চর্মরোগ থেকে মুক্তি পাওয়ার কার্যকারী চিকিৎসা-Health Bangla Tips

চর্মরোগ থেকে মুক্তি –চর্মরোগ একটি বহুল পরিচিত এবং সংক্রমিত রোগের নাম। বাংলাদেশে এই রোগের রোগীর অভাব নেই। চর্ম রোগের প্রধান কারণগুলো হলো অস্বাস্থ্যকর পরিবেশ অপরিচ্ছন্নতা। বিশেষ করে জনবহুল দরিদ্র দেশগুলোতে এই রোগের আক্রান্ত সংখ্যা বেশি থাকে যার কারণে বাংলাদেশের চর্ম রোগের আক্রান্ত সংখ্যা অনেক বেশি। এটি এমন একটি সংক্রমিত রোগ যে রোগে আক্রান্ত ব্যক্তির সংস্পর্শে, তার ব্যবহার করা বিভিন্ন জিনিসপত্র থেকে আরেকজনের শরীরে চর্মরোগ ছড়াতে পারে।

চর্মরোগ থেকে মুক্তি

এই রোগটি সাধারণ হলেও এর ভোগান্তি কিন্তু অনেক বেশি। অস্বস্তিকর চুলকানি জ্বালাপোড়া হতে পারে এই রোগে। শরীরের বিভিন্ন স্থানে ব্রণ এবং র্্যাসের সৃষ্টি হতে পারে। এটি শরীরের যেকোনো একটি স্থানে দেখা দিয়ে পুরো শরীরেও ছড়িয়ে যেতে পারে। চর্ম রোগীর বিভিন্ন ধরন অনুযায়ী এর লক্ষণ বা উপসর্গ গুলো দেখা দেয়।

বর্তমানে চর্ম রোগের জন্য অনেক মলম বা ঔষধ ডাক্তাররা দিয়ে থাকেন। তাই কারো ক্ষেত্রে যদি এই রোগের তীব্রতা বেশি হয় তাহলে অবশ্যই ডাক্তারের শরণাপন্ন হয়ে চিকিৎসা নেওয়া উচিত রোগের ক্ষতিকারক প্রভাব পড়ার আগে।

ঘুম হচ্ছে না? চিন্তিত? জেনে নিন সমাধান-ঘুম কম হওয়ার সমস্যা থেকে পরিত্রাণ পাবার উপায়

চর্ম রোগের সাথে বাংলাদেশের সবাই কমবেশি পরিচিত। কারণ বাংলাদেশ একটি জনসংখ্যা বহুল দরিদ্র দেশ যার পরিবেশ তেমন উন্নত নয়। চর্ম রোগে অনেক অস্বস্তি কর সময়ের মধ্য দিয়ে পার করতে হয় যার কারণে রোগীরা এই সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়ার বিভিন্ন উপায় খুঁজে দেখেন। তাদের জন্য আজকে আর্টিকেলে চর্ম রোগ থেকে মুক্তি পাওয়ার উপায়গুলো তুলে ধরা হবে।আশা করব শেষ পর্যন্ত আর্টিকেলটি পড়ে আমাদের সাথে থাকবেন এবং চর্ম রোগের থেকে পরিত্রাণ পাবার উপায় সম্পর্কে জেনে নিবেন।

চর্মরোগ কি

চর্মরোগ এমন একটি ব্যাকটেরিয়াজনিত রোগ যা শরীরের যেকোন স্থানে হলে চুলকানি জ্বালাপোড়া লাল লাল দাগ ফুসকুড়ি ইত্যাদির মত অস্বস্তিকর সমস্যা দেখা দিতে পারে। এটি সাধারণত ত্বকের উপর বাহ্যিকভাবে প্রকাশ পায় যার কারণে এই রোগকে চর্মরোগ বলা হয়।

বিভিন্ন ধরনের এলার্জি যুক্ত খাবার বিভিন্ন ধরনের রাসায়নিকের সংস্পর্শে আসা বিভিন্ন ধরনের পোকামাকড়ের কামড় থেকে চর্ম রোগের সূত্রপাত হতে পারে। চর্মরোগ এমন একটি সংক্রমিত রোগ যা একজনের থেকে আরেকজনের শরীরে ছড়িয়ে পড়তে পারে আক্রান্তের সংস্পর্শে থাকলে এ ছাড়া আক্রান্ত ব্যক্তির ব্যবহার্য কাপড়-চোপড় কিংবা জিনিসপত্র ব্যবহারের ফলে।

চর্ম রোগের লক্ষণ

চর্ম রোগের ধরন অনুযায়ী চর্ম রোগের উপসর্গ দেখা যায়। একেক ধরনের চর্ম রোগের উপসর্গ একেক রকমের। সব ধরনের চর্মরোগে চুলকানির সমস্যা থাকে না। সাধারণত চর্ম রোগের ক্ষেত্রে যে সকল উপসর্গগুলো বেশি পরিলক্ষিত হয় সেগুলো হচ্ছে;

১) ত্বকে চুলকানি হওয়া।

২) ত্বকের মধ্য ফুসকুড়ি হওয়ার মতো সমস্যা।

৩) চুলকানি হওয়ার মাধ্যমে র্্যাশ দেখা দেয়।

৪) ত্বক খসখসে বা রুক্ষ রুক্ষ হয়ে যাওয়া।

৫) ত্বক থেকে চামড়া উঠে যাওয়া।

৬) মুখের মধ্যে ব্রণ উঠা‌।

৭) ত্বকের মধ্য ক্ষত বা ঘা হওয়া।

৮) অতিরিক্ত ফ্লাসিং।

৯) ত্বকের মধ্য বিবর্ণ দাগ।

১০) ক্ষত থেকে পানি বা পুচ পরা।

চর্মরোগ দূর করার ঘরোয়া চিকিৎসা

চর্মরোগ একটি সাধারণ রোগ হলেও এর ভয়াবহতা বা এর ভোগান্তি অনেক।চর্মরোগ দূর করার জন্য প্রাকৃতিক বা কিছু ঘরোয়া পদ্ধতি প্রয়োগ করে এই রোগের থেকে পরিত্রাণ পাওয়া যায়। এই রোগ থেকে পরিত্রাণ পাবার ঘরোয়া চিকিৎসা গুলো হচ্ছে-

অ্যালোভেরা

এলোভেরা একাধিক গুণ রয়েছে। ত্বকের যে কোন সমস্যার সমাধানে এলোভেরার রস খুবই কার্যকারী।

অলিভ অয়েল

শুষ্ক ত্বকে চর্ম রোগের সমস্যা অনেক বেশি  থাকে।অলিভ অয়েলের থাকা ভিটামিন ত্বকে মিশে গিয়ে ত্বকের আদ্রতা বজায় রাখতে সহায়তা করে। ফলে নিয়মিত শরীরের ত্বকে অলিভ অয়েল মাখলে ত্বক ভালো থাকে।

গুগল নিউজে SS IT BARI সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন

বেকিং সোডা

বেকিং সোডা দিয়ে ত্বকের নানা সমস্যার সমাধান সম্ভব। আক্রান্ত জায়গায় বেকিং সোডা লাগালে সঙ্গে সঙ্গে জ্বালাপোড়া ভাব ও চুলকানি কমে যায়।

তুলসী পাতা

তুলসী পাতা রয়েছে হাজারো গুণ। নানা ধরনের ক্ষত লাল ছোপ পোড়া চুলকানি সহ ত্বকের যেকোনো সমস্যার সমাধানে তুলসী পাতা বেটে রস লাগালে সঙ্গে সঙ্গে উপকার পাওয়া যায়।

নিম পাতা

নিম পাতায় রয়েছে এমন উপাদান যা যে কোন জ্বালাময় ভাব কমিয়ে দিতে পারে। বিশেষ করে চুলকানি বা ত্বকের লাল ছোপ ইত্যাদি কমাতে নিমপাতা বিশেষ কাজ করে।

চর্ম রোগের চিকিৎসা

বিভিন্ন ধরনের চর্ম রোগের জন্য ডাক্তাররা বিভিন্ন ধরনের ক্রিম বা ঔষধ দিয়ে থাকেন।চলুন দেখা যাক ধরুন অনুযায়ী চর্ম রোগের চিকিৎসা গুলো কি কি।

টিনিয়া পেডিস

সাধারণত পায়ের পাতায় বা আঙুলের ভাজে ছত্রাক জমার কারণে টেনিয়া পেডিস রোগটি হয়। বাচ্চাদের ক্ষেত্রে এই সমস্যা বেশি দেখা যায়।

কিটুকোনাজল জাতীয় ওষুধ লাগালে এই ধরনের সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।

পিটিরিয়াসিস

চলিত কথায় রোগটি ছুলি নামে পরিচিত। এটি একটি ছত্রাক ঘটিত সংক্রমণ।

ছুলি অনেক রঙের হতে পারে যেমন হালকা সাদা আবছা সাদা হালকা বা গারো বাদামি ইত্যাদি। বর্ষাকালের বাতাসে জলীয় বাষ্পের পরিমাণ বেড়ে গেলে ছুলির জন্য দায়ী ছত্রাকের বংশবিস্তারে সুবিধা হয়। তাই এই সময় ছুলির প্রকোপ বাড়ে।

খাওয়ার ওষুধ হিসেবে ফ্লকোনাজল ট্যাবলেট অথবা কিটোকোনাজল জাতীয় ট্যাবলেট জলে গুলে নির্দিষ্ট মাত্রায় খাওয়ানো দরকার। লাগাবার ওষুধ হিসেবে ক্লোটামাইজল, কিটোকোনাজল অথবা জিংক পারঅক্সাইড জাতীয় ক্রিম লাগানো যায়। অনেক সময় মাথায় চুলের ছত্রাক বাসা বাঁধে তখন কিটুকুনাজল শ্যাম্পু ব্যবহার করা যায়। মাথায় ছত্রাক সংক্রমণ হলে গ্রীসিও ফলভিন সিরাপ খেলে সুফল পাওয়া যায়।

ন্যাপি র্্যাশ

এই চর্মরোগটি ন্যাপকিন ডার্মাটাইটিসের মূল কারণ ভিজে ন্যাপকিন এর সংস্পর্শ এবং বর্ষার আর্দ্র আবহাওয়ার কারণে এটি বেশি হয়ে থাকে।ডাইপারের ঘষা লেগে শিশুর কচি ত্বক সরে গেলে মুত্রে থাকা জীবাণুরা ভিজেও স্যাঁতস্যাঁসাতে জায়গা দ্রুত বংশবৃদ্ধি করে ছড়িয়ে পড়ে। তার ফলে ন্যাপকিন ডার্মাটাইটিস এর সৃষ্টি হয়।

এই রোগটি উপশমে প্রয়োজনে জিংক অক্সাইড টাইট্রোনিয়াম ডাই অক্সাইড ইত্যাদি লাগানোর পরামর্শ দেওয়া হয়।

টস্কেবিস

বর্ষাকালে এই সমস্যাটি খুবই স্বাভাবিক এই সমস্যায় আক্রান্ত অংশ খুব চুলকায় দিন থেকে রাতের দিকে চুলকানি বেড়ে যায়। হাতের কব্জি আঙ্গুলের ফাঁক, আঙুলের চার ধার, মাথা ও দেহের ভাজে এই সমস্যা দেখা দিতে পারে। আক্রান্ত স্থলে লাল দানা আকারের ক্ষত হয় সঠিক সময় চিকিৎসা না করানো হলে মাসের-পর-মাস এর রোগী এই সমস্যায় ভুগতে পারেন।

পার্মাইড ক্রিম, পারমেথ্রিন, আইভারমেক্টিন ঔষধ গুলোতে এই রোগ থেকে পরিত্রাণ পাওয়া যায়।

আর্টি কেরিয়া

প্রচলিত রোগ আমবা চিকিৎসার পরিভাষা‌ আর্টি কেরিয়া। বেশিরভাগই এটি একটি সাময়িক সমস্যা।এই রোগের প্রধান চিকিৎসা দুটো তিন সপ্তাহ ধরে ফেক্সো ফেনাডিন অথবা লুরাটাডাইনজাতীয় এন্টিহিস্টামিন সিরাপ এবং রাতের বেলা সেট্রিজিন খাওয়ানো। আক্রান্ত স্থানে লেগ টু ক্যালামাইন জাতীয় ওষুধ লাগানো যেতে পারে।একিউট আর্টিকেরিয়াতে অনেক সময় শ্বাসনালী রুদ্ধ হয়ে যায়। সে ক্ষেত্রে চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া উচিত।

বিভিন্ন ধরনের চর্মরোগ থেকে বাঁচতে অবশ্যই পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন থাকতে হবে। স্যতসেতের নোংরা জায়গায় থাকলে এই সমস্যার প্রকোপ বৃদ্ধি পায় যার কারণে ভালো পরিবেশে পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতার সাথে বসবাস করা উচিত। নিয়মিত স্বাস্থ্যকর খাবার খাওয়ার মাধ্যমে দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে করলে সব ধরনের রূপ থেকে মুক্ত থাকা যায়। খাবার আগে অবশ্যই ভালোভাবে হাত ধুয়ে খাবার খাওয়া উচিত। এছাড়াও বিভিন্ন প্রকার রাসায়নিক জিনিসের সংস্পর্শে থেকে নিজেকে দূরে রেখে সুস্থ থাকা খুব জরুরী।

শেষ কথা

সম্মানিত পাঠক পাঠিকা বন্ধুরা ইতোমধ্যেই আপনারা চর্ম রোগের সমস্যার সমাধান গুলো সম্পর্কে অবগত হতে পেরেছেন আমাদের আজকের আর্টিকেলের মাধ্যমে। এই সংক্রান্ত কারো কোন প্রশ্ন থাকলে অবশ্যই আমাদের কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে ভুলবেন না।আমাদের ওয়েবসাইটে প্রতিদিন আরো নতুন নতুন কনটেন্ট গুলো আপনারা পেতে চাইলে নিয়মিত আমাদের ওয়েবসাইটের সাথে থাকবেন এবং আপনার বন্ধুদের সাথে ওয়েবসাইটটির কথা শেয়ার করবেন। আজকের মত এখানেই বিদায় নিচ্ছি। সবাই ভালো থাকবেন। সুস্থ থাকবেন।

পোস্ট ট্যাগ-

চর্ম রোগের ঔষধের নাম,চর্মরোগ থেকে মুক্তির আমল,দাউদ থেকে মুক্তির উপায়,চর্মরোগ কিসের অভাবে হয়,বিভিন্ন চর্মরোগের ছবি,চর্ম রোগের ক্রিম,চর্ম এলার্জি দূর করার উপায়,চর্ম রোগের মহা ঔষধ।

আপনার জন্য-

যক্ষা বা টিবি রোগের লক্ষণ

ক্যান্সার রোগের যেসব লক্ষণ এড়িয়ে যাবেন না

শ্বেতী রোগের লক্ষণ ও চিকিৎসা সম্পর্কে জেনে নিন

আয়রন যুক্ত খাবার

ডায়াবেটিস প্রতিরোধ করতে কি কি খাবার খাওয়া উচিত

কালোজিরা খাওয়ার নিয়ম

বমি হলে কি খাওয়া উচিত

থ্যালাসেমিয়া রোগীর জন্য উপযোগী খাবার

সিজারিয়ান মায়ের খাদ্য তালিকা

সুস্থ থাকতে স্বাস্থ্যকর খাবার খাবার গ্রহণ

কিডনি পরিষ্কার রাখার ৯টি খাবার সম্পর্কে জেনে নেই

SS IT BARI– ভালোবাসার টেক ব্লগের যেকোন ধরনের তথ্য সম্পর্কিত আপডেট পেতে আমাদের মেইল টি সাবস্ক্রাইব করে রাখুন।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join ৪৯২ other subscribers

 

প্রতিদিন আপডেট পেতে আমাদের নিচের দেয়া এই লিংক এ যুক্ত থাকুন

SS IT BARI- ফেসবুক গ্রুপে যোগ দিয়ে প্রযুক্তি বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুনঃ এখানে ক্লিক করুন

SS IT BARI- ফেসবুক পেইজ লাইক করে সাথে থাকুনঃ এখানে ক্লিক করুন।
SS IT BARI- ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করতে :এখানে ক্লিক করুন এবং দারুণ সব ভিডিও দেখুন।

SS IT BARI- টুইটার থেকে আমাদের খবর সবার আগে পেতে : এখানে ক্লিক করুন।

SS IT BARI- লিংকদিন থেকে আমাদের খবর সবার আগে পেতে : এখানে ক্লিক করুন।

SS IT BARI- ইনস্টাগ্রাম থেকে আমাদের খবর সবার আগে পেতে : এখানে ক্লিক করুন।

SS IT BARI- টুম্বলার (Tumblr)থেকে আমাদের খবর সবার আগে পেতে :এখানে ক্লিক করুন।

SS IT BARI- পিন্টারেস্ট (Pinterest)থেকে আমাদের খবর সবার আগে পেতে : এখানে ক্লিক করুন।

SS It BARI JOB NEWS

SS IT BARI-ভালোবাসার টেক ব্লগ টিম