ট্রাস্ট ব্যাংকের নিজস্ব মোবাইল ব্যাংকিং সার্ভিস- ট্রাস্ট ব্যাংক মোবাইল ব্যাংকিং সার্ভিস

ট্রাস্ট ব্যাংকের নিজস্ব মোবাইল ব্যাংকিং সার্ভিস-বর্তমানে বাংলাদেশের বেসরকারি ব্যাংক খোলার মধ্য ট্রাস্ট ব্যাংক অন্যতম। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির যুগে গ্রাহকদের সুবিধার কথা মাথায় রেখে ট্রাস্ট ব্যাংক গ্রাহকদের ঘরে বসে টাকা লেনদেনের জন্য নিজস্ব মোবাইল ব্যাংকিং সার্ভিস চালু করেছে।ট্রাস্ট ব্যাংকের এই নিজস্ব মোবাইল ব্যাংকিং সার্ভিস এর মাধ্যমে ট্রাস্ট ব্যাংকের গ্রাহকরা ঘরে বসেই ব্যাংকিং সেবা নিতে পারবে। ট্রাস্ট ব্যাংকের সকল সুবিধা গুলো মোবাইল ব্যাংকিং এর মাধ্যমে গ্রাহকরা ঘরে বসেই ভোগ করবে। ট্রাস্ট ব্যাংকের মোবাইল ব্যাংকিং সার্ভিস একটি প্রশংসনীয় কাজ। ট্রাস্ট ব্যাংকের মোবাইল ব্যাংকিং পরিষেবা গ্রাহকদের সর্বোচ্চ সুবিধা প্রদান করায় অঙ্গীকারবদ্ধ।ট্রাস্ট ব্যাংকের নিজস্ব মোবাইল ব্যাংকিং সার্ভিস

আসসালামু আলাইকুম ওয়া রাহমাতুল্লাহি ওয়া বারাকাতুহু। সুপ্রিয় পাঠক পাঠিকা বন্ধুরা আজকের আর্টিকেলে সবাইকে স্বাগতম। আশা করছি আপনারা সকলে ভালো আছেন। বরাবরের মতো আজকেও আমি চলে এসেছি একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ের আর্টিকেল নিয়ে। ট্রাস্ট ব্যাংক মোবাইল সার্ভিস সম্পর্কে যারা জানতে চান তারা অবশ্যই আজকের আর্টিকেলটি মনোযোগ দিয়ে শেষ পর্যন্ত পড়ে আমাদের সাথেই থাকবেন।

ট্রাস্ট ব্যাংক মোবাইল ব্যাংকিং সার্ভিস

বর্তমানে আধুনিক যুগে মোবাইল ফিনান্সিয়াল অথবা মোবাইল ব্যাংকিং একটি অন্যতম আধুনিক প্রযুক্তি হিসেবে পরিচিত। অনেক ব্যাংকেই বর্তমানে মোবাইল ব্যাংকিং পরিষেবা চালু করে গ্রাহকদের অত্যধিক সুবিধা প্রদান করছে। বাংলাদেশের অন্যতম স্বনামধন্য বেসরকারি ব্যাংক প্রতিষ্ঠান ট্রাস্ট ব্যাংক লিমিটেড। ট্রাস্ট ব্যাংক অন্যান্য ব্যাংকের মতো মোবাইল ব্যাংকিং পরিষেবা চালু করেছে। ট্রাস্ট ব্যাংকের এই পরিষেবা চালু করায় গ্রাহকরা উপকৃত হয়েছে। ট্রাস্ট ব্যাংকের সকল গ্রাহকরা ঘরে বসেই মোবাইল ব্যাংকিং সার্ভিসটি উপভোগ করতে পারবে। ট্রাস্ট ব্যাংক মোবাইল ব্যাংকিং একাউন্ট খোলা যাবে ফ্রিতে।

ট্রাস্ট ব্যাংক মোবাইল ব্যাংকিং একাউন্ট খোলার নিয়ম

ট্রাস্ট ব্যাংক মোবাইল ব্যাংকিং একাউন্ট খোলা যায় ২ ভাবে।

১) এজেন্টের কাছ থেকে।

২) ঘরে বসে নিজেই।

ঘরে বসে নিজে নিজে ট্রাস্ট ব্যাংক মোবাইল ব্যাংকিং একাউন্ট খুলতে যা করতে হবে

ধাপ-১: প্রথমে আপনার স্মার্ট ফোন থেকে গুগল প্লে স্টোরে গিয়ে ট্রাস্ট মানি অ্যাপটি ইন্সটল করুন।

ধাপ-২: তারপর অ্যাপসটি ওপেন করে রেজিস্টার বাটনে ক্লিক করুন।

রকেট মোবাইল ব্যাংকিং এর কাস্টমার কেয়ার নাম্বার ও ঠিকানা-নতুন আপডেট

ধাপ-৩: রেজিস্টার বাটনে ক্লিক করার পর আপনার মোবাইল স্ক্রিনে একটি ফরম দেখাবে।

ধাপ-৪: আপনার ট্রাস্ট ব্যাংক একাউন্ট খোলার জন্য মোবাইল নাম্বার ইমেইল এড্রেস এবং একাউন্ট নাম্বার দিয়ে ফর্মটি সাবমিট করুন।

ধাপ-৫: এরপর আপনার জাতীয় পরিচয় পত্র দিয়ে এবং সেলফ এর মাধ্যমে একাউন্ট ভেরিফাইড করে নিন।

ট্রাস্ট ব্যাংক মোবাইল ব্যাংকিং এর সুবিধা

ট্রাস্ট ব্যাংক মোবাইল ব্যাংকিং পরিষেবা হওয়াতে গ্রাহকের বিভিন্ন ধরনের সুবিধা হয়েছে। গ্রাহক ট্রাস্ট ব্যাংক মোবাইল ব্যাংকিং এর মাধ্যমে কি কি সুবিধা ভোগ করছে সে সম্পর্কে দেখে নিন;

১) সঞ্চয় জমা দেওয়া ও লেনদেন করা।

২) ইউটিলিটি বিল পরিশোধ করা।

৩) বীমার কিস্তি।

৪) ৫৬ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ফি পরিশোধ করা।

৫) রেমিট্যান্স গ্রহণ করা।

৬) অনলাইন মার্চেন্ট পেমেন্ট করা।

৭) জাতীয় পরিচয় ফি পরিশোধ করা।

৮) পাসপোর্টের ফি পরিশোধ করা।

৯) সকল ধরনের মোবাইল ফোন অপারেটরের রিচার্জ করা।

১০) ভিসা মাস্টার কার্ড থেকে বিকাশে হিসাবে টাকা আনার সুযোগ।

১১) তিন বাহিনীর নিয়োগ সংক্রান্ত ফি জমা দেওয়া।

ট্রাস্ট ব্যাংক একাউন্ট থেকে বিকাশ একাউন্টে টাকা লেনদেন

ব্যাংক থেকে বিকাশে টাকা পাঠানোর জন্য বিকাশ অ্যাপের অ্যাডমানি অপশন থেকে ব্যাংক টু বিকাশ অপশনে যেতে হবে। ব্যাংক টু বিকাশ থেকে ট্রাস্ট ব্যাংকের লোগো ক্লিক করে ট্রাস্ট মানি অ্যাপের লিংক পেয়ে যাবে গ্রাহকরা।

কোন গ্রাহক চাইলে সরাসরি ট্রাস্ট ব্যাংকের অ্যাপস এ ঢুকে সেন্ড মানি অপশন থেকে বিকাশ অপশনটি সিলেক্ট করে গ্রাহকের বিকাশ একাউন্টের নাম্বার দিয়ে এবং গ্রাহকের ট্রাস্ট ব্যাংকের পাসওয়ার্ড দিয়ে সেন্ড মানি সম্পূর্ণ করতে পারবেন।

গুগল নিউজে SS IT BARI সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন

এভাবে অল্প সময়ের মধ্যেই ট্রাস্ট ব্যাংক থেকে বিকাশে আপনার টাকা ট্রান্সফার হয়ে যাবে কোন রকম চার্জ ব্যতীত।এরি সাথে গ্রাহকের লেনদেন সম্পূর্ণ হলে এসএমএস এর মাধ্যমে গ্রাহককে জানিয়ে দেওয়া হবে তার টাকা ট্রান্সফার সফল হয়েছে।

ট্রাস্ট ব্যাংক মোবাইল ব্যাংকিং হেল্পলাইন

অনেক সময় দেখা যায় গ্রাহকের অ্যাকাউন্ট সংক্রান্ত বিভিন্ন ধরনের জটিল ত্রুটি সৃষ্টি হয় যা নিজে নিজে সমাধান করা সম্ভব হয় না। এই সমস্ত সমস্যার সমাধানের জন্য রয়েছে ট্রাস্ট ব্যাংক মোবাইল ব্যাংকিং এর হেল্পলাইন নম্বর। তবে ট্রাস্ট ব্যাংক মোবাইল ব্যাংকিং গ্রাহক রাও ট্রাস্ট ব্যাংক পূবাল ব্যাংকিং এ হেল্পলাইন নম্বর সম্পর্কের না জানতে পারে।

ট্রাস্ট ব্যাংক মোবাইল ব্যাংকিং থেকে একদিনে ২৪ ঘন্টা সপ্তাহের সাত দিন গ্রাহকরা টাকা লেনদেন করতে পারে। গ্রাহকের সমস্ত সমস্যার সমাধান দেওয়ার জন্য ট্রাস্ট ব্যাংক মোবাইল ব্যাংকিং এর যে হেল্পলাইন নাম্বারটি রয়েছে সেটি হলো; ১৬২০১।এই হেল্পলাইন নম্বরটিতে কল করে ট্রাস্ট ব্যাংক মোবাইল ব্যাংকিং গ্রাহকরা তাদের অ্যাকাউন্ট সংক্রান্ত এছাড়াও অন্যান্য যেকোনো সমস্যার সমাধান সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারে।

বর্তমানে অন্যান্য মোবাইল ব্যাংকিং সার্ভিস গুলোর সাথে সাথে ট্রাস্ট ব্যাংক মোবাইল ব্যাংকিং সার্ভিসটিও সমানতালে তাল মিলিয়ে গ্রাহকদের সুবিধা প্রদান করছে। গ্রাহকদের সুবিধা প্রদান করার কারণে গ্রাহকদের কাছে ট্রাস্ট ব্যাংক মোবাইল ব্যাংকিং এর গ্রহণযোগ্যতা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। যেকোনো সময় যে কোন দিন যে কোন স্থান থেকে ট্রাস্ট ব্যাংক মোবাইল ব্যাংকিং এর মাধ্যমে একজন গ্রাহক লেনদেন করতে পারে তার মোবাইল ফোনটির সাহায্যে। এতে করে গ্রাহকের টাকা লেনদেন করা খুবই সহজ হয়ে গেছে।

গ্রাহককে কষ্ট করে দৌড়াদৌড়ি করে ব্যাংকে গিয়ে তার ব্যাংকিং কার্যকলাপ গুলো সম্পন্ন করতে হয় না। মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে ঘরে বসেই ব্যাংকের কাজগুলো সম্পূর্ণ করা সম্ভব হচ্ছে।তাই আপনি যদি ট্রাস্ট ব্যাংক মোবাইল ব্যাংকিং এর গ্রাহক হতে চান তবে অবশ্যই আজকে এজেন্টের কাছ থেকে অথবা নিজের মোবাইল অ্যাপসটি ডাউনলোড করে একটি অ্যাকাউন্ট তৈরি করে নিতে পারেন। ট্রাস্ট ব্যাংক মোবাইল ব্যাংকিং নিরাপদ লেনদেন করতে অঙ্গীকারবদ্ধ।

সচরাচর জিজ্ঞাসা

ট্রাস্ট ব্যাংক মোবাইল ব্যাংকিং অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে হয় কিভাবে?

উত্তর: ট্রাস্ট ব্যাংক মোবাইল ব্যাংকিং একাউন্ট তৈরি করতে দুটি পদ্ধতি রয়েছে। ১) এজেন্টের কাছ থেকে অ্যাকাউন্ট তৈরি করা যায়। ২) অ্যাপসের মাধ্যমে নিজেই অ্যাকাউন্ট তৈরি করা যায়।

ট্রাস্ট ব্যাংক মোবাইল ব্যাংকিং এর হেল্পলাইন নাম্বার কত?

উত্তর:ট্রাস্ট ব্যাংক মোবাইল ব্যাংকিং এর হেল্পলাইন নম্বর হলো ১৬২০১।

ট্রাস্ট ব্যাংক মোবাইল ব্যাংকিং সপ্তাহে কয়দিন লেনদেন করে?

উত্তর: ট্রাস্ট ব্যাংক মোবাইল ব্যাংকিং সপ্তাহের সাতদিন দিনে ২৪ ঘন্টা লেনদেন করে থাকে।

শেষ কথা-

প্রিয় পাঠক পাঠিকা বন্ধুরা আশা করছি আজকের আর্টিকেলটি আপনারা শেষ পর্যন্ত পড়েছেন ইতোমধ্যেই।আজকের আর্টিকেলটি যদি আপনি শেষ পর্যন্ত পড়ে থাকেন তাহলে আজকের আর্টিকেলের বিষয়বস্তু সম্পর্কে আপনি ধারণা নিতে পেরেছেন। অর্থাৎ ট্রাস্ট ব্যাংক মোবাইল ব্যাংকিং পরিষেবা সম্পর্কে আপনার ধারণা অবশ্যই বৃদ্ধি পেয়েছে এই আর্টিকেলটি পড়ে।আমার আর্টিকেলটি যদি আপনার ভালো লেগে থাকে তবে অবশ্যই আমাদের ওয়েবসাইটটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করবেন।

আজকের মত এই পর্যন্তই। সকলেই ভালো থাকবেন সুস্থ থাকবেন।

পোস্ট ট্যাগ-

ট্রাস্ট ব্যাংক হেল্পলাইন মোবাইল নাম্বার,ট্রাস্ট ব্যাংক শাখা,ট্রাস্ট ব্যাংক মোবাইল ব্যাংকিং ব্যালেন্স চেক,ট্রাস্ট ব্যাংক লোন,মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক হেল্পলাইন নাম্বার,ট্রাস্ট ব্যাংক লিমিটেড,ট্রাস্ট ব্যাংকের শাখা সমূহ ঢাকা,ট্রাস্ট ব্যাংক স্যালারি লোন।

আপনার জন্য আরো –

আপনার জন্য-

নগদের এজেন্টের কমিশন কত?

মোবাইল ব্যাংকিং বলতে কি বুঝ ও মোবাইল ব্যাংকিং এর অসুবিধা

মোবাইল ব্যাংকিং কয়টি ও কি কি

নগদ মোবাইল ব্যাংকিং ডিলার হতে কি লাগে

মোবাইল ব্যাংকিং বলতে কি বুঝ ও মোবাইল ব্যাংকিং এর অসুবিধা

উপায় মোবাইল ব্যাংকিংয়ে কি সুবিধা পাবেন?

উপায় মোবাইল ব্যাংকিং কোড কত

উপায় অ্যাকাউন্ট খোলার সহজ পদ্ধতি

নগদ একাউন্ট দেখার নিয়ম ২০২৩

উপায় ক্যাশ আউট ও সেন্ড মানি খরচ কত

SS IT BARI– ভালোবাসার টেক ব্লগের যেকোন ধরনের তথ্য প্রযুক্তি সম্পর্কিত আপডেট পেতে আমাদের মেইল টি সাবস্ক্রাইব করে রাখুন-

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join ৪৯২ other subscribers

 

প্রতিদিন আপডেট পেতে আমাদের নিচের দেয়া এই লিংক এ যুক্ত থাকুন

SS IT BARI- ফেসবুক গ্রুপে যোগ দিয়ে প্রযুক্তি বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুনঃ এখানে ক্লিক করুন

SS IT BARI- ফেসবুক পেইজ লাইক করে সাথে থাকুনঃ এখানে ক্লিক করুন।
SS IT BARI- ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করতে :এখানে ক্লিক করুন এবং দারুণ সব ভিডিও দেখুন।

SS IT BARI- টুইটার থেকে আমাদের খবর সবার আগে পেতে : এখানে ক্লিক করুন।

SS IT BARI- লিংকদিন থেকে আমাদের খবর সবার আগে পেতে : এখানে ক্লিক করুন।

SS IT BARI- ইনস্টাগ্রাম থেকে আমাদের খবর সবার আগে পেতে : এখানে ক্লিক করুন।

SS IT BARI- টুম্বলার (Tumblr)থেকে আমাদের খবর সবার আগে পেতে :এখানে ক্লিক করুন।

SS IT BARI- পিন্টারেস্ট (Pinterest)থেকে আমাদের খবর সবার আগে পেতে : এখানে ক্লিক করুন।

SS It BARI JOB NEWS

SS IT BARI-ভালোবাসার টেক ব্লগ টিম