ভোটার আইডি কার্ড চেক । নিজেই নিজের ভোটার আইডি কার্ড দেখবো কিভাবে সে বিষয় জেনে নিন

ভোটার আইডি কার্ড চেক-আজকের আলোচনায় যে সকল বিষয় জানতে পারবেন তা হচ্ছে, ভোটার আইডি কার্ড চেক এবং নিজেই নিজের ভোটার আইডি কার্ড কিভাবে দেখবেন এছাড়াও আরও যে সকল বিষয় আলোচনা করব তা হচ্ছে “আমার ভোটার আইডি কার্ড দেখতে চাই “জন্ম নিবন্ধন দিয়ে ভোটার আইডি কার্ড বের করার নিয়ম” ভোটার আইডি কার্ড অনলাইন কপি কিভাবে ডাউনলোড করবেন” এবং অনলাইনে ভোটার আইডি কার্ড কিভাবে বের করবেন, সে সকল বিষয়ে ভোটার আইডি কার্ড সংক্রান্ত সকল সঠিক তথ্য।

ভোটার আইডি কার্ড চেক

তাই আপনি যদি নতুন ভোটার হয়ে থাকেন অর্থাৎ ভোটার আইডি কার্ড সংক্রান্ত কোন সমস্যার সম্মুখীন হয়ে থাকেন, তাহলে আমাদের এই পোস্টটি পুরোপুরি পড়ুন। তাহলে আশা করছি আপনার সমস্যাটির সমাধান হয়ে যাবে ইনশাআল্লাহ।

গুগল নিউজে SS IT BARI সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন

এছাড়াও আমাদের এই ওয়েবসাইটে ভোটার আইডি কার্ড সংক্রান্ত এবং জন্ম নিবন্ধন সংক্রান্ত অনেক তথ্য দেওয়া রয়েছে, আপনি চাইলে সেখান থেকেও আপনার সমস্যাটির সমাধান খুঁজে বের করে সমাধান করে নিতে পারেন।

চলুন তাহলে আজকের পোস্টের মূল বিষয়ে আলোচনা করা যাক –

ভোটার আইডি কার্ড চেক

ভোটার আইডি কার্ড অনলাইনের মাধ্যমে চেক করতে এবং আপনি চাইলে আপনার ভোটার আইডি কার্ডের অনলাইন কপি হয়েছে কিনা তা দেখতে এবং  এছাড়াও আপনার যদি ভোটার আইডি কার্ডটি অনলাইনের মাধ্যমে ডাউনলোড করতে চান তাহলে নিচের দেওয়া স্টেপগুলো পড়ুন।

অনলাইনে নতুন ভোটার হওয়ার জন্য আমাদের একটি আবেদনপত্র পূরণ করতে হবে, এবং তারপর আমাদের ছবি এবং ফিঙ্গার দিয়ে নির্বাচন কমিশনে এই আবেদনপত্র জমা দিতে হবে। এই সময়ে ভোটার আইডি কার্ড চেক করার জন্য বা পরে নিয়ে যাওয়ার জন্য একটি স্লিপ দেওয়া হয় ,যেখানে 9 ডিজিটের একটি নম্বর থাকে আমরা এই নম্বরের মাধ্যমে ভোটার আইডি কার্ড ভোটার আইডি কার্ড চেক করব। নিচের ছবির মত স্লিপ দেওয়া আছে।

ভোটার আইডি কার্ড চেক, আমার ভোটার আইডি কার্ড দেখতে চাই, নিজেই নিজের ভোটার আইডি কার্ড দেখবো কিভাবে, জন্ম নিবন্ধন দিয়ে ভোটার আইডি কার্ড বের করা, ভোটার আইডি কার্ড অনলাইন কপি, অনলাইনে ভোটার আইডি কার্ড কিভাবে বের করব
,

প্রথমে আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারে যেকোনো ব্রাউজার খুলে গুগল সার্চ করুন। NID Card Check লিখে তাহলে প্রথমে service.nidw.gov.bd ওয়েবসাইটি আপনার সামনে চলে আসবে। নিচের ছবির মত হোম পেজ চলে আসবে।ভোটার আইডি কার্ড চেক,

আপনি একজন নতুন ভোটার তাই আপনি যে ভোটার আইডি কার্ডটি রেজিস্ট্রেশন অপশনে ক্লিক করবেন সেটি চেক করতে আপনাকে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে।ভোটার আইডি কার্ড চেক,

NID কার্ড চেক করার জন্য রেজিস্ট্রেশন অপশনে ক্লিক করার পর উপরের ছবির মত পেজটি  আসবে। প্রথম দুটি অপসন রয়েছে, একটি হল ফর্ম নম্বর(Slip number) এবং অন্যটি হল ভোটার আইডি কার্ড নম্বর(NID Number)। আপনি নতুন ,তাই আপনি এখনও ভোটার আইডি কার্ড পাননি, তাই আপনার এন আইডি কার্ড নম্বর নেই ।সে জন্য আপনি ফর্ম নম্বর(Slip number) দিয়ে আপনার NID  চেক করবেন।

আপনার যদি ভোটার আইডি কার্ড নম্বর থাকে তবে আপনি ভোটার আইডি কার্ড নম্বর দিয়েও চেক করতে পারেন। এখানে স্লিপ নম্বর দিয়ে দেখানো হয়েছে।আশা করছি ভালোভাবে বুজবেন ইনশাল্লাহ।

ভোটার আইডি কার্ড চেক করার ধাপ-০১

আপনি প্রথম লাইনে ফর্ম নম্বরের (স্লিপ নম্বর) 9-সংখ্যার শ্লিপ নম্বর, অথবা ভোটার আইডি কার্ড নম্বর যদি থাকে, তাহলে আপনার জন্ম তারিখ সঠিকভাবে লিখুন, এবং এটির সাথে একটি ক্যাপচার দেওয়া হবে তা ফিলাপ করে সাবমিট অপশনে ক্লিক করুন। নিচে ছবি দেখুনভোটার আইডি কার্ড চেক,

ভোটার আইডি কার্ড চেক করার ধাপ-০২

স্লিপ নম্বর এবং জন্ম তারিখ দেওয়ার পর, এখন আপনার অ্যাকাউন্টের তথ্য, আপনার ভোটার এলাকার নাম, জেলার নাম, বিভাগের নাম, ভোটার আইডি কার্ডে দেওয়া হুবহু সব কিছু দিন। নিচে ছবি দেখুনভোটার আইডি কার্ড চেক,

ভোটার আইডি কার্ড চেক করার ধাপ-০৩

এই ধাপে আপনাকে আপনার মোবাইল নম্বর যাচাই (verify)করতে হবে। ভোটার ফরম দেওয়ার সময় যে মোবাইল নম্বর দিয়েছিলেন, তা এই পেজে দেওয়া থাকবে। আপনি চাইলে পরিবর্তন অপশনে ক্লিক করে mobile Number পরিবর্তন করতে পারেন। কোডের জন্য ক্লিক করুন আপনার ফোনে একটি কোড আসবে। এই কোডটি এখানে লিখুন এবং পরবর্তী ধাপের জন্য ক্লিক করুন। নিচে ছবি দেখুনভোটার আইডি কার্ড চেক,

ভোটার আইডি কার্ড ফেইস ভেরিফাই করার ধাপ-০৪

স্লিপ নাম্বার ভেরিফিকেশন সম্পন্ন হলে আপনার সামনে একটি নতুন পেজ আসবে। এই পৃষ্ঠায় আপনাকে NID Wallet ইনস্টল করতে হবে এবং আপনার মুখ যাচাই করতে হবে। নিচের ছবিটি দেখুন।

ভোটার আইডি কার্ড চেক করতে ফেস ভেরিফিকেশন প্রয়োজন। এখানে আইডি কার্ড চেক করার জন্য ফেস ভেরিফিকেশন করার একটি সহজ উপায় রয়েছে যাতে আপনি সহজেই ফেস ভেরিফাই এবং এন আইডি কার্ড চেক করতে পাস্টেপ-

  • NID Wallet অ্যাপ ইনস্টল করতে প্রথমে আপনাকে আপনার মোবাইলে প্লে স্টোর থেকে Search করে  Install করতে হবে।
  • অ্যাপটি ইন্সটল করার পর আপনি ভোটার আইডি কার্ড রেজিস্টার করার জন্য যে ধাপে লাল বোতামে ক্লিক করবেন সেটিতে ট্যাপ টু এনআইডি ওয়ালেট খুলতে হবে। এবং সেখানে ভেরিফাই করার জন্য অপশন পেয়ে যাবেন।
  • এবার আপনার মুখ ভেরিফাই সম্পূর্ণ হয়ে গেলে, এটি আপনাকে স্বয়ংক্রিয়ভাবে আপনার ভোটার আইডি কার্ড নিবন্ধনের পরবর্তী ধাপে নিয়ে যাবে এবং আপনি আপনার মুখ ভেরিফাই সফল দেখতে পাবেন।

আশা করছি উপরের দেওয়া নিয়ম থেকে আপনি খুব সহজে আপনার ফেস ভেরিফিকেশন  করে ফেলতে পারবেন। আপনি যখন ফেস ভেরিফাই করা শেষ করে নিবেন, তারপর আপনাকে ভোটার আইডি কার্ড চেক করার জন্য পরবর্তী ধাপে অটোমেটিক্যালি নিয়ে যাবে।

ভেরিফাই করতে আপনি লাল বাটনে ক্লিক করলে আপনাকে অ্যাপস ডাউনলোড করার জন্য একটি অপশনে নিয়ে  চলে আসবে, আপনি ডাউনলোড করা হয়ে গেলে, আবার লাল বাটনে ক্লিক করলে নিচে দেখবেন এনআইডি ওয়ালেট অ্যাপসটি আসবে, অ্যাপসে ঢোকার পর বাকি সব বুঝতে পারবেন ভেরিফাই কমপ্লিট হলে পরবর্তী ধাপ টি পড়ুন।

ভোটার আইডি কার্ড চেক করার ধাপ-০৫

এই ধাপে আপনার সামনে যখন আপনি ফেসবুকে শন্টি সম্পন্ন করে ফেলবেন তখন অটোমেটিকলি আরেকটি পেয়ে চলে আসবে সেই পেজে আপনার প্রোফাইল পিকচার এবং বাকি ভোটার তথ্য শো করবে এবং সেখানেও পাসওয়ার্ড সেট করার একটি অপশন শো করবে সেখান থেকে আপনি চাইলে আপনার এই অ্যাপসটিতে বাই অপশনটিতে আপনার পাসওয়ার্ডটি সেটাপ করে নিতে পারেন। আবার আপনি যদি না চান তাহলে পাসওয়ার্ড নাচের করলেও কোন সমস্যা নেই।

নিজেই নিজের ভোটার আইডি কার্ড দেখবো কিভাবে

আমাদের মধ্যে অনেকেই রয়েছে যারা গুগলে নিজেই নিজের ভোটার আইডি কার্ড দেখবো কীভাবে এই লেখাটি লেখে অসংখ্যবার সার্চ করে থাকেন, তাদেরকে আজকে আমি জানাব কিভাবে আপনি আপনার ভোটার আইডি কার্ড অনলাইন এর মাধ্যমে দেখবেন সে বিষয়ে বিস্তারিত।

অনলাইন থেকে আপনার ভোটার আইডি কার্ড পাওয়ার জন্য বা দেখার জন্য যে সকল কাগজপত্র প্রয়োজন পড়ে থাকবে তা নিচে আলোচনা করলাম।

  • ভোটার নিবন্ধন ফরমের স্লিপ নাম্বার।
  • আপনার জন্মতারিখ।
  • বর্তমান এবং স্থায়ী ঠিকানা।
  • একটি স্মার্টফোন বা ল্যাপটপ অথবা কম্পিউটার।
  • একটি সচল মোবাইল নাম্বার ভেরিফিকেশন এর জন্য।
  • অন্য একটি অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন ফেস ভেরিফিকেশন এর জন্য।

নিজেই নিজের ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড করার জন্য প্রথমে গুগল প্লে স্টোরে গিয়ে এনআইডি ওয়ালেট (Nid Wallet) অ্যাপসটি ডাউনলোড করে নিবেন।

এরপরে স্লিপ নাম্বার জাতীয় পরিচয় পত্র বা ভোটার আইডি কার্ড নাম্বার দিয়ে এনআইডি সেবার ওয়েবসাইট রেজিস্ট্রেশন করতে হবে।

জাতীয় পরিচয় পত্রের ওয়েবসাইটে রেজিস্ট্রেশন করতে লিংকটি ভিজিট করুন।

আমার ভোটার আইডি কার্ড দেখতে চাই

আপনি যখন আপনার ভোটার তথ্য আপডেট করবেন তখন আপনাকে পূরণকৃত ফর্মের একটি অংশ দেওয়া হবে। এটিতে একটি ফর্ম নম্বর থাকবে, আপনাকে এটি সংগ্রহ করতে হবে। আপনার যদি ইতিমধ্যে একটি ভোটার আইডি কার্ড থাকে, আপনি ভোটার আইডি কার্ডের একটি অনলাইন কপি ডাউনলোড করতে চান, তাহলে আপনার কাছে শুধু আইডি কার্ড নম্বর থাকতে হবে। চলুন দেখে নিন

জন্ম নিবন্ধন দিয়ে ভোটার আইডি কার্ড বের করা

আপনি যদি অনলাইনে ভোটার আইডি কার্ড দেখতে চান তবে প্রথমে আপনি ভোটার আইডি কার্ড তৈরির সময় যে স্লিপ পেয়েছেন তা দেখতে পারেন। জন্ম নিবন্ধন নম্বর ও ভোটার আইডি কার্ড নম্বরের মধ্যে কোনো মিল নেই।

সুতরাং আপনি শত চেষ্টা করলেও জন্ম নিবন্ধন দিয়ে ভোটার আইডি কার্ড বের করার কোনও অনলাইন বা প্র্যাকটিক্যালি সিস্টেম নেই, এজন্য আপনাকে আপনার ভোটার আইডি কার্ড বের করতে হলে অবশ্যই আপনি যখন আপনার ভোটার হওয়ার সময় আবেদন করেছেন সেই স্লিপ থেকে স্লিপ নাম্বারটি দরকার হবে।

ভোটার আইডি কার্ড অনলাইন কপি

ভোটার আইডি কার্ড অনলাইন কপি –ভোটার আইডি কার্ড অনলাইন কপি পাওয়ার জন্য আপনাকে প্রথমে যে কাজ করতে হবে তা হচ্ছে, আপনার একটি স্মার্টফোন অথবা কম্পিউটার ইন্টারনেট সংযোগসহ দরকার পড়বে এবং আপনি ভোটার আইডি কার্ডের স্লিপ নাম্বার অর্থাৎ আপনার এনআইডি কার্ডের যে নাম্বার রয়েছে, সে নাম্বারটি প্রয়োজন পড়বে ।

ভোটার আইডি কার্ড অনলাইন কপি পাওয়া এখন খুবই সহজ আপনি চাইলে আপনার অথবা আপনার পরিবারের যে কারোই অনলাইন কপি আপনি ভোটার আইডি কার্ড ঘরে বসে ডাউনলোড করে ফেলতে পারবেন।

ভোটার আইডি কার্ড অনলাইন কপি হয়েছে কিনা তা যাচাই করতে কিছু প্রয়োজনীয় কাগজপত্র প্রয়োজন পড়ে থাকবে। এখানে ক্লিক করুন

ভোটার আইডি কার্ড সংশোধন করতে কত দিন লাগে

ভোটার আইডি সংশোধন করতে আসলে প্রকৃতপক্ষে কি পরিমাণ সময় এবং কতদিন সময় লাগে তা নির্দিষ্ট করে আমাদের নির্বাচন কমিশন অফিস এখনো পর্যন্ত সরকারিভাবে তা ঘোষণা দেয়নি।

তবে ভোটার আইডি কার্ড সংশোধন করা কিছু বিষয় এবং কাগজপত্রের উপরে দ্রুত এবং দেরি হওয়ার কারণ হিসেবে দেখা যায়।

আপনি যদি আপনার ভোটার আইডি কার্ড সংশোধন খুব দ্রুত করতে চান সে ক্ষেত্রে আপনার করনীয় কি তা জানতে আমাদের দেওয়ায় লিংকটি ভিজিট করুন এবং পুরোপুরি পোস্টটি পড়ুন।

আরও আপনার জন্য–

ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড করুন ৫ মিনিটে

ভোটার আইডি কার্ড সংশোধন করার নিয়ম

অনলাইন থেকে জাতীয় পরিচয়পত্র ডাউনলোড করতে পারেন

অনলাইনে ঘরে বসে নতুন ভোটার হওয়ার সহজ নিয়ম-২০২২

ই পাসপোর্ট অনলাইন আবেদন

নিজের পাসপোর্ট চেক করার সহজ নিয়ম

SS IT BARI- ব্লগ ওয়েবসাইটের সাথে সংযুক্ত থাকুন এবং শিখুন এবং সর্বশেষ প্রযুক্তির সাথে আপ টু ডেট থাকুন।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join ২৬৩ other subscribers

 

প্রতিদিন আপডেট পেতে আমাদের নিচের দেয়া এই লিংক এ যুক্ত থাকুন

SS IT BARI- ফেসবুক গ্রুপে যোগ দিয়ে প্রযুক্তি বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুনঃ এখানে ক্লিক করুন

SS IT BARI- ফেসবুক পেইজ লাইক করে সাথে থাকুনঃ এই পেজ ভিজিট করুন
SS IT BARI- ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করতে এএখানে ক্লিক করুন এবং দারুণ সব ভিডিও দেখুন।
গুগল নিউজে SS IT BARI সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন।
SS IT BARI-সাইটে বিজ্ঞাপন দিতে চাইলে যোগাযোগ করুন এই লিংকে

pp

তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক লেখালিখি করি। এর আগে বিভিন্ন পোর্টালের সাথে যুক্ত থাকলেও, SS IT BARI-আমার হাতেখড়ি। তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক বিশ্লেষণ বাংলায় জানতে ভিজিট করুন http://ssitbari.com

Leave a Reply

Your email address will not be published.