দারাজ অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করে আয় করুন-নতুন নিয়মে(বাংলাদেশী সাইট)

দারাজ অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং সম্পর্কে প্রায় কম বেশি সবাই জানেন। বাংলাদেশের একটি জনপ্রিয় ই-কমার্স ওয়েবসাইট দারাজ থেকে অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করেও আয় করা সম্ভব। দারাজ অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং প্রোগ্রামের মাধ্যমে দারাজ তালিকাভুক্ত পণ্যের প্রচার করে যে কেউ টাকা উপার্জন করতে পারে। চলুন জেনে নেওয়া যাক কিভাবে নতুন নিয়মে দারাজ অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং থেকে আয় করা যায় এবং অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং সম্পর্কে খুঁটিনাটি সকল বিষয়

অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং কি

আগে যেনে নিন অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং আসলে কি? অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং থেকে অর্থ উপার্জন করার আগে অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং সম্পর্কে একটি সাধারণ ধারণা থাকা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং হল মূলত অন্য কোম্পানির পণ্যের নিজস্ব ওয়েবসাইট, সোশ্যাল মিডিয়া, ইউটিউব চ্যানেল ইত্যাদিতে প্রচার করা এবং সেখান থেকে বিক্রিত পণ্যের উপর কমিশন পাওয়া।

?জিপি স্কিটো সিমের সুবিধা সহ বিস্তারিত অফার সুমহ যেনে নিন

আরও ভাল করে যদি বলে- আপনি যদি দারাজের একজন অ্যাফিলিয়েট অংশীদার হন, তাহলে আপনার নিজস্ব ওয়েবসাইটের মাধ্যমে দারাজে বিক্রি হওয়া প্রতিটি পণ্যের জন্য আপনি একটি নির্দিষ্ট পরিমাণ কমিশন পাবেন । খুব দ্রত আমাদের এই আস আস আইটি বারি ডট কমে অনলাইন শপিং করুন বলে অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং একটা ক্যাটাগরি চালু করা হবে ,তাই আমাদের সঙ্গে থাকুন সব সময়।

দারাজ অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করে আয় করুন
দারাজ অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করে আয় করুন

দারাজ অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং আসলে কী?

আসলে সব ওয়েব সাইটের অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং শর্ত গুলো কম বেশি একই,তারপরও যেহেতু  আজকের লিখাটি বাংলাদেশের সব চাইতে বড় অনলাইন শপ দারাজকে নিয়ে তাই দারাজ অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং কি সে সম্পর্কে ভালভাবে আগে যেনে নেয়া দরকার।

?? গুগল নিউজে সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন

দারাজ বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় অনলাইন মার্কেটপ্লেস। যেখানে বর্তমানে এক লাখ ৫০ হাজারের বেশি পণ্য রয়েছে। আপনি যদি আপনার বা আপনার সাইটের রেফারেন্স সহ দারাজ পণ্য বিক্রি করেন তবে আপনি কিছু কমিশন পাবেন। এটিকে দারাজ অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং বলা হয়।

দারাজ অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করে কি পরিমাণ ইনকাম হবে?

আসলে আমার নিজের অভিজ্ঞতা থেকে বললে বলবো, যেকোনো ধরণের ইনকামই নির্ভর করে নিজের কাজের আগ্রহ এবং প্লান থেকে। এরপর ও দারাজ অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং এরও একটা কমিশন % রয়েছ।

দারাজ অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করে কি পরিমাণ ইনকাম হবে

দারাজ থেকে অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং থেকে আয়ের পরিমাণ নির্ভর করে আপনি রেফারেন্সের মাধ্যমে যে পণ্যটি বিক্রি করছেন তার উপর। ফ্যাশন পণ্যে সর্বোচ্চ 12% কমিশন পাওয়া সম্ভব, যা দারাজ অ্যাফিলিয়েট প্রোগ্রামের ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ।

?অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করে আয় করুন–নতুনদের জন্য

আপনি যদি আপনার ওয়েবসাইটের মাধ্যমে দশ হাজার টাকার ফ্যাশন পণ্য বিক্রি করেন, আপনার কমিশন হবে 10000×7% = 600 টাকা। 15টির বেশি পণ্য বিক্রি করলে 1% বেশি কমিশন পাবেন। ফলে আপনার মোট কমিশন হবে 1000 টাকা।এভাবে আপনি যত পণ্য সেল করবেন তত ইনকাম হবে।তাই আজকে থেকেই শুরু করুন দারাজ অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং।

দারাজ অ্যাফিলিয়েট অ্যাকাউন্ট করার নিয়ম

আপনি যদি অ্যাফিলিয়েট প্রোগ্রামের মাধ্যমে দারাজ থেকে অর্থ উপার্জন করতে চান, আপনার দারাজ অ্যাফিলিয়েট অ্যাকাউন্ট প্রয়োজন। দারাজ অ্যাফিলিয়েট অ্যাকাউন্ট খোলা বেশ সহজ। দারাজ অ্যাফিলিয়েট অ্যাকাউন্ট খুলতে:

দারাজ অ্যাফিলিয়েট অ্যাকাউন্ট করার নিয়ম
দারাজ অ্যাফিলিয়েট অ্যাকাউন্ট করার নিয়ম
  • প্রথমে দারাজ অ্যাফিলিয়েট অ্যাকাউন্ট তৈরি পৃষ্ঠায় প্রবেশ করতে এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।
  • SIGN UP NOW বাটনে ক্লিক করুন, Next বাটনে ক্লিক করুন।
  • পরবর্তী পদক্ষেপটি সমস্ত প্রয়োজনীয় তথ্য জিজ্ঞাসা করা এবং একটি ফর্ম দেখতে হবে।
  • এই ফর্মে আপনার ইমেল আইডি, ব্যবসার ধরন, মাস-থেকে-মাসের ট্রাফিক ইত্যাদি সঠিকভাবে লিখুন।
  • আপনার ব্যাংক অ্যাকাউন্টের তথ্য সঠিকভাবে এবং সাবধানে প্রদান করুন।
  • সঠিক ট্যাক্স এবং ভ্যাট তথ্য প্রদান করুন।

    অ্যাফিলিয়েট প্রোগ্রামের মাধ্যমে দারাজ থেকে অর্থ উপার্জন
    অ্যাফিলিয়েট প্রোগ্রামের মাধ্যমে দারাজ থেকে অর্থ উপার্জন
  • তারপর আপনার কাছে দারাজ ক্রেতা অ্যাকাউন্টের প্রয়োজনীয় তথ্য চাওয়া হবে।
  • অনুগ্রহ করে সঠিক তথ্য প্রদান করুন যেমন দারাজ ক্রেতার অ্যাকাউন্টের ধরন, ব্যবসার নাম, ফোন নম্বর, জাতীয় নিবন্ধন নম্বর বা সরকারী ইস্যুকৃত আইডি নম্বর, ডাক ঠিকানা ইত্যাদি।
  • দারাজ অ্যাফিলিয়েট প্রোগ্রামের শর্তাবলীতে সম্মত হতে হ্যাঁ বোতামে ক্লিক করুন এবং তারপরে পরবর্তী ধাপে যান।
  • Submit এ ক্লিক করে দারাজ অ্যাফিলিয়েট অ্যাকাউন্ট খোলার ফর্ম জমা দিন।
  • উপরে উল্লিখিত পদ্ধতি সঠিকভাবে অনুসরণ করলে আপনার দারাজ অ্যাফিলিয়েট অ্যাকাউন্ট খুলবে যাবে।

দারাজ অ্যাফিলিয়েট একাউন্ট খোলার জন্য কি দরকার হবে?

অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং থেকে অর্থ উপার্জনের জন্য কিছু প্রয়োজনীয় জিনিস থাকা জরুরি। আপনি দারাজ থেকে অ্যাফিলিয়েট করে টাকা উপার্জন করতে হলে যা দরকারঃ-

  • পণ্যের প্রচারের জন্য নিজস্ব ওয়েবসাইট/ফেসবুক পেজ/ইউটিউব চ্যানেল।
  • দারাজ অ্যাফিলিয়েটের মাধ্যমে অর্জিত অর্থ উত্তোলনের জন্য ব্যাংক অ্যাকাউন্ট।
  • অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান।
  • কাস্তমার এর সঙ্গে প্রপার কমিনিকেসান ।

দারাজ অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করতে কি পরিমাণ সময় ব্যয় করতে হবে?

দারাজ অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং এর মাধ্যমে অর্থ উপার্জন করতে আপনাকে কতটা সময় ব্যয় করতে হবে তা নির্ভর করে আপনার প্রচার মিডিয়ার অবস্থা যেমন সোশ্যাল মিডিয়া/ওয়েবসাইট/চ্যানেলের উপর। উদাহরণস্বরূপ, যদি আপনার চ্যানেল/পৃষ্ঠা বা ওয়েবসাইটে পর্যাপ্ত ফলোয়ার থাকে তবে আপনি শুধুমাত্র লিঙ্ক প্রদান করে বিক্রয় তৈরি করতে পারেন। আবার, যদি আপনার কিছু ফলোয়ার থাকে, তাহলে আপনাকে কন্টেন্টে সেল তৈরি করতে আলাদা সময় বিনিয়োগ করতে হবে।

?ফ্রিল্যান্সিং করার জনপ্রিয় ওয়েবসাইট

দারাজের মতে, দারাজ অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিংয়ের জন্য বিশেষজ্ঞ মার্কেটারদের সর্বোচ্চ এক থেকে দুই ঘণ্টা সময় লাগবে। নতুন মার্কেটারদের শুরুতে একই লক্ষ্য অর্জন করতে তিন থেকে পাঁচ ঘণ্টা সময় লাগতে পারে। আপনি যদি সময় দিতে পারেন এবং সঠিকভাবে পণ্যের প্রচার করতে পারেন, তাহলে আপনি প্রতি মাসে 10 হাজার থেকে 20 হাজার টাকা বা তার বেশি আয় করতে পারেন।

দারাজ অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং থেকে আয় করার নিয়ম

  • দারাজ থেকে অর্থ উপার্জন করতে, আপনাকে প্রথমে একজন দারাজ অ্যাফিলিয়েট পার্টনার হতে হবে, যার জন্য একটি দারাজ অ্যাফিলিয়েট অ্যাকাউন্ট প্রয়োজন হবে। দারাজ অ্যাফিলিয়েট অ্যাকাউন্ট খোলার নিয়ম আমরা ইতিমধ্যেই জানি। প্রথমে, একটি অ্যাফিলিয়েট অ্যাকাউন্ট খুলুন।
  • একবার দারাজ অ্যাফিলিয়েট অ্যাকাউন্ট খোলা হয়ে গেলে, partar.net.daraz.com লিঙ্কে প্রবেশ করুন এবং দারাজ অ্যাফিলিয়েট পার্টনার ড্যাশবোর্ডে প্রবেশ করুন। প্রয়োজনে আপনার ইমেইল ঠিকানা এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে লগইন করুন।
  • AD MEDIA-এ ক্লিক করুন, TYPE নির্বাচন করুন এবং ADJUST-এ ক্লিক করুন।
  • তারপর সার্চ ট্যাবে ক্লিক করার পর আপনি একটি লিঙ্ক দেখতে পাবেন, CLICK URL এ ক্লিক করুন এবং লিঙ্কটি কপি করুন। এই URL প্রচার করুন এবং একটি অধিভুক্ত প্রচারাভিযান চালান.
  • আপনি যে লিঙ্কটি পেয়েছেন সেটিতে ক্লিক করলে, যে ব্যক্তি সেটিতে ক্লিক করেছেন তিনি সরাসরি দারাজ অ্যাপে প্রবেশ করবেন যদি ফোনে দারাজ অ্যাপ থাকে। আর যদি দারাজ অ্যাপ না থাকে, তাহলে সেই ব্যক্তি লিংকে ক্লিক করার পর প্লেস্টোরে প্রবেশ করবে। লিঙ্কে প্রবেশ করার পরে, আপনি অ্যাপ থেকে কেনাকাটার জন্য কমিশন পাবেন।
  • এক কথায়, দারাজ থেকে টাকা উপার্জন করার জন্য, আপনার কাজ হল আপনার সোশ্যাল মিডিয়া, ওয়েবসাইট বা YouTube চ্যানেলে প্রাপ্ত URL বা লিঙ্ক প্রচার করা। যদি কেউ এই লিঙ্কে ক্লিক করে এবং দারাজ থেকে কিছু কিনে, টাকা আপনার দারাজ অ্যাফিলিয়েট অ্যাকাউন্টে জমা হয়ে যাবে।
  • এছাড়াও, যে ব্যক্তি লিঙ্কটিতে ক্লিক করেছেন তার ফোনে যদি দারাজ অ্যাপ না থাকে এবং সেই ব্যক্তি আপনার লিঙ্কে ক্লিক করে দারাজ অ্যাপ ইনস্টল করেন, তাহলে আপনি শর্ত সাপেক্ষে অ্যাপ ইনস্টল করার জন্য 20 টাকা কমিশন পেতে পারেন।

উল্লেখ্য যে দারাজ কর্তৃপক্ষ যে কোনো সময় দারাজ অ্যাফিলিয়েটের শর্তাবলী এবং কমিশনের হার পরিবর্তন করতে পারে। তাই অ্যাফিলিয়েট হিসেবে নিবন্ধন করার পর, আপনি দারাজ দলে যোগদানের সর্বশেষ আপডেট জানতে পারবেন।

দারাজ হেল্প লাইন নাম্বার

দারাজ হেল্প লাইন নাম্বার

আপনি চাইলে আপনার যেকোনো প্রয়োজনে দারাজ এর হেল্প সেন্টার এ কথা বলে অথবা লাইভ চ্যাট এর মাধ্যমে আপানার সমস্যা সমাধান করে নিতে পারেন এই লিঙ্ক থেকে দারাজ এর সহযোগিতা নিন।

?স্মার্ট মোবাইল ফোন ব্যবহার করে ঘরে বসেই ইনকাম করুন।

?অনলাইনে টাকা আয় করার অ্যাপ

?ড্রপশিপিং বিজনেস থেকে আয় করে কিভাবে?

?ফেসবুক প্রোফাইল থেকে টাকা আয়ের উপায়? 

?ইনস্টাগ্রাম এর মাধ্যমে প্রতি মাসে হাজার হাজার টাকা উপার্জনের সুযোগ

?ফ্রিল্যান্সার ডটকম থেকে আয়ের উপায়

?ফ্রিল্যান্সিং কাজ করার জন্য কিসের প্রয়োজন

সকল বিষয়  যানতে  আমাদের এই ওয়েব সাইটের ইমেইল সাবঃ করে সঙ্গে থাকন ।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join ৪২৮ other subscribers

pp

SS IT BARI-ভালোবাসার টেক ব্লগ টিম

Leave a Reply

Your email address will not be published.