্রণার একটি বিষয়। সাধারণত ঘুমের ঘাটতি ক্লান্তি দুশ্চিন্তা মাইগ্রেন ইত্যাদি কারণে মাথাব্যথা হয়। অনেকেই এই ব্যথা দূর করার জন্য চিকিৎসকের কাছে যান। অনেকে আবার ব্যথা নাশক ওষুধ খেয়ে থাকেন। কিন্তু খুব সহজে প্রাকৃতিক উপায়ে এই মাথা ব্যথা সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। মাথা ব্যথা দূর করার প্রাকৃতিক উপায় গুলো হলো-

থাইরয়েড রোগ থেকে মুক্তি পেতে করণীয়

লেবু

ঝটপট মাথাব্যথা সারিয়ে তুলতে লেবুর তুলনা হয় না। ব্যথা শুরু হওয়ার সাথে সাথে আপনি যদি গরম পানির সাথে লেবু মিশিয়ে খান তাহলে মাথাব্যথা দ্রুত কমে যাবে। আপনি যদি লেবু পেস্ট করে কপালে লাগান তাতেও মাথা ব্যথা কমবে। আর সাথে খেতে পারেন এক কাপ লেবু চা।

লবঙ্গ

কিছু লবঙ্গ তাওয়ার মধ্যে গরম করে নিন। গরম লবঙ্গ একটি রুমালের মধ্যে নিন। এক মিনিটের ঘ্রান নিন এবং দেখুন মাথা ব্যথা চলে গেছে।

পান পাতা

পান পাতা একটি অন্যতম প্রাকৃতিক উপাদান মাথা ঠান্ডা রাখার। মুহূর্তেই মাথাব্যথা সারিয়ে তুলতে কার্যকারী অবদান রয়েছে। এই পান পাতার মাথাব্যথা সারাতে ঘরোয়া চিকিৎসা হিসেবে তাজা দেখে তিন থেকে চারটি পান পাতা নিয়ে মোলায়েম করেছে যে কপালে লাগিয়ে রাখুন। আধা ঘন্টার মধ্যে এটি আপনাকে মাথাব্যথা থেকে মুক্তি দিবে।

লবণ যুক্ত আপেল

ব্যথা যদি বেশি হয় তবে এই ঘরোয়া পদ্ধতিটি চেষ্টা করে দেখতে পারেন এক টুকরো আপেল ঠিক হতে পারেন। তবে এতে একটু লবণ ছিটিয়ে নেবেন। এটা দ্রুত ব্যথা মুক্ত করতে সাহায্য করবে।

হাসি খুশি মন

অনেকেই হয়তো বিশ্বাস করবেন না তবে মনকে যদি ইতিবাচক এবং ভালো বিষয়ের দিকে নিয়ে যান তবে মাথা ব্যথা 60 সেকেন্ডের মধ্যেই দূর হবে। চেষ্টা করে দেখুন না।

পেপারমিন্ট

মাথাব্যথা সারিয়ে তোলার আরো একটি কার্যকারী উপায় হল কপালে পেপারমেন্ট মালিশ করা আর ঘাড়ে সামান্য পেপারমেন্ট মালিশ করা। এরূপ করেই দেখুন মাথা ব্যথা একদম সেরে যাবে।

মিষ্টি কুমড়ার বিচি‌ খান

মিষ্টি কুমড়োর বিচি ভেজে খেলে মাথা ব্যথার সমস্যা থেকে দ্রুত মুক্তি পাওয়া সম্ভব। কারণ মিষ্টি কুমড়োর বিচিতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ম্যাগনেসিয়াম সালফেট যা মাথা ব্যথা উপশম এ কাজ করে থাকে।

কাঠবাদাম খান

অনেক সময় আবহাওয়া ধুলাবালির কারণে মাথা ব্যথা শুরু হয়ে যায়। আবার অনেক সময় মানসিক চাপের কারণেও মাথা ব্যথা শুরু হয়। এই সকল ধরনের ব্যথা কমানোর জন্য এক মুঠো বা দুই মুঠো কাঠ বাদাম চিবিয়ে খান কাঠবাদামে রয়েছে সেলিসিন যা মাথা ব্যথা উপশমায় কাজ করে এবং দ্রুত মাথা ব্যথা নিরাময় করে।

মিনিটে দূর হবে মাথা ব্যথা

মাথা ব্যথা অতি দ্রুত দূর করতে হলে কিছু কিছু কাজ খুবই কার্যকারী। মিনিটের মধ্যে মাথা ব্যথার দূর করতে যে সকল কাজগুলো করতে পারেন সেগুলো হচ্ছে;

হাত ম্যাসাজ

বাম হাতের বুড়ো আঙ্গুল এবং তর্জনের মাঝখানের অংশে অন্য হাতের বুড়ো আঙ্গুল ও তর্জনে দিয়ে চাপ দিন এবং ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে মেসেজ করুন একইভাবে ডানহাতেও করুন। এতেও মুহূর্তের মধ্য মাথাব্যথা সেরে যাবে।

আকুপ্রেসার

বহুবছর ধরেই এই মাথা ব্যথা দূর করতে আকুপ্রেসার পদ্ধতি ব্যবহার করে আসছেন অনেকেই। এই ছোট পদ্ধতি ট্রাই করে এক মিনিটের মধ্যে মাথা ব্যথা দূর করতে পারেন।

পানি

এক চুমুকে পানি পান করলেও এক মিনিটের মধ্য মাথাব্যথা সেরে যাবে। যখন আমাদের শরীর আর্দ্র হতে থাকে তখনই মাথাব্যথা ধীরে ধীরে কমতে থাকে।

দূর করুন অসহ্যকর মাথাব্যথা

আবহাওয়ার সামান্য পরিবর্তন হোক বা কাজের চাপ অল্পতেই মাথা ধরে অনেকের।ব্যস্ততার মধ্য বিশ্রাম নেওয়ার অবকাশও খুব একটা মেলে না। তাই মাথা ধরলেই ঘুমানোর ফুরসত সকলের মেলেনা। তবে মাথা ধরলে বেদনা নাশক ঔষধ খাওয়া মোটেও কাজের কথা নয়। এসব ওষুধের অল্প বিস্তর পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া থাকে।

সেই সাথে শরীরের উপর দীর্ঘমেয়াদি নেতিবাচক প্রভাব পড়তে পারে। কিছু ঘরোয়া উপায় অবলম্বন করলে অসহ্যকর মাথাব্যথা থেকে আরাম মিলবে সহজেই।

গোসল

অসহ্যকর মাথাব্যথা থেকে মুক্তি পেতে গোসল করতে পারেন। মাথায় কিছুক্ষণ ঠান্ডা পানি ঢাললে ভালো লাগবে।

ম্যাসাজ

কপালের 2 পাশের রগ বা ঘাড়ের কাছে যদি কিছু সময়ের জন্য আঙুলের ডগা দিয়ে ম্যাসাজ করা যেতে পারে। ক্লান্তির কারণে মাথা ধরলে এই মাসাজ খুবই কাজে দেয়। আঙুলের ডগায় চাপ ব্যথার উৎপত্তিস্থলে গিয়ে কাজ করে।

গুগল নিউজে SS IT BARI সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন

আলো কমান

মাথা যন্ত্রণা শুরু হলে ঘরের আলো কমিয়ে দিন। কম্পিউটার স্ক্রিন ল্যাপটপ বা মোবাইল ফোন থেকে দূরে থাকুন। বাইরে থাকলে ভালো মনের রোদ চশমা ব্যবহার করুন।

এ্যাসেনশিয়াল ওয়েল

আঙুলের ডগার এসেন্সিয়াল অয়েল লাগিয়ে কপালে আর রগে ম্যাসাজ করুন। লেভেন্ডার বা পিপারমেন্ট এর মত কোন সুগন্ধি ফ্লেভারের তেল দিয়ে মাসাজ করলে মাথা যন্ত্রণা অনেকটা কমে।

চা কফি

চাবা কফিতে উপস্থিত ক্যাফেইন মাথা যন্ত্রণা কমাতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে। চায় আদালবঙ্গ ও মধু মিশিয়ে খেলে মাথা যন্ত্রণায় আরাম পাওয়া যায়।

মাথা ব্যথা এমনই একটি সমস্যা যা খুবই কষ্টকর। মাথা ব্যথা হলে কোন কাজও সুষ্ঠুভাবে করা যায় না। মাথাব্যথা হলে ঘন ঘন ওষুধ খেয়ে নিলাম এটা কখনোই কোন সমাধান নয়। ওষুধের উপর নির্ভরশীল হয়ে পড়লে তা আরো বেশি সমস্যা সৃষ্টি করে। ঘরোয়া এমন কিছু টোটকা রয়েছে যাতে এক মিনিটেই সেই সমস্যা সমাধান করা সম্ভব হবে।

সচরাচর জিজ্ঞাসা

মাথা ব্যথা কি কোন জটিল রোগ?

উত্তর: সাধারণত মাথাব্যথা কোন কাজের বেশি চাপ থাকলে কিংবা মাইগ্রেনের সমস্যা থাকলে হয়ে থাকে। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই এটি সাধারণ একটি রোগ তবে কারো যদি দীর্ঘমেয়াদি মাথাব্যথা হয় তবে অবশ্যই চিকিৎসকের নিকট পরামর্শ নেওয়া উচিত।

মাথা ব্যথার জন্য কি ব্যাথানাশক ঔষধ খাওয়া সঠিক?

উত্তর:মাথা ব্যথা হলে অনেকেই ব্যথা নাশক ওষুধ খেয়ে মাথা ব্যথা কমিয়ে রাখার চেষ্টা করেন। আসলে এটি ঠিক নয়। কারণ এই ওষুধের পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া শরীরের ক্ষতির কারণ তাই ঘরোয়া উপায়ে মাথাব্যথা দূর করার চেষ্টা করুন। অবস্থা যদি বেশি খারাপ হয় তাহলে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

ঘুম কম হওয়ার কারণে কি মাথা ব্যথা হতে পারে?

উত্তর: ঘুম কম হওয়া মাথাব্যথা হওয়ার একটি অন্যতম কারণ। কাজের চাপে কিংবা অন্য কোন কারণে যাদের ঘুম কম হয় তারা অনবরত মাথা ব্যথার সমস্যায় ভুগে থাকেন।

শেষ কথা-

সম্মানিত পাঠক পাঠিকা বন্ধুরা ইতোমধ্যেই আপনারা মাথাব্যথার সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়ার কার্যকরী উপায় সম্পর্কে জানতে পেরেছেন আমাদের আজকের আর্টিকেলের মাধ্যমে। এই সংক্রান্ত কারো কোন প্রশ্ন থাকলে অবশ্যই আমাদের কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে ভুলবেন না।

আমাদের ওয়েবসাইটে প্রতিদিন আরো নতুন নতুন কনটেন্ট গুলো আপনারা পেতে চাইলে নিয়মিত আমাদের ওয়েবসাইটের সাথে থাকবেন এবং আপনার বন্ধুদের সাথে ওয়েবসাইটটির কথা শেয়ার করবেন। আজকের মত এখানেই বিদায় নিচ্ছি। সবাই ভালো থাকবেন। সুস্থ থাকবেন।

পোস্ট ট্যাগ-

মাথা যন্ত্রণা কমানোর ঘরোয়া উপায়,মাথা ব্যাথা হলে কি করা উচিত,মাথা ব্যথা দূর করার ঔষধ,মাথা ব্যাথা কোন রোগের লক্ষণ,মাথা ব্যথা দূর করার দোয়া,মাথা যন্ত্রণা কমানোর উপায়,মাথা ব্যাথার খাবার,জ্বর ও মাথা ব্যাথা হলে করণীয়।

আপনার জন্য-

চর্মরোগ থেকে মুক্তি পাওয়ার কার্যকারী চিকিৎসা

যক্ষা বা টিবি রোগের লক্ষণ

ক্যান্সার রোগের যেসব লক্ষণ এড়িয়ে যাবেন না

শ্বেতী রোগের লক্ষণ ও চিকিৎসা সম্পর্কে জেনে নিন

আয়রন যুক্ত খাবার

ডায়াবেটিস প্রতিরোধ করতে কি কি খাবার খাওয়া উচিত

কালোজিরা খাওয়ার নিয়ম

বমি হলে কি খাওয়া উচিত

থ্যালাসেমিয়া রোগীর জন্য উপযোগী খাবার

সিজারিয়ান মায়ের খাদ্য তালিকা

সুস্থ থাকতে স্বাস্থ্যকর খাবার খাবার গ্রহণ

কিডনি পরিষ্কার রাখার ৯টি খাবার সম্পর্কে জেনে নেই

SS IT BARI– ভালোবাসার টেক ব্লগের যেকোন ধরনের তথ্য সম্পর্কিত আপডেট পেতে আমাদের মেইল টি সাবস্ক্রাইব করে রাখুন।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join ৪৯২ other subscribers

SS It BARI JOB NEWS

SS IT BARI-ভালোবাসার টেক ব্লগ টিম