ভিটামিন এ জাতীয় খাবারের তালিকা এবং ভিটামিন এ জাতীয় খাবারের উপকারিতা

ভিটামিন এ জাতীয় খাবারের তালিকা –সুষম খাবারে আবার যথাযথ পরিমাণে খনিজ লবণ ও ভিটামিন থাকতে হবে। ভিটামিন ও খনিজ লবণের কাজ হলো বিপাকক্রিয়ায় অংশগ্রহণ করে শরীরে শক্তি উৎপন্ন করা।

ভিটামিন বি জাতীয় খাবার এবং ভিটামিন বি জাতীয় খাবারের তালিকা

এ ছাড়া ত্বক, হাড়, দাঁত, চুল, চোখ, স্নায়ু, মস্তিষ্কসহ দেহের অভ্যন্তরীণ তরল পদার্থের সমতা বজায় রাখা। রোগ প্রতিরোধক্ষমতা বাড়ানোর জন্য প্রতিদিন নির্দিষ্ট পরিমাণে খনিজ লবণ ও ভিটামিন খাদ্যতালিকায় অন্তর্ভুক্ত করতে হয়।

ভিটামিন এ জাতীয় খাবারের তালিকা এবং ভিটামিন এ জাতীয় খাবারের উপকারিতা,

ভিটামিন–খনিজের চাহিদা পূরণে দোকান থেকে বড়ি কিনে খাওয়ার দরকার পড়ে না। আমাদের দেশে বিভিন্ন মৌসুমে বৈচিত্র্যময় শাকসবজি ও ফলমূলের যে বিপুল সম্ভার, তা অনায়াসেই পূরণ করতে পারে খনিজ লবণ ও ভিটামিনের প্রাত্যহিক চাহিদা।

শর্করা এবং সামান্য পরিমাণে প্রোটিন ছাড়াও শাকসবজি ও ফলমূলে অবস্থিত খাদ্য-আঁশ, খনিজ লবণ ও ভিটামিন (মাইক্রোনিউট্রিয়েন্ট) দেহের অপুষ্টিজনিত রোগ (অ্যানিমিয়া, রাতকানা ইত্যাদি), কিছু ক্যানসার, স্থূলতা, উচ্চ রক্তচাপ, হৃদ্‌রোগ ও ডায়াবেটিসের প্রকোপ থেকে রক্ষা পেতে সাহায্য করে।

মাইক্রোনিউট্রিয়েন্টের চাহিদা মেটাতে খাদ্যবৈচিত্র্য অনুসরণের মাধ্যমে দৈনিক দুই কাপ ফল ও আড়াই কাপ শাকসবজি গ্রহণ করা উচিত। তবে আড়াই কাপ শাকসবজির মধ্যে অন্তত এক কাপ শাক এবং দুই কাপ ফলের মধ্যে অন্তত আধা কাপ সাইট্রাসজাতীয় ফল (লেবু, জাম্বুরা, কমলা, মাল্টা ইত্যাদি) অন্তর্ভুক্ত করা ভালো।

গুগল নিউজে SS IT BARI সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন

শাকসবজি ও ফলমূলে রয়েছে দেহের জন্য অত্যন্ত প্রয়োজনীয় ভিটামিন এ বা বিটা ক্যারোটিন, সি, ই ও বি ভিটামিনগুলো এবং ক্যালসিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম, ফসফরাস, সোডিয়াম, পটাশিয়াম, আয়রন, জিংক, কপার ইত্যাদি খনিজ লবণ।

ভিটামিন জাতীয় খাবারের তালিকা

১।গাজর: একটি মাঝারি আকারের গাজর খাওয়া আপনাকে প্রতিদিন ৪০% এরও বেশি ভিটামিন এ দেয়।

২।গরুর কলিজা: ১০০ গ্রাম গরুর মাংসের কলিজা প্রতিদিনের প্রয়োজনের ১০০০% এরও বেশি ভিটামিন এ সরবরাহ করে।

৩।পালংশাক: এক কাপ শাকের মধ্যে প্রতিদিন আপনার প্রয়োজনীয় ভিটামিন এ এর ১৫% এরও বেশি থাকে ।

আম: আম প্রতিদিন প্রস্তাবিত ভিটামিন এ এর প্রায় ২০% সরবরাহ করে।

ভিটামিন এ জাতীয় খাবারের তালিকা এবং ভিটামিন এ জাতীয় খাবারের উপকারিতা,

৪।মিষ্টি আলু: এক কাপ মিষ্টি আলুতে আপনার প্রয়োজনীয় ভিটামিন এ এর ২০০% এরও বেশি থাকে। তবে এটি প্রোভিটামিন এ আকারে থাকে।

৫।বাঁধাকপি: এক কাপ বাঁধাকপি আপনার শরীরের যে পরিমাণ রেটিনল প্রয়োজন তার ১০০% এরও কম সরবরাহ করে।

৬।বাটার: এক টেবিল চামচ বাটার আপনার প্রতিদিনের প্রয়োজনীয় ভিটামিন এ এর ১০% এরও বেশি সরবরাহ করে।

৭।ব্রকলি: এক কাপ ব্রোকলিতে আপনার প্রয়োজনীয় ভিটামিন এ এর ১০% এর বেশি থাকে।

৮।দুধ: দুধ ভিটামিন এ দিয়ে সুরক্ষিত হয় তবে অবশ্যই এক কাপে আপনার প্রয়োজনীয় ভিটামিন এ এর প্রায় ২% থাকে ।

৯।সরিষার শাক: এই সুস্বাদু শাকগুলো এক কাপ আপনাকে প্রতিদিন যে পরিমাণ ভিটামিন এ খাওয়া উচিত সেগুলির এক তৃতীয়াংশ দেবে।

ভিটামিন জাতীয় খাবারের উপকারিতা

১।রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা জোরদার করে: ভিটামিন এ সংক্রমণের বিরুদ্ধে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা শক্তিশালী করে, এটি আরও ভাল রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা নিশ্চিত করতে শ্লেষ্মা ঝিল্লি আর্দ্র রাখে, এটি সাদা রক্ত ​​কোষগুলোর ক্রিয়াকলাপকে বাড়ায়, জীবাণুগুলো আপনার শরীরে প্রবেশ থেকে বাধা দেয় এবং জীবাণু শরীরে প্রবেশের পরে সংক্রমণের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে সহায়তা করে।

ভিটামিন এ জাতীয় খাবারের তালিকা এবং ভিটামিন এ জাতীয় খাবারের উপকারিতা

২।দৃষ্টি উন্নতি করে: ভিটামিন এ দৃষ্টি উন্নত করতে সাহায্য করতে পারে। এটি আপনার চোখকে আলোকের পরিবর্তনের সাথে খাপ খাইয়ে নিতে সক্ষম করে এবং এগুলোকে হাইড্রেটেড রাখে। রাতের দৃষ্টিও উন্নত করে এবং মানুষের চোখের সক্ষমতা বাড়িয়ে তোলে। রাতের অন্ধত্বের মতো অনেক পরিস্থিতি প্রতিরোধ করতে পারে উজ্জ্বল আলো এবং অন্ধকারের সাথে খাপ খাইয়ে নিতে পারে। এটি ছানি এবং ম্যাকুলারপ্যাথির ঝুঁকি কেও উল্লেখযোগ্যভাবে হ্রাস করতে পারে যা সাধারণত বার্ধক্যজনিত কারণে জড়িত।

লো এবং হাই প্রেসার  হলে কী খাবার খাওয়া উচিত

৩।ত্বকের যত্ন: ভিটামিন এ আপনার দেহকে র‌্যাডিক্যালস এবং টক্সিনমুক্ত রাখতে সহায়তা করে যা আপনার ত্বকের ক্ষতি করতে পারে এবং আর্দ্রতা বজায় থাকে তা নিশ্চিত করে ত্বককে মসৃণ ও কোমল রাখতে সাহায্য করে। ফলে শুষ্কতা, কেরোটোসিস এবং ত্বকের অবস্থার যেমন সোরিয়াসিস প্রতিরোধ করে।

৪।ব্রণের ঝুঁকি হ্রাস করে: এটি ত্বকের সুরক্ষামূলক টিস্যুগুলিকে শক্তিশালী করে, ত্বকের পৃষ্ঠের সাধারণ স্বাস্থ্য এবং প্রাণশক্তি বাড়ায় এবং এটি শরীর থেকে টক্সিনগুলি স্ক্যান করে এবং অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট বৈশিষ্ট্যের কারণে সিস্টেমটিকে পরিষ্কার করে।

৫। ক্যান্সার প্রতিরোধে সহায়তা করতে পারে: ভিটামিন এ একটি শক্তিশালী অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট, যা স্তন এবং প্রস্টেট ক্যান্সারের মতো নির্দিষ্ট কিছু ক্যান্সার প্রতিরোধ করতে পারে।

৬।হাড়ের স্বাস্থ্যের প্রচার করে: ভিটামিন এ জাতীয় খাবার হাড় এবং দাঁতকে শক্তিশালী করে তোলে।

৭।রক্তে কোলেস্টেরলের মাত্রা হ্রাস করে।

৮।হামের ঝুঁকি কমাতে সহায়তা করে।

ভিটামিন এ জাতীয় খাবারের তালিকা এবং ভিটামিন এ জাতীয় খাবারের উপকারিতা

ভিটামিন যুক্ত খাবার নিয়ে বিভিন্ন প্রশ্ন উত্তরঃ

১। প্রশ্নঃ ভিটামিন ই কি ত্বকের জন্য ভালো?

উত্তরঃ ভিটামিন ই ত্বকের জন্য অত্যন্ত কার্যকর।

২।প্রশ্ন: কোন ভিটামিন যকৃতে সঞ্চিত হয় ?

উত্তর: ভিটামিন এ ও ডি

৩।প্রশ্ন: কোন ভিটামিনকে বায়োটিন বলে ?

উত্তর: ভিটামিন   H /ভিটামিন বি৭।

৪।প্রশ্ন: কোন ভিটামিন ক্ষতস্থান হতে রক্তপড়া বন্ধ করতে সাহায্য করে?

উত্তর: ভিটামিন কে।

৫।প্রশ্ন: কোন ভিটামিনের অভাবে মুখে ও জিহ্বায় ঘা হয়?

উত্তর: ভিটামিন- বি2।

৬।প্রশ্ন: মানুষের রক্তের PH কত?

উত্তর: 7.4।

৭।প্রশ্ন: কোন হরমোন রক্তচাপ বাড়ায় ?

উত্তর: আড্রিনালিন।

৮।প্রশ্ন: মাছের মাথা থেকে কোন ভিটামিন পাওয়া যায়?

উত্তর: ভিটামিন A।

৯।প্রশ্ন: কোন ভিটামিন কে বায়োটিন বলে?

উত্তর: ভিটামিন H অপর নাম ভিটামিন B7।

আপনার জন্য –

শর্করা । অ্যালার্জি। ভিটামিন সি। ক্যালসিয়াম। আমিষ। প্রাণীজ আমিষ। আঁশ জাতীয় খাবারের তালিকা সহ বিস্তারিত

সুষম খাবার কাকে বলে? সুষম খাবারের উপাদান সহ সুষম খাবার সম্পর্কে সকল তথ্য

প্রোটিন জাতীয় খাবার সহ গর্ভবতী মায়ের খাবার সম্পর্কে বিস্থারিত জানুন

৬ মাস থেকে ৫ বছরের বাচ্চার খাবার নিয়ে   দুশ্চিন্তা দিন শেষ

বাচ্চার পুষ্টি নিয়ে ভাবছেন?অধিক পুষ্টিগুণ সম্পূর্ণ বাচ্চার খাবার তালিকা

নবজাতক শিশুর যত্ন ও পরিচর্যায় বাবা-মার করণীয়

SS IT BARI– ভালোবাসার টেক ব্লগের যেকোন ধরনের তথ্য প্রযুক্তি সম্পর্কিত আপডেট পেতে আমাদের মেইল টি সাবস্ক্রাইব করে রাখুন

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join ৪০৭ other subscribers

             

                প্রতিদিন আপডেট পেতে আমাদের নিচের দেয়া এই লিংক এ যুক্ত থাকুন

SS IT BARI- ফেসবুক গ্রুপে যোগ দিয়ে প্রযুক্তি বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুনঃ এখানে ক্লিক করুন

SS IT BARI- ফেসবুক পেইজ লাইক করে সাথে থাকুনঃ এই পেজ ভিজিট করুন
SS IT BARI- ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করতে এএখানে ক্লিক করুন এবং দারুণ সব ভিডিও দেখুন।
গুগল নিউজে SS IT BARI সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন।
SS IT BARI-সাইটে বিজ্ঞাপন দিতে চাইলে যোগাযোগ করুন এই লিংকে

WhatsApp Image 2022 02 01 at 9.56.07 AM

SS IT BARI- ভালবাসার টেক ব্লগ এ হেলথ/স্বাস্থ্য/স্কিন কেয়ার  এবং ইতিহাস বিষয়ক লেখালিখি করি। এর আগে বিভিন্ন পোর্টালের সাথে যুক্ত থাকলেও, SS IT BARI-আমার হাতেখড়ি। হেলথ/স্বাস্থ্য/স্কিন কেয়ার বিষয়ক বিশ্লেষণ বাংলায় জানতে ভিজিট করুন http://ssitbari.com

Leave a Reply

Your email address will not be published.