বাইক চালানোর পূর্বে যে সকল বিষয় চেক করবেন

আপনি যদি একজন বাইকার হয়ে থাকেন অথবা পরিবারের যে কারোর বাইক আপনি ড্রাইভ করেন তাহলে আজকের এই লেখাটি সম্পূর্ণ আপনার জন্য।এছাড়াও যারা শখের বশে বিভিন্ন জনের বা আত্মীয় স্বজনদের বাইক নিয়ে ঘোরাঘুরি করার অভ্যাস থাকে আজকের এই পোস্টটি সম্পূর্ণ তাদের জন্যও।বাইক চালানোর পূর্বে যে সকল বিষয় চেক করবেন

আজকের এই পোস্টে আপনারা জানতে পারবেন, বাইক নিয়ে রাস্তাঘাটে বা কোথাও বের হওয়ার পূর্বে কি বিষয়গুলো আমাদের জানা অতি জরুরী বা কোন বিষয়গুলো আমাদের চেক দিয়ে বাইক নিয়ে পথ চলা শুরু করা দরকার।

মোটরসাইকেল রেজিস্ট্রেশন ফি

আজকে আমি আমার ১৫ বছর বাইক চালানোর অভিজ্ঞতা গুলো আপনাদের সঙ্গে শেয়ার করব। আশা করছি অবশ্যই আপনারা বাইক নিয়ে কোথাও বের হওয়ার পূর্বে নিজের এই বিষয়গুলো অবশ্যই চেক করে নিবেন। সে ক্ষেত্রে আপনি উপকৃত হবেন। তো চলুন বিষয়গুলো জানা যাক –

বাইক চালানোর পূর্বে চেক করবেন যে সকল বিষয় –

প্রতিদিন সকালে অথবা প্রথমবার মোটরবাইক চালানোর পূর্বে প্রি রাইড চেক আপ সমূহ মোটরবাইক এবং নিজের নিরাপত্তার জন্য খুবই প্রয়োজনীয়। অনেকে এই বিষয়টি চেক না করার ফলে রাস্তাঘাটে বের হবার পর অনেক ধরনের সমস্যার সম্মুখীন হয়ে থাকেন এবং নিজেও ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে থাকেন।

ড্রাইভ চেইন চেক করুন -ফ্রি প্লে চেক করুন, চেইন লুব এবং অয়েল ব্যবহার করুন শুকনো এবং ময়লা চেইন দ্রুত নষ্ট হয়ে যায়।

চাকা টায়ার প্রেসার চেক করুন – অবশ্যই বাইক চালানোর পূর্বে বাইকের চাকা এবং টায়ার প্রেসার ঠিক আছে কিনা সেটা চেক করবেন।

গুগল নিউজে SS IT BARI সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন 

সাইড স্ট্যান্ড অপারেশন চেক করুন -বাইক চালানোর পূর্বে অবশ্যই আপনার বাইকের স্ট্যান্ড ঠিক আছে কিনা সেটি চেক করে নিবেন।

ক্লাচ ক্যাবল, থ্রলট ক্যাবল,ব্রেক ক্যাবল চেক করুন – অবশ্যই বাইক চালানোর পূর্বে সকল বিষয় চেক করে নিবেন।

ফুয়েল লেভেল চেক করুন –অবশ্যই বাইক চালানোর পূর্বে আপনার বাইকে ফুয়েল কি পরিমান আছে সেটি অবশ্যই চেক করে নিবেন মিটার দেখে।

ইঞ্জিনের অয়েল লেবেল চেক করুন -বাইক চালানোর পূর্বে আপনি ইঞ্জিলের অয়েল কি পরিমান আছে সেটি চেক করে নিবেন।

সামনের এবং পিছনের ব্রেক চেক করুন -বাইক চালানোর পূর্বে অবশ্যই আপনার বাইকের সামনের এবং পিছনের ব্রেক সিস্টেমটি চেক করে নিবেন।

গ্রিপ অপারেশন চেক করুন – অবশ্যই গাড়ি চালানোর পূর্বে আপনার বাইকের গ্রিপ অপারেশন ঠিক আছে কিনা সেটা চেক করে নিতে হবে।

লাইট, ব্যাটারি, সুইচ চেক করুন -অবশ্যই বাইক চালানোর পূর্বে লাইট ব্যাটারি সুইচ এই সকল বিষয়গুলো আপনারা চেক করে নিবেন।

গিয়ার শিফটিং প্যাড চেক করুন – বাইক চালানোর পূর্বে অবশ্যই আপনার বাইকের গিয়ার শিফটিং পেডটি আপনারা চেক করে নিবেন।

ট্রাফিক আইন মেনে চলুন – উপরের সকল বিষয় চেক করে রাস্তায় যখন নামবেন তখন অবশ্যই ট্রাফিক মেনে চলবেন।

হেলমেট ব্যবহার করুন – অবশ্যই বাইক চালানোর পূর্বে আপনি আপনার হেলমেট পড়ে নিবেন। হেলমেট ছাড়া বাইক ড্রাইভ করবেন না। নিজের জন্য অবশ্যই সেফটির জন্য বাইক ড্রাইভ করার সময় হেলমেট ব্যবহার করা উচিত।

ডকুমেন্টস হিসেবে যে সকল কাগজপত্র রাখবেন –

ড্রাইভিং লাইসেন্স।

রেজিস্ট্রেশন পেপারস।

ট্যাক্স টোকেন।

ইন্সুরেন্সের কাগজ সহ সকল কিছু আছে কিনা সাথে তা চেক করে নিবেন।

শেষ কথা – আমি আশা করি আমার এই ১৫ বছর মোটরবাইক চালানোর অভিজ্ঞতা থেকে। একজন ব্রাইট ড্রাইভার যদি উপরের এই সকল বিষয় গুলি চেক করে নেয় তাহলে রাস্তাঘাটে চলার সময় কোন ধরনের আপত্তিকর অবস্থায় পড়বে না এবং ক্ষতির সম্মুখীন হবে না পাশাপাশি আপনার মোটরবাইকটিও ভালো থাকবে।

মোটর বাইক সম্পর্কিত সকল বিষয়ে জানতে অবশ্যই আমাদের ওয়েবসাইটটি ভিজিট করুন।

আপনার জন্য আরো 

আপনার জন্য-

মধ্যবিত্তের প্রিয় এই বাইক, পাওয়া যাবে মোট ১১টি কালারে

বাংলাদেশের 2022 সালের সবচাইতে সেরা বাইক।

একটি নতুন TVS বাইক সম্পর্কে এত গুরুত্বপূর্ণ কী?

SS IT BARI– ভালোবাসার টেক ব্লগের যেকোন ধরনের তথ্য প্রযুক্তি সম্পর্কিত আপডেট পেতে আমাদের মেইল টি সাবস্ক্রাইব করে রাখুন

ওয়েবসাইটের সকল পোস্টগুলি সবার আগে আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join ৪৯২ other subscribers

SANAUL BARI

আসসালামু আলাইকুম ওয়া রাহমাতুল্লাহ। আমি মো:সানাউল বারী।পেশায় আমি একজন চাকুরীজীবী এবং এই ওয়েবসাইটের এডমিন। চাকুরীর পাশাপাশি গত ১৪ বছর থেকে এখন পর্যন্ত নিজের ওয়েবসাইটে লেখালেখি করছি এবং নিজের ইউটিউব এবং ফেসবুকে কনটেন্ট তৈরি করি।
বিশেষ দ্রষ্টব্য -লেখার মধ্যে যদি কোন ভুল ত্রুটি হয়ে থাকে অবশ্যই ক্ষমার চোখে দেখবেন। ধন্যবাদ।