পাসপোর্ট নবায়ন করার নিয়ম -সর্বশেষ আপডেট

পাসপোর্ট নবায়ন করার নিয়ম “আসসালামু আলাইকুম” আশা করছি আপনারা ভালো আছেন, আজকের পোষ্টে আমি আমার নিজের অভিজ্ঞতা থেকে “পাসপোর্ট নবায়ন করার নিয়ম আপনাদেরকে জানাবো।

পাসপোর্ট নবায়ন করার নিয়ম

এছাড়াও পাসপোর্ট নবায়ন করার মধ্যে যে সকল বিষয়ে আসে, যেমন –পাসপোর্ট নবায়ন ফি কত টাকা লাগে” এবং পাসপোর্ট নবায়ন করতে কি কি লাগেএম আর পি পাসপোর্ট নবায়ন” এই সকল বিষয়ে নিজের অভিজ্ঞতা থেকে পরিষ্কারভাবে step-by-step আপনাদেরকে বুঝিয়ে দিব।এবং আমি আশা করছি আজকের এই পাসপোর্ট নবায়ন করার নিয়ম সম্পর্কিত পোস্ট পড়ার পরে আপনার আর কোন ধরনের পাসপোর্ট নবায়ন করার নিয়ম সম্পর্কিত প্রশ্ন থাকবে না ইনশাল্লাহ।

পাসপোর্ট নবায়ন কি?

পাসপোর্ট নবায়ন হচ্ছে, আপনার পাসপোর্ট এর মেয়াদ শেষ হয়ে গেলে বা পাসপোর্ট এর কোন তথ্য পরিবর্তন করার প্রয়োজন হয়ে থাকলে, নতুন আরেকটি পাসপোর্ট এর আবেদন করা ও নতুন পাসপোর্ট গ্রহণ করার প্রক্রিয়া হল পাসপোর্ট নবায়ন বা পাসপোর্ট রি-ইস্যু বলা হয়।

যেকোনো কারণে আপনার পাসপোর্টটি নবায়ন করার পর আপনার আগের পাসপোর্ট বাতিল করা হয় এবং নতুন পাসপোর্ট সচল করে দেওয়া হয়।

অনেকে আবার প্রশ্ন করে থাকে? আমার পাসপোর্ট নবায়ন করার পর আমার আগের পাসপোর্ট এর নাম্বার আমার নতুন এই নবায়ন করার পর যে পাসপোর্টটি পাব সেটি সেম নাম্বার থাকবে কিনা? তবে আপনার নতুন পাসপোর্ট হওয়ার পর আগের নবায়ন করার যে পাসপোর্ট তৈরি হয়েছিল, সে পাসপোর্ট এর সাথে নাম্বারটি কোন মিল থাকবে না। তবে আগের পাসপোর্ট নাম্বার টি আপনার নতুন এই পাসপোর্ট নবায়ন করা পাসপোর্টে থেকে যাবে।

গুগল নিউজে SS IT BARI সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন 

তবে সাধারণত আপনার বর্তমান পাসপোর্ট এর মেয়াদ কমপক্ষে আট মাস বা এক বছর থাকা অবস্থায় পাসপোর্ট এর জন্য নবায়ন এই আবেদন করার পরামর্শ দেওয়া হয়ে থাকে। কারণ আপনারা যারা বাইরের কান্ট্রিতে যাবেন বা কাজ করবেন, সে ক্ষেত্রে পাসপোর্ট এর মেয়াদ কমপক্ষে ছয় মাস না থাকে তাদেরকে ভিসা দেওয়া হয় না।

আশাকরছি পাসপোর্ট নবায়ন করা কি এই বিষয়টি আপনাদেরকে ক্লিয়ার করতে পেরেছি।

পাসপোর্ট নবায়ন করার ধাপ সমূহ কি কি

পাসপোর্ট নবায়ন আবেদন করার পূর্বে যদি পাসপোর্ট নবায়ন করার ধাপ গুলি সম্পর্কে আপনি জানেন, তাহলে আপনারই উপকারে আসবে। আমি নিচে পাসপোর্ট নবায়ন করার যে সকল ধাপ পূর্ণ করতে হয় সেই সকল বিষয় লিখে দিচ্ছি –

  • পাসপোর্ট নবায়ন আবেদন করার জন্য যে সকল কাগজপত্র প্রয়োজন পড়ে থাকবে সেগুলো আগে থেকেই রেডি করে নেয়া। কি কি কাগজপত্র প্রয়োজন হবে নিচে আমি তা বিস্তারিত জানিয়ে দিব।
  • পাসপোর্ট নবায়ন ফরম পিডিএফ(pdf) এটি ফিলাপ করা।
  • পাসপোর্ট নবায়ন ফি কত টাকা? এই বিষয়ে আমি নিচে আলোচনা করছি সেটি আপনাকে অবশ্যই প্রদান করতে হবে অর্থাৎ পাসপোর্ট নবায়নের ফি টাকা জমা দিতে হবে।
  • আপনার পাসপোর্ট নবায়নের আবেদন ফরমটি পাসপোর্ট অফিসে জমা দেওয়া ও বায়োমেট্রিক এনরোলমেন্ট সম্পন্ন করা।
  • এরপরে সবকিছু ঠিক থাকলে পাসপোর্ট স্ট্যাটাস চেক করা এবং পাসপোর্ট সংগ্রহ করা।

পাসপোর্ট নবায়ন করতে কি কি লাগে

শুরুতেই উপরে বলেছি পাসপোর্ট নবায়ন করতে কাগজপত্র প্রয়োজন পড়ে থাকে। এজন্য পাসপোর্ট নবায়ন করতে কি কি লাগে এই বিষয়টি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এই বিষয়টি যদি আপনি ভুল করে ফেলেন, তাহলে আপনার পাসপোর্ট নবায়ন রেডি হতে অনেক সময় এবং বিভিন্ন রকম বিভ্রান্তিকর অবস্থায় পড়ে যাবেন। সেজন্য অবশ্যই আমি যে সকল বিষয় নিচে দিব সেগুলি অবশ্যই আপনি রেডি করবেন।

বলে রাখা ভালো যে, পাসপোর্ট নবায়ন করতে যেসব কাগজপত্র লাগে তা নতুন পাসপোর্ট করার মতোই। তবে যেহেতু নবায়ন করার আবেদনকারীদের ক্ষেত্রে আগের একটা পাসপোর্ট আছে, তাই অনেক পাসপোর্ট অফিসে কাগজের কিছু শিথিলতা থেকে থাকে। তবে আপনি চেষ্টা করবেন তাদের রিকোয়ারমেন্ট অনুযায়ী নিচে যে সকল আমি কাগজপত্রের কথা বলব সেগুলো আপনি নিয়ে যেতে।

  • জাতীয় পরিচয় পত্র(NID) অথবা অনলাইন জন্ম নিবন্ধন সনদ(BRC)
  • 18 বছরের নিচে হলে অনলাইন জন্ম নিবন্ধন সনদ প্রয়োজন হবে। আর যদি 18 থেকে 20 বছর হয় তাহলে জাতীয় পরিচয় পত্র এনআইডি অথবা অনলাইন জন্ম নিবন্ধন সনদ প্রয়োজন হবে। আর যদি আপনার বয়স 20 বছরের বেশি হয়ে থাকে তাহলে অবশ্যই জাতীয় পরিচয় পত্র শুধু প্রয়োজন পড়বে।
  • পেশাগত প্রমাণপত্র বা পেশাগত সনদ প্রয়োজন হবে। যেমন- ছাত্র হলে স্টুডেন্ট আইডি কার্ড আর যদি আপনি চাকরি করে থাকেন তাহলে জব হোল্ডার কার্ড আর যদি আপনি ব্যবসা করে থাকেন তাহলে ব্যবসায় ট্রেড লাইসেন্স আর কৃষক হয়ে থাকলে জমির খতিয়ান।
  • ডাক্তার ইঞ্জিনিয়ার ড্রাইভার উকিল ও অন্যান্য পেশার লোকদের ক্ষেত্রেও পেশাগত যেকোনো ধরনের একটি সনদের প্রয়োজন হবে।
  • সরকারি চাকরিজীবীদের জন্য শুধুমাত্র এনওসি জমা দিলেই হবে।
  • সবার জন্য “নাগরিক সনদপত্র” প্রয়োজন হবে আপনি ইউপি নির্বাচন কমিশন থেকে নিয়ে আসতে পারবেন।
  • আপনি আপনার পাসপোর্ট নবায়নের সময় যদি স্বামী বা স্ত্রীর নাম যুক্ত করতে চান,তাহলে কাবিননামার সনদ প্রদান করতে হবে।
  • আগের আপনার পাসপোর্ট এর মূলকপি ও ডাটা পেজের ফটোকপি নিয়ে যেতে হবে।
  • আপনার বয়স যদি 18 বছরের নিচে হয়, তাহলে অবশ্যই আপনার পিতা মাতার জাতীয় পরিচয় পত্রের ফটোকপি লাগবে।
  • আর যদি আপনার বয়স 15 বছরের নিচে হয়, তাহলে অবশ্যই আবেদনকারীদের পিতা-মাতার পাসপোর্ট সাইজের ছবি অথবা বৈধ অভিভাবকের পাসপোর্ট সাইজের ছবি দিতে হবে।
  • আর যদি আপনার বয়স ছয় বছরের নিচে হয় সে ক্ষেত্রে পাসপোর্ট সাইজের ছবি ও 3r সাইজের সাদা ব্যাকগ্রাউন্ড এর ম্যাট পেপার এর ল্যাব প্রিন্ট রঙিন ছবি দিতে হবে।
  • এখন অনেকেরই প্রশ্ন থাকে আমি যদি আমার বর্তমান ঠিকানা থেকে বাহিরে কোথাও চাকরির বা কোন কাজের ক্ষেত্রে ভাড়া থাকি সে ক্ষেত্রে কি ধরনের কাগজপত্র প্রয়োজন হবে প্রমাণপত্র হিসাবে?
  • সে ক্ষেত্রে আপনি আপনার যে বাসায় ভাড়া থাকেন সেই বাসার অবশ্যই ইউটিলিটি বা গ্যাস বিল এই ধরনের একটি প্রমাণপত্র প্রয়োজন পড়বে।
  • আমি উপরে অফিশিয়ালি ভাবে যে সকল কাগজপত্র প্রয়োজন পড়ে থাকে সেগুলো দিয়ে দিলাম,তবে অনেক পাসপোর্ট অফিসের কর্মকর্তাদের ক্ষেত্রে এত কাগজপত্র প্রয়োজন নাও হতে পারে।

পাসপোর্ট নবায়ন ফি কত টাকা

পাসপোর্ট নবায়ন ফি কত টাকা? এই বিষয়টি নিয়ে অনেকে অনেক ধরনের দ্বিধাদ্বন্দ্ব থাকে এবং বিভিন্ন সময় দালাল চক্রের হাতে পরে ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে থাকেন।অনেকে হয়তো জানেন না, পাসপোর্ট রিনিউ করার ফি এবং নতুনভাবে পাসপোর্ট করার ফি একই। তবে এটি আবেদনের ধরন ও পাসপোর্ট এর পৃষ্ঠা সংখ্যার উপর ভিত্তি করে পাসপোর্ট রিনিউ ফি বিভিন্ন রকম হয়ে থাকে।

তাই আমি নিচে সরকারিভাবে একদম পাসপোর্ট নবায়ন ফি কত টাকা?সে বিষয়ে বিস্তারিত দিয়ে দিচ্ছি

পাসপোর্ট নবায়ন ফি কত টাকা
পাসপোর্ট নবায়ন ফি

পাসপোর্ট নবায়ন ফি জমা দেওয়ার নিয়ম

পাসপোর্ট নবায়ন করার জন্য যে ফি জমা প্রদান করতে হয়। সেটি কি নিয়মে? কিভাবে আপনি জমা প্রদান করবেন সে বিষয়ে এখন জানুন।

পাসপোর্ট নবায়ন ফি দুই ভাবে জমা প্রদান করা যায়।

১.ব্যাংকের রিইস্যু ফি জমা দেওয়ার মাধ্যমে

বর্তমানে বাংলাদেশের যতগুলি আপনার আশেপাশে ব্যাংক রয়েছে সবগুলোই ব্যাংকেই মোটামুটি এ চালান এর মাধ্যমে পাসপোর্ট এর টাকা জমা দিতে পারবেন।

তবে আপনি চেষ্টা করবেন ব্যাংকের হেল্পলাইন নাম্বারে কথা বলে তারপরে এ চালানের এই পাসপোর্ট এর টাকা জমা দেওয়ার জন্যা।

সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে নিচের এই ডকুমেন্টগুলো নিয়ে আপনি ব্যাংকে চলে যাবেন।

*আপনার ভোটার আইডি কার্ড বা জন্ম নিবন্ধন কার্ডের ফটোকপি যেটি দিয়ে আপনি পাসপোর্ট আবেদন করেছেন।

*পাসপোর্ট এর আবেদন এর সামারি পেজ।

*এবং ব্যাংকে ফর্ম দিবে সেই ফরমটি আপনি ফিলাপ করে দিবেন।

২.অনলাইনের মাধ্যমে নিজেই টাকা জমা দেওয়া।

এছাড়াও আপনি যদি চান আপনি নিজেই ঘরে বসে আপনার রকেট বিকাশ ডিবিবিএল নেক্সাস বা অন্যান্য ব্যাংকের ভিসা ও মাস্টার কার্ড দিয়ে অনলাইনের মাধ্যমে এ চালান এই পাসপোর্ট ফি জমা দিতে পারবেন।

আপনি যদি আপনার কম্পিউটারের মাধ্যমে এই পাসপোর্ট নবায়ন করার ফি জমা দিতে চান। তাহলে এই লিঙ্কে- https://ibas.finance.gov.bd/acs/general/sales এই ওয়েবসাইটে প্রবেশ করবেন এবং সেখান থেকে পাসপোর্ট ফি সিলেকশন করে আপনি আপনার পাসপোর্ট রিনিউ ফি অর্থাৎ আপনার পাসপোর্ট নবায়ন ফি তাদের রিকোয়ারমেন্ট অনুযায়ী তাদের তথ্যগুলির ফিলাপ করে আপনার ব্যাংকের তথ্য দিয়ে ফি প্রদান করতে পারবেন।

আপনি আপনার হাতে থাকা মোবাইল ফোনের মাধ্যমে ফি প্রদান করতে পারবেন। এ জন্য আমাদের দেওয়া লিঙ্ক থেকে আপনি প্রথমে আপনার এন্ড্রয়েড স্মার্ট মোবাইল ফোনে অ্যাপস টি ডাউনলোড করে নিন এবং অ্যাপস ডাউনলোড করা হয়ে গেলে অ্যাপস টি ওপেন করে সে পাসপোর্ট ফি সিলেকশন করে আপনি এই অ্যাপসে একটি আপনার একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করে নিন এবং তাদের রিকোয়ারমেন্ট অনুযায়ী সবকিছু প্রদান করে আপনি পেমেন্ট গেটওয়ের মাধ্যমে আপনি পেমেন্ট দিয়ে দিতে পারবেন।

এই উপরের দেওয়া দুইটি নিয়ম এর যেকোনো একটি নিয়ম ফলো করে, আপনার পেমেন্ট সম্পন্ন হলে। আপনি সেখান থেকে আপনার চালান ডাউনলোড করতে পারবেন। চালান ডাউনলোড করে প্রিন্ট করে নিন। চালান চাইলে ভেরিফাই করতে পারেন এই সাইট থেকে।

পাসপোর্ট নবায়ন আবেদন পত্র অফিসে জমা দেয়া

পাসপোর্ট নবায়নের আবেদন কপি পাসপোর্ট অফিসে জমা দেওয়া ও বায়োমেট্রিক এনরোলমেন্ট সম্পন্ন করতে হবে।

উপরে পাসপোর্ট নবায়ন করতে কি কি প্রয়োজন হয় সেগুলো আমি আলোচনা করেছি। সেগুলি সবকিছু নিয়ে এখন ফরম পূরণ করে। পাসপোর্ট পেমেন্ট করে। কাগজপত্র নিয়ে আপনার এপয়েন্টমেন্ট ডেটে আপনি পাসপোর্ট অফিসে চলে যান। সিরিয়াল ধরে কাগজ জমা দিন। কাউন্টারে সবকিছু ঠিক থাকলে তারা আপনার আবেদন জমা নিবে এবং কোন রুমে যেতে হবে সেটি বলে দিবে।রুম নাম্বার অনুযায়ী পাঠানো রুমে গিয়ে আপনার আঙ্গুলের ছাপ দিন, ছবি তুলুন,চোখের স্ক্যান এবং সিগনেচার দিয়ে একটি রশিদ দিবে সেটি নিয়ে ভালো করে দেখুন কোন ইনফরমেশন ভুল আছে কিনা।

এই রশিদ কপিতে আপনার পাসপোর্টের যে সকল ইনফরমেশন দেখাবে আপনার পাসপোর্ট এর নবায়নকৃত পাসপোর্টেও হবু হবু  প্রিন্ট হবে।

তাই আপনি এই রশ্মিতে যদি কোন ভুল দেখতে পান, তাহলে সঙ্গে সঙ্গে এই কর্মকর্তা বা দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কে জানান না ,হলে পাসপোর্ট প্রিন্ট হয়ে গেলে আর সংশোধন করার কোন অপশন থাকবে না।

এছাড়াও আপনার এই পাসপোর্ট নবায়ন কর্তৃক যদি কোনো রকম কোনো ঝামেলা বা হয়রানির শিকার হয়ে থাকেন। তাহলে ওই পাসপোর্ট অফিসের পরিচালকের সঙ্গে কথা বলুন। তারা অনেক হেল্প ফুল এবং সাহায্য করে থাকে। আপনি আপনার কেন্দ্রের কর্মকর্তার সাথে যোগাযোগ করতে এই লিস্টে থাকা ফোন নাম্বারে যোগাযোগ করতে পারেন।

পাসপোর্ট নবায়নের জন্য পুলিশ ভেরিফিকেশন

পাসপোর্ট নবায়নের আবেদনের ক্ষেত্রে সাধারণত পুলিশ ভেরিফিকেশন হয়না। তবে পুলিশ ভেরিফিকেশন হতে পারে নিম্নোক্ত ক্ষেত্রে-

যদি আপনি স্থায়ী ঠিকানা পরিবর্তন করেন এছাড়া আপনি যদি কোনো বিশেষ পরিবর্তন করেন, তাহলে পাসপোর্ট অফিস থেকে চাইলে পুলিশ ভেরিফিকেশন করতে পারে। কিন্তু এটা খুব রেয়ার।

পাসপোর্ট নবায়ন আবেদনের স্ট্যাটাস চেক

এখন তো মোটামুটি আপনার সব কাজ হয়ে গেল, এখন আপনি আপনার পাসপোর্ট নবায়নের আবেদন কপি কি অবস্থায়  রয়েছে এবং কি পর্যায়ে আপনার কাজটি করছে, তারা অপডেট স্টাটাস চেক করার জন্য নিম্নের এই ওয়েব সাইটের লিংকটি আপনি প্রথমে ওপেন করবেন।

লিংক- https://www.epassport.gov.bd/authorization/application-status

এই ওয়েবসাইট ওপেন করার পর। আপনার সামনে একটি উইন্ডো বা হোম পেজ আসবে। সেখানে দেখতে পাবেন “অনলাইন রেজিস্ট্রেশন আইডি” এখানে আপনি আপনার অনলাইন রেজিস্ট্রেশন আইডি দিয়ে দিবেন অথবা আপনি “অ্যাপ্লিকেশন আইডি” আপনি যে আপনার পাসপোর্ট নবায়ন আবেদন করেছেন তার একটি আইডি নাম্বার রয়েছে। সে আইডিটি দিয়ে দিবেন। এরপরে নিচের দিকে আসলে আপনি আপনার সিলেট অফ বার্থ” অর্থাৎ আপনার “জন্ম তারিখ” সিলেক্ট করে দিবেন এবং এখান থেকে একটি ক্যাপচা আসবে ক্যাপচাটি পূরণ করে দিয়ে “চেক” এই অপশনটির উপরে ক্লিক করলে আপনি আপনার পাসপোর্ট এর আপডেট পেয়ে যাবেন।

পাসপোর্ট নবায়ন করার নিয়ম
পাসপোর্ট নবায়ন করার নিয়ম

এছাড়াও আপনি চাইলে আপনার মোবাইলের মাধ্যমে এসএমএস করেও আপনার পাসপোর্ট নবায়নের স্ট্যাটাস চেক করতে পারবেন,মেসেজ করতে EPP স্পেস দিয়ে “অ্যাপ্লিকেশন আইডি” লিখে মেসেজ করুন 26969 নাম্বারে । ফিরতি মেসেজে আপনার পাসপোর্ট এর বর্তমান অবস্থা আপডেট পেয়ে যাবেন।

আশা করছি আপনি আপনার পাসপোর্ট নবায়নের যে স্ট্যাটাস চেক করার নিয়ম টি সহজ ভাবে বুঝে গিয়েছেন।

পাসপোর্ট নবায়ন আবেদনের পাসপোর্ট সংগ্রহ করা

এখন সবকিছু যদি ঠিকঠাক থাকে তাহলে পাসপোর্ট নবায়ন আবেদনের যে পাসপোর্টটি আপনি পেয়ে থাকবেন সেটি কীভাবে সংগ্রহ করবেন সে বিষয়ে একটু জেনে নিন।

পাসপোর্ট নবায়ন আবেদনের নতুন পাসপোর্ট সংগ্রহ করার জন্য আপনাকে যে কাজটি করতে হবে। তা হচ্ছে প্রথমেই আপনার যদি সবকিছু ঠিকঠাক থেকে থাকে। তাহলে আপনার মোবাইল ফোনে একটি এসএমএস চলে আসবে। যে আপনার পাসপোর্টটি সম্পূর্ণরূপে রেডি রয়েছে। আপনি যেকোনো সময় পাসপোর্ট অফিসে গিয়ে আপনার পাসপোর্টটি সংগ্রহ করুন।

তখন আপনি আপনার ডেলিভারি স্লিপ, আইডি কার্ড, ও আগের পাসপোর্টগুলো নিয়ে পাসপোর্ট সংগ্রহ করতে পাসপোর্ট অফিসে যাবেন। এগুলো যদি আপনি নিয়ে না যান তাহলে আপনাকে পাসপোর্টটি তারা ডেলিভারি করবে না এবং সরাসরি আপনার নিজের পাসপোর্ট এর জন্য নিজে পাসপোর্ট অফিসের পাসপোর্ট সংগ্রহ করার জন্য যেতে হবে।

আশা করছি আপনার নবায়নকৃত পাসপোর্ট কিভাবে সংগ্রহ করবেন সে বিষয়টি পুরোপুরি ভাবে বুঝে গিয়েছেন।

এম আর পি পাসপোর্ট নবায়ন

অনলাইনে এমআরপি পাসপোর্ট নবায়ন করার ক্ষেত্রে আপনাকে অবশ্যই কিছু নিয়ম অনুসরণ করতে হবে। কি নিয়মগুলো অনুসরণ করবেন এবং কিভাবে অনলাইনে ঘরে বসে আপনার এমআরপি পাসপোর্ট নবায়ন করবেন সে বিষয়ে চলুন জেনে নিই।

এমআরপি পাসপোর্ট নবায়ন করার জন্য প্রথমে আপনি আপনার ডিভাইস থেকে এই ঠিকানার এই ওয়েবসাইটে প্রবেশ করুন। এই ওয়েবসাইটে প্রবেশ করার পর আপনি একটি অপশন দেখতে পাবেন “আইডি ডকুমেন্ট”  অপশনটির উপরে ক্লিক করলে আপনার সামনে আরেকটি বক্স এবং বিভিন্ন রকম বক্স চলে আসবে সেখান থেকে আপনি “yes I have a machine readable passport” এ টিক দিন এবং সকল তথ্য গুলো সঠিকভাবে পূরণ করুন ।

পাসপোর্ট নবায়ন করার নিয়ম

এরপরে আপনি what is the reason for your passport request? এখান থেকে Arrow চিহ্ন টি ক্লিক করে পাসপোর্ট নবায়ন করার কারণ উল্লেখ করে দিন।

এর পরে আপনি আপনার পাসপোর্ট এর নাম্বারটি লিখুন। এবং পাসপোর্ট নাম্বার হয়ে গেলে। তারিখ এবং পাসপোর্ট প্রদানের তারিখ উল্লেখ করুন। এসব তথ্য গুলো সঠিকভাবে দিয়ে সাবমিট করুন বাকি তথ্য  ই-পাসপোর্ট আবেদন এর মতই সম্পন্ন করুন এবং সাবমিট করুন।

এছাড়াও আপনি চাইলে পাসপোর্ট অফিসে সরাসরি গিয়েও। এমআরপি পাসপোর্ট নবায়ন করবেন এ বিষয়টি বললে কর্মকর্তারা আপনাকে সাহায্য করবে এবং সরাসরি আপনি এই এমআরপি পাসপোর্ট নবায়ন করতে পারবেন।

ইনশাল্লাহ উপরের এই নিয়মগুলো অনুসরণ করলে খুব সহজেই আপনি এমআরপি পাসপোর্ট নবায়ন করতে পেরে যাবেন।

সর্বোপরি আপনাকে বা আপনাদেরকে একটি কথাই বলবো। আপনি আপনার পাসপোর্ট নবায়ন করার ক্ষেত্রে উপরের এই নিয়ম গুলি যদি সঠিকভাবে অনুসরণ করেন। তাহলে আপনি আপনার পাসপোর্ট নবায়নের ক্ষেত্রে বিন্দু পরিমানও আপনি বিভ্রান্তিকর অবস্থায় পড়তে হবে না। এছাড়াও যদি পাসপোর্ট নবায়ন সম্পর্কিত অন্য কোন তথ্য জানার প্রয়োজন পড়ে থাকে। তাহলে আমাদের এই পোষ্টের কমেন্ট বক্সে আপনি প্রশ্ন করবেন? আশা করছি আমার জানা থাকলে আপনাকে খুব দ্রুত উত্তর দিয়ে আপনাকে সহযোগিতা করব ইনশাল্লাহ।

সবসময় জিজ্ঞাসিত প্রশ্নাবলী

পাসপোর্ট নবায়ন করার সময় স্থায়ী ঠিকানা কি কোনো পরিবর্তন করা যাবে?

পাসপোর্ট নবায়ন করার ক্ষেত্রে আপনি আপনার স্থায়ী ঠিকানা পরিবর্তন করতে পারবেন না। তবে যদি বর্তমান ঠিকানা চাইলে আপনি পরিবর্তন করতে পারবেন। তার জন্য যথেষ্ট পরিমাণ প্রমাণপত্র হিসাবে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র জমা দিতে হবে

অনলাইনে যদি আমি আমার পাসপোর্ট নবায়নের ফি পরিশোধ করি তাহলে রশিদ কিভাবে দেখতে পাবো?

অনলাইনে পাসপোর্ট ফি পরিশোধ করলে ফি পরিশোধের ট্রানজেকশন আইডি ব্যবহার করতে পারবেন।

ছোট বাচ্চাদের পাসপোর্ট নেওয়ার জন্য কি বাচ্চাদেরকে সশরীরে উপস্থিত থাকতে হয়?

১১ বছরের কম বছরের বাচ্চাদের পাসপোর্ট চাইলে তার পিতা-মাতা বা বৈধ অভিভাবক সংগ্রহ করতে পারবে। এক্ষেত্রে পিতা-মাতা বা অভিভাবককে নিজের জাতীয় পরিচয়পত্র, পাসপোর্ট সংগ্রহের রশিদ ও পুরাতন মেশিন রিডেবল পাসপোর্ট প্রদর্শন করতে হবে।

কেউ যদি অসুস্থ থাকে এবং পাসপোর্ট সংগ্রহ করতে যেতে না পারে তার করণীয় কি?

কেউ পাসপোর্ট সংগ্রহ করতে উপস্থিত হতে না পারলে তাকে একটি ক্ষমতা হস্তান্তরের আবেদন পত্র লিখতে হবে। এরপর অন্য কোন ব্যাক্তি ও ক্ষমতা হস্তান্তর পত্র পুরাতন মেশিন রিডেবল পাসপোর্ট আবেদনকারীর জাতীয় পরিচয় পত্র, ই-পাসপোর্ট সংগ্রহের প্রদর্শন করে পাসপোর্ট সংগ্রহ করতে পারবেন। তবে সেক্ষেত্রে অনেক ধরনের ঝামেলা পোহাতে হবে। এজন্য আপনি চেষ্টা করবেন সশরীরে আপনার পাসপোর্টটি সংগ্রহ করতে।

আপনার জন্য-

পাসপোর্ট দিয়ে ভ্যাকসিন নিবন্ধন করার সঠিক নিয়ম

SS IT BARI– ভালোবাসার টেক ব্লগের যেকোন ধরনের তথ্য সম্পর্কিত আপডেট পেতে আমাদের মেইল টি সাবস্ক্রাইব করে রাখুন।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join ৪২৮ other subscribers

pp

SS IT BARI-ভালোবাসার টেক ব্লগ টিম