প্রতিবন্ধী স্কুলের শিক্ষকদের বেতনের শেষ আপডেট

মিলছে না এমপিও, পেশা বদলাচ্ছে প্রতিবন্ধী স্কুলের শিক্ষকগন।আজকে পোস্টে জানাবো প্রতিবন্ধী স্কুলের শিক্ষকদের বেতন সম্পর্কিত নতুন সকল বিষয়।

প্রতিবন্ধী স্কুলের শিক্ষকদের বেতন সম্পর্কে অনেকেই জানেনা, আবার প্রতিবন্ধী স্কুলের শিক্ষকদের বেতন সম্পর্কে সকল বিষয় এই শিক্ষকগণেরাই জানে।

প্রতিবন্ধী স্কুলের শিক্ষকদের বেতনের শেষ আপডেট
প্রতিবন্ধী স্কুলের শিক্ষকদের বেতনের শেষ আপডেট

গুগলে সার্ভ করলে দেখা যাবে প্রতিদিন দুই হাজারেরও বেশি মানুষ

প্রতিবন্ধী স্কুলের শিক্ষকদের বেতন এই লেখাটি লিখে গুগলে সার্চ করে থাকে। এর মধ্যে ১.৮ হাজার মানুষই রয়েছে যারা প্রতিবন্ধী স্কুলের শিক্ষক।

তাই প্রথমেই শেষ আপডেট হিসেবে আপনাদেরকে আমি জানাতে চাই এখনো প্রতিবন্ধী স্কুলগুলি এমপিও হয়নি অর্থাৎ জাতীয়করণ হয়নি যার ফলে সরকারি স্কেলে এখনো প্রতিবন্ধী স্কুলের শিক্ষকগণ বেতনভুক্ত অবস্থায় নেই অর্থাৎ বেতন তারা পায় না।

তবে প্রতিবন্ধী স্কুল শিক্ষকদের বেতন সম্পর্কিত একটা লাস্ট আপডেট আমার কাছে আছে আমি নিচে সেই বিষয়টি আপনাদেরকে সম্পূর্ণভাবে জানিয়ে দিব।

শুরুতেই আপনাদেরকে বলব অসংখ্য তথ্য আমাদের কাছে রয়েছে যেই তথ্যগুলিতে বলা হয়েছে প্রতিবন্ধী স্কুলের শিক্ষকেরা ইতিপূর্বে তাদের কর্মজীবন শেষ করে অর্থাৎ তারা বেতনভুক্তি না পাওয়ার ফলে অন্যান্য কর্মের দিকে ঝুঁকে পড়েছে। হ্যাঁ মানুষ শিক্ষক রয়েছে তারা ১০-১৫ বছর যাবত এই বেতনের আশায় শিক্ষকতা করে ছিল এই প্রতিবন্ধী স্কুল গুলোতে কিন্তু ফাইনালি এখনো এমপিও বা জাতীয়করণ না হওয়ার ফলে তারা পেশা চেঞ্জ করে বিভিন্ন জন দোকান ব্যবসা-বাণিজ্য অথবা প্রাইভেট স্কুল গুলিতে অলরেডি চলে গিয়েছে।

এরপরেও অনেকে এখনো পর্যন্ত গুগল বা বিভিন্ন মিডিয়াতে তারা খরচ রাখার চেষ্টা করে ” প্রতিবন্ধী স্কুলের শিক্ষকদের বেতন এই লেখাটি দিয়ে। এ থেকেই বোঝা যায় যে এখনো পর্যন্ত বাংলাদেশে যতগুলো প্রতিবন্ধী স্কুল রয়েছে সেই স্কুলগুলি এমপি ভোক্ত বা জাতীয়করণ না হওয়ার ফলে অনেক শিক্ষককে কষ্টকর জীবন যাপন করছে।

বর্তমানে প্রায় অর্ধ লাখ শিক্ষক-কর্মচারী দীর্ঘদিন ধরে বিনা বেতনে চাকরি করছেন। সমস্যা সমাধানে সরকার আইন করলেও তা বাস্তবায়ন হয়নি। প্রতিবন্ধী বিদ্যালয়গুলোকে স্বীকৃতি দিয়ে এমপিওভুক্ত করা না হলে বড় ধরনের সংকট তৈরি হবে বলে আশঙ্কা সংশ্লিষ্টদের।

প্রতিবন্ধী ভাতার আবেদন ফরম পূরণ করার সহজ নিয়ম

এ বিষয়ে জানতে চাইলে সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী মোঃ আশরাফ আলী খান খোসরো ডেইলি ক্যাম্পাসকে বলেন, সরকার প্রতিবন্ধী স্কুলের স্বীকৃতি দেওয়ার উদ্যোগ নেওয়ায় রাতারাতি অনেক প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠেছে। আমরা তাদের বাদ দিতে একটি জরিপ পরিচালনা করছি। এই সমীক্ষা শেষ হওয়ার পর প্রতিবন্ধী স্কুলগুলিকে স্বীকৃতি দেওয়া হবে। একই সঙ্গে তাদের এমপিওভুক্তি প্রক্রিয়াও শুরু হবে।

কিছু বিদ্যালয় ইতিমধ্যে স্বীকৃতি পেয়েছে উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, আমরা এমন কিছু প্রতিষ্ঠানকে স্বীকৃতি দিয়েছি যেগুলো অনেক পুরনো এবং দীর্ঘদিন ধরে সুনামের সঙ্গে পাঠদান করে আসছে। ধীরে ধীরে অন্যান্য প্রতিষ্ঠানও স্বীকৃতি পাবে। তবে এই প্রক্রিয়া কিছুটা সময়সাপেক্ষ বলে তিনি জানান।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, ২০০৯ সালে সরকার প্রতিবন্ধীদের শিক্ষা ও অন্যান্য অধিকার নিয়ে নীতিমালা করে। এ নীতিমালার আলোকে বেসরকারি উদ্যোগে দেশের বিভিন্ন স্থানে প্রতিবন্ধীদের জন্য বিশেষায়িত বিদ্যালয় স্থাপনের কাজ শুরু হয়। ২০১৩ সালে, সরকার প্রতিবন্ধী সুরক্ষা আইন প্রণয়ন করে। এই আইনটি ২০১৯ সালে গেজেট করা হয়েছিল।

গুগল নিউজে SS IT BARI সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন 

গেজেট প্রকাশের পর, সরকার প্রতিবন্ধীদের জন্য প্রতিষ্ঠিত বিদ্যালয়ের স্বীকৃতি ও এমপিওভুক্তির লক্ষ্যে সেই বছরের ডিসেম্বরে একটি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে। এরপর ২০২০ সালের জানুয়ারিতে স্কুলের তালিকা চেয়ে চিঠি পাঠান।

এ চিঠির পরিপ্রেক্ষিতে প্রাপ্ত তালিকা যাচাই-বাছাই শেষে ১ হাজার ৭৭২টি প্রতিষ্ঠানকে চূড়ান্ত করেছে মন্ত্রণালয়। তালিকাভুক্তির দুই বছর পেরিয়ে গেলেও এখনো বাস্তবায়ন হয়নি স্বীকৃতি ও এমপিওভুক্তির প্রক্রিয়া।

শেষ কথা –স্কুলের শিক্ষকদের বেতন সম্পর্কে আমার কাছে যতটুকু আপডেট ছিল উপরে আপনাদেরকে দেওয়ার চেষ্টা করেছি। কোন তথ্য ভুল ত্রুটি হয়ে থাকলে অবশ্যই ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন এবং পরবর্তীতে প্রতিবন্ধী স্কুল শিক্ষকদের এমপিও অর্থাৎ জাতীয়করণের বিষয় কোন আপডেট আসলে অবশ্যই আপনাদেরকে আমি জানাবো।

আরও জানুন-

প্রতিবন্ধী ভাতা কবে দিবে? প্রতিবন্ধী ভাতা কত টাকা? প্রতিবন্ধী ভাতা পাওয়ার নিয়ম কি?

মোবাইল দিয়ে টাকা আয় করার নতুন মাধ্যম (প্রমাণসহ)

গেম খেলে টাকা আয় পেমেন্ট বিকাশে –নগদে -রকেটে

আপনার জন্য আরো 

SS IT BARI– ভালোবাসার টেক ব্লগের যেকোন ধরনের তথ্য প্রযুক্তি সম্পর্কিত আপডেট পেতে আমাদের মেইল টি সাবস্ক্রাইব করে রাখুন

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join ৪৯২ other subscribers

SANAUL BARI

আসসালামু আলাইকুম ওয়া রাহমাতুল্লাহ। আমি মো:সানাউল বারী।পেশায় আমি একজন চাকুরীজীবী এবং এই ওয়েবসাইটের এডমিন। চাকুরীর পাশাপাশি গত ১৪ বছর থেকে এখন পর্যন্ত নিজের ওয়েবসাইটে লেখালেখি করছি এবং নিজের ইউটিউব এবং ফেসবুকে কনটেন্ট তৈরি করি।
বিশেষ দ্রষ্টব্য -লেখার মধ্যে যদি কোন ভুল ত্রুটি হয়ে থাকে অবশ্যই ক্ষমার চোখে দেখবেন। ধন্যবাদ।